নবীগঞ্জে যুবকের ধর্ষণে কিশোরী ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা

প্রকাশিত: ১২:৫০ পূর্বাহ্ণ, জুন ৮, ২০২১

নবীগঞ্জে যুবকের ধর্ষণে কিশোরী ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা

নবীগঞ্জ প্রতিনিধি

নবীগঞ্জ পৌর এলাকার পূর্বতিমিরপুর গ্রামে জনৈক দিনমজুরের ১৭ বছর বয়সী কিশোরী মেয়েকে বাড়িতে একা পেয়ে ৩ বার ধর্ষণ করেছে এক যুবক। ২০২০ সালের ২৭ নভেম্বর এ ঘটনাটি ঘটে। এতে ওই কিশোরী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে।

এদিকে গ্রাম্য মাতব্বরদের আশ্বাসের পরও সালিশে বিচার না পেয়ে বিষয়টি আদালত পর্যন্ত গড়ায়। সোমবার (৭ জুন) ভুক্তভোগী ওই কিশোরী নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৩, হবিগঞ্জে মামলা দায়ের করেছেন। এতে একই গ্রামের আবুল কালাম খানের পুত্র আবুল হোসেন খান (২২) কে আসামি করা হয়েছে।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, প্রায় ২ বছর ধরে জনৈক কিশোরী মেয়েকে বিভিন্ন প্রলোভন দিয়ে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিলো আবুল হোসেন। তবে তার প্রস্তাবে মেয়েটি কোনোভাবেই রাজি হয়নি।

ঘটনার দিন কিশোরীর পরিবারের লোকজন তাদের এক অসুস্থ আত্মীয়কে দেখতে যান। বাড়িতে শুধু ধর্ষণের শিকার ওই মেয়েটি ছিল। পূর্বের পরিচয়ের সুবাধে রাতে অভিযুক্ত যুবক ঘরে আসলে দরজা খুলে দেয়া মাত্র সে ধারালো অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে কিশোরীকে ধর্ষণ করে। এতে করে ওই মেয়েটি মানসিকভাবে ভেঙে পড়ে। পর্যায়ক্রমে বিয়ে করার প্রলোভন দেখিয়ে একাধিকবার কিশোরীকে ধর্ষণ করা হয়। এতে ওই কিশোরী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। বর্তমানে সে প্রায় ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা।

এদিকে ঘটনার জানাজানি হলে স্থানীয় কাউন্সিলরসহ গ্রাম্য মাতব্বররা বিষয়টি সমাধান করার চেষ্টা করেন। তবে আবুল হোসেন খানের লোকজন প্রভাবশালী হওয়ায় গ্রাম্য সালিশের ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত করা হয় তাকে। ন্যায় বিচার পেতে ওই কিশোরী অবশেষে আদালতের দ্বারস্ত হয়েছে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

আমাদের ফেইসবুক পেইজ