ফাতেমা খাতুন শিক্ষার্থীদের মনোজগতে অমরত্বের বীজ বপন করে গেছেন: বদরুল ইসলাম শোয়েব

প্রকাশিত: ৩:২৮ অপরাহ্ণ, মার্চ ২১, ২০২১

ফাতেমা খাতুন শিক্ষার্থীদের মনোজগতে অমরত্বের বীজ বপন করে গেছেন: বদরুল ইসলাম শোয়েব

অনলাইন ডেস্ক : সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার বদরুল ইসলাম শোয়েব বলেছেন, এক সময় ধর্মের দোহাই দিয়ে পুরুষশাসিত নারীরা ছিলেন ঘরবন্দী। সেই অন্ধকার যুগে এমন কঠিন পরিস্থিতিতে ধর্মীয় গোঁড়ামি ও সামাজিক কুসংস্কার ভেদ করে এলাকার শিক্ষাবিস্তারে আলোর মশাল নিয়ে এগিয়ে এসেছিলেন ফাতেমা খাতুন চৌধুরী। কোন প্রতিবন্ধকতা তাঁকে আটকাতে পারেনি, বিরল একজন মহীয়সী নারী হিসেবে শিক্ষার্থীদের শুধু স্বপ্ন দেখাতেন না, সঠিক পথেও এগিয়ে নিয়ে যেতেন।

তিনি শনিবার (২০ মার্চ) সকালে গোলাপগঞ্জ উপজেলার লক্ষীপাশা মুরাদিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক ফাতেমা খাতুন চৌধুরীর স্মরণসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে আরো বলেন, ফাতেমা খাতুন চৌধুরী ছিলেন দূরদৃষ্টিসম্পন্ন চিন্তা ভাবনার বিরল একজন নারী। একজন আদর্শ শিক্ষকের যে মৃত্যু হয় না তিনি তাঁর সততা, দেশপ্রেম, ত্যাগের মহিমা ও নৈতিকতার মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের মনোজগতে অমরত্বের বীজ বপন করে গেছেন।

লক্ষীপাশা মুরাদিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের আয়োজনে বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত স্মরণসভায় সভাপতিত্ব করেন এলাকার প্রবীণ ব্যক্তিত্ব মাওলানা আব্দুল হক।

সংগঠক আরিফ কাদিরের পরিচালনায় আব্দুর রহিম রিপনের কোরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে সূচিত অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন এলাকার বিশিষ্টজন ডা. মুহিত আহমদ চৌধুরী, বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষক সৈয়দ আব্দুল করিম, আব্দুল জলিল, খালেদা খানম, মরহুমার যোগ্যসন্তান আব্দুল ওয়াদুদ চৌধুরী, ব্রিটিশ বাংলাদেশ চেম্বার্সের এক্সিকিউটিভ ডাইরেক্টর গোলাম কিবরিয়া ওয়েছ, মুরাদিয়া ছবুরিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুর রহমান, সহকারী শিক্ষক মোহাম্মদ আলী, নজমুল ইসলাম চৌধুরী, শিক্ষক নেতা জামাল হোসেন, বশির উদ্দিন, শাহজাহান আহমদ টিপু, এনাম উদ্দিন খাঁন, সামাদ আহমদ, আজহার মোস্তফা চৌধুরী প্রমুখ।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun
     12
24252627282930
31      
       
       
1234567
2930     
       

আমাদের ফেইসবুক পেইজ