দোয়ারাবাজারে বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত

প্রকাশিত: ৭:০৫ অপরাহ্ণ, মে ১৮, ২০২২

দোয়ারাবাজারে বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি :: মঙ্গলবার রাত থেকে অপেক্ষাকৃত কম বৃষ্টিপাত হলেও ভাটিতে পানির টান না থাকায় সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত রয়েছে। বুধবার সকালের দিকে পানি কিছুটা হ্রাস পেলেও বিকাল থেকে উত্তাল পূবাল ঢেউয়ের আঘাতে নিম্নাঞ্চলে হু হু করে আবারও পানি বাড়ছে। উপজলার অধিকাংশ রাস্তাঘাটে কোমর ও বুকসমান পানি থাকায় যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ায় পরিবার পরিজন ও গবাদি পশুপক্ষী নিয়ে চোখে সর্ষেফুল দেখছেন ফসলহারা পানিবন্দি মানুষজন।

গৃহবন্দি হয়ে পড়েছেন বগুলা, বাংলাবাজার, লক্ষীপুর, সুরমা, দোহালিয়া, নরসিংপুর ও দোয়ারা সদরসহ উপজেলার ৯ ইউনিয়নের কর্মজীবীসহ পানিবন্দি লাখো মানুষ।

পানিতে পচে বিনষ্ট হয়েছে বন্দেহরি, গোজাউড়া ও নাইন্দার হাওরসহ সবকটি মাঠের অধিকাংশ বোরো ফসল। পাকা ধান ঘরে তুলতে না পারায় আহাজারি থামছেনা প্রান্তিক বর্গাচাষীসহ ভূক্তভোগী কৃষকদের। ঘরের মেঝেতে হাটুপানি, কোমরপানি থাকায় হাড়ি বসছেনা অনেক বানভাসি পরিবারে। ভেসে গেছে অর্ধশতাধিক পুকুরের কোটি টাকার মাছ ও মাছের পোনা। অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পানি ঢুকায় বন্ধ রয়েছে শিক্ষা কার্যক্রম।

এদিকে বুধবার দিনভর উপজেলা নির্বাহী অফিসার দেবাংশু কুমার সিংহ পরিদর্শন করেছেন বন্যা উপদ্রুত এলাকাসমুহ। গত দু’দিনে অনেক বন্যার্ত পরিবারকে গবাদিপশুসহ নিরাপদ আশ্রয়কেন্দ্রগুলোতে স্থানান্তর করা হয়েছে। মঙ্গল ও বুধবার দিনভর সুরমা, দোহালিয়া ও দোয়ারা সদরসহ দূর্গত এলাকায় বানভাসিদের মাঝে শুকনা খাবার ও পানি বিশুদ্ধিকরণ টেবলেট ইত্যাদি বিতরণ ও পরিদর্শনকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মহোদয়ের সাথে ছিলেন উপজলা পরিষদ চেয়ারম্যান দেওয়ান তানভীর আশরাফী চৌধুরী বাবু, বিভিন্ন প্রশাসনিক কর্মকর্তা ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা ।

এদিকে দোয়ারাবাজার উপজেলাকে অচিরেই দূর্গত এলাকা ঘোষণা করে বন্যার্তদের জন্য পর্যাপ্ত ত্রাণসামগ্রী বরাদ্দের দাবি জানিয়েছেন উপজেলার সচেতন নাগরিক সমাজের নেতৃবৃন্দ এ রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত পানিবৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার দেবাংশু কুমার সিংহ জানান, বন্যার্তদের জন্য আশ্রয়কেন্দ্র খোলা হয়েছে। কন্ট্রোল রুম খোলা ছাড়াও বন্যা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ ও মোকাবলায় স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করা হয়েছে। অপরদিকে কৃষকদের অরক্ষিত ধান গুদামে সংরক্ষণের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলেও তিনি জানান।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun
28      
       
       
       
1234567
2930     
       

আমাদের ফেইসবুক পেইজ