ধর্ষণ ইস্যুকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করা যাবে না : মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ

প্রকাশিত: ৪:৩৮ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১০, ২০২০

ধর্ষণ ইস্যুকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করা যাবে না : মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ

নিজস্ব প্রতিবেদক :: সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ বলেছেন, ধর্ষণ ইস্যুকে যারা ভিন্নখাতে প্রবাহিত করছে তাদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে।

যেকোনো আন্দোলনের আগেই শেখ হাসিনা সরকার ব্যবস্থা নিয়েছে, এসব অপরাধ ও ঘৃণ্য অপকর্মের বিরুদ্ধে সরকারের অবস্থান সবসময়ই স্পষ্ট এবং কঠোর। এ সকল ঘৃণ্য অপরাধীদের রাজনৈতিক আশ্রয় প্রশ্রয় দেয়া যাবে না, যারা আশ্রয় প্রশ্রয় দেবে তাদেরও বিচারের আওতায় আনা হবে।

তিনি আরও বলেন, ধর্ষণ আন্দোলনকে পুঁজি করে যারা ক্ষমতায় যাওয়ার ষড়যন্ত্র করছেন। তাদের ষড়যন্ত্র সফল হবে না।  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জনগণের আস্থা নিয়ে সরকার পরিচালনা করছে। এদেশের মাটি ও মানুষের মনের গভীরে আওয়ামী লীগের শেকড়।  ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য আওয়ামী লীগ অপরাধীদের আশ্রয় দেয় না। যারা ধর্ষকদের বিচারের নামে আন্দোলনে নেমে ভিন্ন ভাষায় কথা বলে, জনসচেতনতা তৈরির পরিবর্তে সরকার পরিবর্তনের কথা বলে প্রকারান্তরে তারা ধর্ষকদের আশ্রয় প্রশ্রয় দিচ্ছে। আওয়ামী লীগ জনগণের ভালোবাসায় টিকে আছে, টিকে থাকবে।

দেশব্যাপী ধর্ষণসহ বর্বরোচিত নিপিড়ন, নির্যাতনের প্রতিবাদে বাংলার মুখ সিলেটের আয়োজ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার দুপুরে (১০ অক্টোবর) সিলেট নগরীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠির হয়। বাংলার মুখ সিলেটের আহ্বায়ক ডা. নাজরা চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও যুগ্ম আহ্বায়ক বাবলু আহমদের পরিচালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে  রাখেন সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ।

মানববন্ধনে ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ডের বিধান করতে আইন মন্ত্রণালয়কে নির্দেশ দেওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানান বক্তারা। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পরিশ্রমের ফলে দ্রুত সময়ের মধ্যে সিলেটসহ সারাদেশে ধর্ষণের সাথে জড়িতদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদেরও ধন্যবাদ জানান।।

মানবন্ধনে বক্তারা বলেন, ২০১৮ সালে নিরাপদ সড়ক দাবির ছাত্র আন্দোলন পুঁজি করে ষড়যন্ত্রকারীর নীলনকশা ছিল সরকারের পতন ঘটানো। কিন্তু সে সময় তাদের সব ষড়যন্ত্র রুখে দেওয়া হয়েছে। আজ আবার ২০২০ সালে যখন সবাই ধর্ষণ বিরোধী আন্দোলনে এক, তখন স্বাধীনতা বিরোধীরা তারুণ্যে আবেগকে ব্যবহার করে সরকার পতনের পাঁয়তারা করছে। তাদের এই পাঁয়তারা সফল হবে না। কারণ ধর্ষণের বিরুদ্ধে আজ সবাই আন্দোলন করছে সরাকারে বিরুদ্ধে নয়। স্বাধীনতা বিরোধীদের হুশিয়ার দিয়ে বক্তার আরও বলেন,  মূল্যবোধের অবক্ষয়কে কখনো পুঁজি করা যাবে না।

মানববন্ধে বক্তব্য রাখেন, বাংলার মুখ সিলেটের মুখ্য নির্বাহী এনামুল মুনীর, সিলেটের দিনকাল পত্রিকার প্রধান সম্পাদক আব্দুল লতিফ নুতন, সাধারণ ছাত্রদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন হোসেন আহমদ সাগর, লেখক আশফাক আহমদ, প্রবীণ নাট্যজন আশু তোষ ভৌমিক বিমল প্রমুখ।

 

 

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

আমাদের ফেইসবুক পেইজ