ফুটবল ম্যাচ নাকি যুদ্ধ!

প্রকাশিত: ১০:০৯ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২০

ফুটবল ম্যাচ নাকি যুদ্ধ!

স্পোর্টস ডেস্ক :
পিএসজি বনাম মার্শেই ম্যাচে যে উত্তাপ ছড়াল তা রীতিমতো নজিরবিহীন। আক্ষরিক অর্থেই রোববার রাতে ‘যুদ্ধ’ হয়েছে প্যারিসে। নেইমারসহ লাল কার্ড দেখেছেন দুই দলের পাঁচ খেলোয়াড়।

মার্শেইয়ের স্প্যানিশ ডিফেন্ডার আলভারো গনজালেজের বিরুদ্ধে বর্ণবাদী আচরণের অভিযোগ তুলে ম্যাচ শেষে আগুনে ঘি ঢেলেছেন পিএসজির ব্রাজিলীয় ফরোয়ার্ড নেইমার।

নেইমার বলেছেন, আমার একমাত্র আফসোস ওই বদমাইশটার মুখে ঘুষি মারতে পারিনি। আমি হিংস্র আচরণ করেছি কিনা ভিএআর দিয়ে সেটা বিচার করা সহজ। তাহলে যে বর্ণবাদী আমাকে মাঠে বাঁদর বলে গালি দিল তার ছবিটাও সামনে আসুক।

আলভারো অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছেন, ফুটবলে বর্ণবাদের কোনো স্থান নেই।

ঘরের মাঠে মার্শেইয়ের কাছে ১-০ গোলে হেরে যায় পিএসজি। ৩১ মিনিটে ফ্লোরিয়ান থাভিনের দেয়া একমাত্র গোলে ২০১১ সালের নভেম্বরের পর এই প্রথম ফরাসি ক্লাসিকো জিতল মার্শেই। বিপরীতে ৩৬ বছর পর ফরাসি লিগের প্রথম দুই ম্যাচেই হারল পিএসজি।

শুধু হারই নয়, দুই ম্যাচে গোলের খাতাই খুলতে পারেনি বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। আগের ম্যাচে লাঁসের বিপক্ষেও একই ব্যবধানে হেরেছিল পিএসজি।
সাত খেলোয়াড় কারোনায় আক্রান্ত হওয়ায় প্রথম ম্যাচে দ্বিতীয়সারির দল নামাতে হয়েছিল পিএসজিকে। কারোনামুক্ত হয়ে মার্শেইয়ের বিপক্ষে খেলেছেন নেইমার, ডি মারিয়ারা। তাতেও পিএসজির ভাগ্যবদল হয়নি। উল্টো মাঠে ফিরেই লাল কার্ড দেখেছেন নেইমার।

খেলার ১৩ মিনিটের মধ্যেই রেফারিকে হলুদ কার্ড বের করতে হয় চারবার। লাল কার্ডের বন্যা বয়ে যায় ম্যাচের শেষদিকে। ইনজুরি টাইমে লেয়ান্দ্রো দানিয়েল পারেদেসের একটি ফাউলকে কেন্দ্র করে তুলকালাম বেঁধে যায় দুই পক্ষের মধ্যে।

হাতাহাতি ও ধাক্কাধাক্কির একপর্যায়ে পেছন থেকে আলভারোর মাথায় চড় মেরে বসেন নেইমার। বাকিরা তখন একে অপরকে লাথি মারতে ব্যস্ত! এ ঘটনায় পিএসজির নেইমার, কুরজাওয়া ও পারেদেস এবং মার্শেইয়ের জর্ডান আমাভি ও বেনেদেত্তোকে লাল কার্ড দেখিয়ে মাঠ থেকে বের করে দেন রেফারি।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun

আমাদের ফেইসবুক পেইজ