দোয়ারাবাজার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স অভ্যন্তরে দূর্নীতির অভিযোগ

প্রকাশিত: ৮:৫৩ অপরাহ্ণ, জুন ১৬, ২০২০

দোয়ারাবাজার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স অভ্যন্তরে দূর্নীতির অভিযোগ

এনামুল কবির (মুন্না): দোয়ারাবাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের হারবাল অ্যাসিস্ট্যান্ট সনোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে দূর্নীতি ও স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ উঠেছে। কোন খুঁটির জোরে তিনি এতো বেপরোয়া হয়ে উঠেছেন এটাই স্থানীয়দের প্রশ্ন ? স্থানীয়দের অভিযোগ, হারবাল অ্যাসিস্ট্যান্ট সানোয়ার হোসেনের আচার আচরণ যেনো বিভাগীয় বড় কর্মকর্তাকেও হার মানিয়েছে। কর্তব্যরত দায়িত্বে থাকার পাশাপাশি কম্পিউটার অপারেটরের দায়িত্ব পালন করে থাকেন। এছাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক প্লটে পরিবার পরিজনদের নিয়ে বসবাসরত অবস্থায় হাসপাতালের পুকুরের মাছ ও গাছ-গাছালি বিক্রিসহ নানা অপকর্মের সঙ্গে জড়িত রয়েছেন তিনি। সম্প্রতি এক অনুসন্ধানে জানা যায়, ১৪ জুন রোববার সন্ধ্যায়ো উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বাগান থেকে ৩২টি কাঁঠাল কর্তৃপক্ষের অগোচরে ৭ হাজার টাকায় বিক্রি করে তা আত্মসাৎ করেন।স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতা দেলোয়ার হোসেন, জুয়েল আহমদ, ভুট্টা মিয়ার অভিযোগ করে বলেন, হাসপাতালের ৩২টি কাঠাল বিক্রির বিষয়ে জানতে চাইলে সানোয়ার আমাদের সাথে উল্টো অশুভ আচরণ করেন। পরদিন ১৫ জুন স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মীদের সাথেও এ বিষয়ে বক্তব্য নিতে গেলে অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন তিনি। এমনকি এ বিষয়ে বক্তব্য দিতেও রাজি হননি তিনি। এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ দেলোয়ার হোসেন সুমন জানান, কাঠাল বিক্রির ঘটনা আমার জানা নেই। বিষয়টি খতিয়ে দেখে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

আমাদের ফেইসবুক পেইজ