দোয়ারাবাজারে বৃদ্ধা বোনের হাত ভেঙে দিলো ভাইয়েরা

প্রকাশিত: ৩:১০ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১২, ২০২১

দোয়ারাবাজারে বৃদ্ধা বোনের হাত ভেঙে দিলো ভাইয়েরা

দোয়ারাবাজার প্রতিনিধি

দোয়ারাবাজারে পৈতৃক সম্পত্তি চাইতে গিয়ে আপন ভাই ও ভাতিজার হাতে গুরুতর আহত হলেন সালমা বেগম(৬০) নামের এক বৃদ্ধা। সম্প্রতি উপজেলার বাংলাবাজার ইউনিয়নের পেকপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

সম্পত্তির অংশ চাওয়ায় আপন ভাই আবদুর রহমান ও তার সন্তানরা ক্ষুব্ধ হয়ে ওই বৃদ্ধাকে বেধড়ক মারপিট করে হাত ভেঙ্গে দেয়। এই ঘটনার প্রতিবাদ করতে গেলে বৃদ্ধার স্বামী নলু মিয়া(৭০) তার পুত্র আলাল মিয়া(৩৫), পুত্রবধূ রোজিনা খাতুন(৩০)এর উপর উপর্যপরী আক্রমণ করে তাদেরকেও মারপিট করতে থাকে। এসময় সুরচিৎকার শুনে গ্রামবাসী এসে তাদের কবল থেকে গুরুতর আহত অবস্থায় তিনজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠান।

চিকিৎসা শেষে বৃদ্ধার আহত পুত্র আলাল মিয়া বাদী হয়ে দোয়ারাবাজার থানায় একটি মামলা দায়ের করেন ( মামলা নং ৭/১৬১)।

এ দিকে প্রভাবশালী আবদুর রহমানের বিরুদ্ধে মামলায় করায় ক্ষুব্ধ হয়ে ক্ষতিগ্রস্ত লোকজনের বাড়িঘরে হামলা চালায় এবং মামলা তুলে নিতে হুমকি ধমকী দিতে থাকে। বর্তমানে নিরীহ ওই পরিবারের লোকজন তাদের ভয়ে দিনাতিপাত করছে।

মঙ্গলবার দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে আলালমিয়া বলেন, আমার মায়ের সম্পত্তির অংশ চাইতে গেলে অন্যায়ভাবে বেধড়ক মারধর করে ডান হাত ভেঙে দেয়। এর প্রতিবাদ করতে গেলে আমাদের উপরও চড়াও হয়ে মারপিট করে। তাদের বিরুদ্ধে মামলা করে এখন নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছি। মামলা তুলে নিতে এখন তারা আমাদের ভয়ভীতি দেখাচ্ছে। মামলা করার পর একজন আটক হলেও কয়েকদিনের মধ্যে জামিনে মুক্ত হয়ে আবারও আমাদের উপর অত্যচার নির্যাতন শুরু করে দিয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িত অন্যরা এখনও গ্রেফতার হয়নি।

গুরুতর আহত সালমা বেগম বলেন, আমার পৈতৃক সম্পত্তির অংশ চাওয়ায় ভাই ভাতিজারা আমার হাত ভেঙে দিয়েছে। মামলা করায় এখন আমরা চরম নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছি।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে দোয়ারাবাজার থানার ওসি দেবদুলাল ধর বলেন, মামলায় একজনকে আটক করে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছিল। বাকী আসামীদের গ্রেফতার করার প্রচেষ্টা চলছে।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun

আমাদের ফেইসবুক পেইজ