দোয়ারাবাজারে অগ্নিকান্ডে ৬ দোকান ভস্মীভূত ক্ষয়ক্ষতি অর্ধকোটি টাকা

প্রকাশিত: ৫:২৮ অপরাহ্ণ, জুন ১৬, ২০২০

দোয়ারাবাজারে অগ্নিকান্ডে ৬ দোকান ভস্মীভূত ক্ষয়ক্ষতি অর্ধকোটি টাকা

দোয়ারাবাজার প্রতিনিধি :: সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলার পূর্ব বাংলাবাজারে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট (মিটা) থেকে সৃষ্ট অগ্নিকান্ডে ৬টি দোকান ভস্মীভূত হয়েছে। এতে দোকানপাট, আসবাবপত্র ও মালামালসহ অন্তত অর্ধকোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ী ও দোকান মালিকরা। ১৫ জুন সোমবার দিবাগত রাত সোয়া ১০টার দিকে বাজারের পশ্চিমাংশে মসজিদ রোডস্থ মসজিদের উত্তরের গলিতে ওই ভয়াবহ অগ্নিকান্ড সংঘটিত হয়।

বাংলাবাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি য়ওশন মিয়া, সেক্রেটারী ডাঃ সালাহ উদ্দিন আহমদ ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সেলিম আহমদ জানান, করোনাভাইরাস সংক্রমণে প্রশাসনিক নির্দেশে বাজার লকডাউন করায় শুধুমাত্র ফার্মেসি ছাড়া বাকি সকল দোকানপাট বিকাল ৪টায় বন্ধ করে ব্যবসায়ীরা বাসাবাড়িতে চলে যান।

সহসা রাতে বাজারে আগুন লাগার খবর পেয়ে ব্যবসায়ীসহ আশপাশ গ্রামের শত শত লোাক দ্রুত ঘটনাস্থলে ছুটে এসে প্রাণপণ চেষ্টা চালানোর ঘন্টা খানেক পর আগুন নিয়ন্ত্রনে আসে। এতক্ষণে দোয়ারাবাজারে অগ্নি নির্বাপনের কোনো ব্যবস্থা না থাকায় সুদূর ছাতক উপজেলা সদর থেকে সুরমা নদীর লাফার্জ ফেরি পার হয়ে দমকল বাহিনী ঘটনাস্থলে পৌছার আগেই মালামালসহ ৬টি দোকান ছারখার হয়ে যায়। অগ্নিকান্ডে সম্পূর্ণ ভস্মীভূত ৪টি দোকান হচ্ছে- জাকির হোসেন ও ডাঃ নাসির আহমদের ফার্মেসি, মেসার্স আব্দুল জলিল বীজঘর ও বাঁশ-বেতের কুটির শিল্পজাত দ্রব্যের দোকান। এছাড়া আগুনে পুড়ে শফিকুুল ইসলামের ফার্মেসি এবং মকবুল হোসেনের পোলট্রি ফার্মের আংশিক ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। ১নং বাংলাবাজার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাস্টার জসিম উদ্দিন চৌধুরী রানা ও দোয়ারাবাজার থানার ওসি আবুল হাশেম সংঘটিত অগ্নিকান্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun

আমাদের ফেইসবুক পেইজ