নির্বাচনে অনিয়ম হলে ডিসি-এসপির বিরুদ্ধে দুর্বার আন্দোলন: আবদুল কাদের

প্রকাশিত: ৮:৪০ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১০, ২০২১

নির্বাচনে অনিয়ম হলে ডিসি-এসপির বিরুদ্ধে দুর্বার আন্দোলন: আবদুল কাদের

অনলাইন ডেস্ক ::

বসুরহাট পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী আবদুল কাদের মির্জা বলেছেন, নির্বাচনে আওয়ামী লীগকে বিতর্কিত করার জন্য ওবায়দুল কাদেরকে দলে কোণঠাসা করে নিজেদের স্বার্থ হাসিল করতে নির্বাচনে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে ফেনী ও কবিরহাট থেকে অস্ত্র সরবরাহ করা হয়েছে। বারবার ডিসি-এসপিকে বলার পরও তারা কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছেন না।

তিনি কঠোর হুশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, বসুরহাট নির্বাচনে কোনো অনিয়ম হলে, নির্বাচনের আগে-পরে যদি কোনো মায়ের বুক খালি হয়, আমার কোনো মানুষের রক্ত ঝরে, কোনো বাড়িতে যদি আগুন লাগে- এর সব দায়-দায়িত্ব ডিসি-এসপি ও নির্বাচন অফিসারকে নিতে হবে। এর পরপরই ডিসি-এসপি ও নির্বাচন অফিসারের বিরুদ্ধে কঠোর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।

রোববার পৌরসভার বিভিন্ন এলাকায় তার নির্বাচনী পথসভায় এসব বক্তব্য রাখেন। এ সময় আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতা এবং স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিরা বক্তব্য রাখেন।

আবদুল কাদের বলেন, এখনও সময় আছে অস্ত্র উদ্ধার করুন, সন্ত্রাসীদের ধাওয়া করে এলাকা ছাড়া করুন। নতুবা এ সন্ত্রাসীরা যদি জনতার হাতে ধরা পড়ে, নিজাম হাজারী বা তাদের মদতদাতারা তাদের বাঁচাতে পারবে না।

দেশে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে নিজাম হাজারী বা একরামরা জামানতও পাবে না বলে মন্তব্য করে তিনি বলেন, যে ডিসি একরামের নাম লেখা মাক্স মুখে দিয়ে চলে সেই ডিসি নিরপেক্ষ হতে পারে না। তার কথাবার্তায় ষড়যন্ত্রের গন্ধ পাওয়া যায়।

নারায়ণগঞ্জের এমপি বাবুর উদ্দেশে আবদুল কাদের বলেন, টকশোতে বসে অনেক কথা বলেন- একবার এসে দেখে যান এখানে দল ঐক্যবদ্ধ। এখানে কোনো বিশৃঙ্খলা নাই। অনুমাননির্ভর বক্তব্য দিয়ে দলের ক্ষতি করার চেষ্টা করবেন না।

তিনি বলেন, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি সেলিম সাহেব ভালো মানুষ, অথচ ডিসি-এসপি তার কথা শোনেন না। এমনকি তার উপজেলার ইউএনও তার কথা শোনেন না। তারা টেন্ডারবাজ, নিয়োগ বাণিজ্য করা হাইব্রিড নেতাদের চামচামি করেন, তাদের তেল মাখে। অথচ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আস্থাশীল এই সেলিম সাহেব। নেত্রী তাকে পছন্দ করেন।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

আমাদের ফেইসবুক পেইজ