পিতৃপুরুষের আশীর্বাদ শিরে ধারণ করে দেবী মাতৃকা শক্তির আরাধনায় ব্রতী হওয়াই মহালয়া : স্বামী চন্দ্রনাথানন্দজী মহারাজ

প্রকাশিত: ১১:৫৭ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৬, ২০২১

পিতৃপুরুষের আশীর্বাদ শিরে ধারণ করে দেবী মাতৃকা শক্তির আরাধনায় ব্রতী হওয়াই মহালয়া : স্বামী চন্দ্রনাথানন্দজী মহারাজ

সিলেট রামকৃষ্ণ মিশন ও আশ্রমের সম্পাদক শ্রীমৎ স্বামী চন্দ্রনাথানন্দজী মহারাজ বলেছেন, পিতৃ পক্ষের শেষে দেবী পক্ষের শুরু। আশ্বিন মাসের কৃষ্ণা প্রতিপদ থেকে অমাবস্যা পর্যন্ত পিতৃ পক্ষের বিস্তৃতি। কৃষ্ণা প্রতিপদ থেকে প্রয়াত পিতৃ-মাতৃ কোলের বিদেহী আত্মার সন্তুষ্টি বিধানের জন্য তিলতর্পণ করার শাস্ত্রীয় বিধান রয়েছে। তিনি আরো বলেন, পিতৃপক্ষের শেষ দিন অমাবস্যা তিথিতে মহালয়া পার্বন শ্রাদ্ধ করে বিদেহী পিতৃপুরুষের আশীর্বাদ শিরে ধারণ করে দেবী মাতৃকা শক্তির আরাধনায় ব্রতী হতে হয়। তন্ত্রশাস্ত্রের বিধান অনুসারে পিতৃপুরুষের আশীর্বাদ ব্যাতিরেকে আত্মসাধন ব্যর্থতায় পর্যবসিত হয়।
স্বামী চন্দ্রনাথানন্দজী মহারাজ গতকাল ৬ অক্টোবর বুধবার নগরীর মীরাবাজারস্থ শ্রীশ্রী বলরাম জিউর আখড়ায় সকাল ৮টায় মহালয়া উদযাপন পরিষদ শ্রীহট্ট ১৪২৮ বাংলার দু’দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।
পরিষদের সভাপতি বাংলাদেশ ব্যাংকের অবসরপ্রাপ্ত ডিজিএম প্রণব কুমার দেবনাথের সভাপতিত্বে ও সহ সভাপতি বিনয় ভূষণ তালুকদারের সঞ্চালনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক এ্যাপেক্সিয়ান চন্দন দাশ। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মহালয়ার প্রধান সমন্বয়ক সমাজসেবী জ্যোতির্ময় সিংহ মজুমদার চন্দন, উপদেষ্টা উত্তরা ব্যাংকের প্রাক্তন জিএম নিরেশ চন্দ্র দাশ, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ড. হিমাদ্রী শেখর রায়।
শুরুতেই সকাল ৮টায় জাতীয়, মহালয়া ও সংস্কার সমিতির পতাকা উত্তোলন এবং বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে উৎসবের উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি সহ অতিথিবৃন্দ। অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে অংশগ্রহণকারী সকলের মধ্যে মাস্ক বিতরণ করা হয়।
এ সময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন পরিষদের যুগ্ম সমন্বয়ক প্রফেসর অরুণ চন্দ্র পাল, শ্রীমা সারদা সংঘের সভাপতি খুশী সেন, সাধারণ সম্পাদিকা কবি বিনতা দেবী, পরিষদের সহ-সভাপতি উপাধ্যক্ষ কৃষ্ণপদ সূত্রধর, ব্যাংকার কবি সুমন বনিক, শিক্ষয়িত্রী শিলা চৌধুরী, এডভোকেট বিজয় কুমার দেব বুলু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বাংলাদেশ ব্যাংকের যুগ্ম পরিচালক জ্যোতি মোহন বিশ্বাস, সহ সম্পাদক অসিত কুমার সূত্রধর, অর্জুন চক্রবর্তী, লেখক তারেশ কান্তি তালুকদার, ব্যাংকার জ্যোতির্ময় দাশ যীশু, ব্রতচারী বিমান তালুকদার, সাংগঠনিক সম্পাদক ফাস্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের সিনিয়র প্রিন্সিপাল অফিসার অরুণ কুমার বিশ্বাস, কোষাধ্যক্ষ শিক্ষক অনুকুল সূত্রধর, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক শিক্ষক ভানু চন্দ্র পাল, চন্দ্র শেখর দে চপল, মনোজ কান্তি ভট্টাচার্য্য মান্না, ইঞ্জিনিয়ার রতন দেবনাথ, মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা শিক্ষয়িত্রী শাশ্বতী ঘোষ সোমা, শিক্ষয়িত্রী জয়তী ঘোষ লোনা, সাংস্কৃতিক সম্পাদক নাট্যকর্মী অমিত ত্রিবেদী, হিল্লোল শর্মা, সহ সাংস্কৃতিক সম্পাদিকা সীমা রাণী সরকার, সহ প্রচার সম্পাদক সিদ্ধার্থ দে, রণি চন্দ্র শীল, কার্যকরী সদস্য ঋষিকেশ দাস প্রমুখ।
পরে শ্রীমা সারদা সংঘ সিলেটের সাধারণ সম্পাদিকা কবি বিনতা দেবীর পরিচালনায় সমবেত চন্ডীপাঠ ও পরিষদের সহ সাংগঠনিক সম্পাদক মনোজ কান্তি ভট্টাচার্য্য মান্নার পরিচালনায় সকাল ৯টায় বিশ্বশান্তি ও মঙ্গল কামনায় সমবেত প্রার্থনা অনুষ্ঠিত হয়। হাতে হাতে প্রসাদ বিতরণের মধ্য দিয়ে ১ম দিনের অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়।
উৎসবের ২য় দিন ৮ অক্টোবর শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯টায় রক্তদান কর্মসূচির উদ্বোধন করবেন সিলেটের সিভিল সার্জন ডাঃ প্রেমানন্দ মন্ডল। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন দৈনিক সিলেটের ডাকের বার্তা সম্পাদক সমরেন্দ্র বিশ্বাস সমর, শ্রীশ্রী বলরাম জিউর আখড়া পরিচালনা কমিটির সম্পাদক শ্যামল দে, রোটারিয়ান বিমলেন্দু পাল প্রমুখ।
সকাল সাড়ে ১০টায় আলোচনা সভা এবং বীরেন্দ্র কুমার চন্দ স্মৃতিবৃত্তি প্রদান ও সেবা কার্যক্রম অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। মুখ্য আলোচক ও সম্মানীত অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন সিলেট রামকৃষ্ণ মিশন ও আশ্রমের সম্পাদক শ্রীমৎ স্বামী চন্দ্রনাথানন্দজী মহারাজ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল, সিলেটের বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও সমাজসেবী অধ্যাপক বিজিত কুমার দে, হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ট্রাস্টি প্রসূন কান্তি চৌধুরী, মহালয়ার প্রধান সমন্বয়ক সমাজসেবী জ্যোতির্ময় সিংহ মজুমদার চন্দন, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের কেন্দ্রীয় যুগ্ম সম্পাদক এডভোকেট মৃত্যুঞ্জয় ধর ভোলা প্রমুখ। বেলা ১১টা ৪০ মিনিটে মাতৃ সংগীত ও দুপুর ১টা ৩০ মিনেটে প্রসাদ বিতরণ অনুষ্ঠিত হবে।
৯ অক্টোবর শনিবার বিকাল ৪টায় সেবা কার্যক্রম অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন সিলেট মহানগর আওয়ামলীগের সহ সভাপতি আসাদ উদ্দিন আহমদ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ সিলেট জেলা শাখার সভাপতি এডভোকেট প্রদীপ ভট্টাচার্য্য। বিজ্ঞপ্তি

 

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun
28      
       
       
       
1234567
2930     
       

আমাদের ফেইসবুক পেইজ