ফেঞ্চুগঞ্জে জেলা যুবদলের পাপলু-মকসুদের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ!

প্রকাশিত: ৯:২৬ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২১

ফেঞ্চুগঞ্জে জেলা যুবদলের পাপলু-মকসুদের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ!

অনলাইন ডেস্ক :: সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা যুবদলের নবগঠিত আহবায়ক কমিটি বাতিলের দাবিতে জেলা যুবদলের আহ্বায়ক সিদ্দিকুর রহমান পাপলু ও সদস্য সচিব মো. মকসুদ আহমদের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করেছেন ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা যুবদলের একাংশের পদপ্রাপ্ত ও পদবঞ্চিত নেতাকর্মীরা।

শনিবার বিকেলে উপজেলার সদর বাজারের থানার রোড পয়েন্টেসহ বাজারের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে থানার পয়েন্টে এসে বিক্ষোভ সভা করেন নেতাকর্মীরা।

সভায় বক্তব্য রাখেন- উপজেলা যুবদলের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম ছুটন, উপজেলা যুবদলের সদস্য মতিউর রহমান মুকুল, উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক ও উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক আহ্বায়ক এম জে আহমেদ জাবেদ, যুবদল নেতা ফখরুল ইসলাম নিশাত, উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সদস্য সচিব মো. শাহিন আহমদ, উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক ও উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক সাইফুল ইসলাম খান, উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক বদরুল ইসলাম খান, উপজেলা যুবদলের সদস্য ও উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক দিনার আহমদ শাহ্, উপজেলা যুবদলের সদস্য সামাদ হোসেন রুমেল, উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক শেখ ওয়েছ আহমদ মিটু, নুরুল ইসলাম নাহিদ, যুবদল নেতা রেকিন আহমদ চৌধুরী তুহিন, ইসলাম উদ্দিন, সুরমান আলী, মো. আলী রাসেল, শাওন আহমদ, আখকুর করিম রিমন, দাহিরুল করিম রানা, কমর হাসান বাবর, সেজু মিয়া।

বক্তারা বলেন, অবিলম্বে এই অযোগ্য কমিটি বিলুপ্ত করা হোক। এই কমিটিতে জামায়াত-জাতীয়পার্টি-আওয়ামীলীগের এজেন্ডা বাস্তবায়নকারীদের পদবী দেওয়া হয়েছে। অথচ রাজপথের পরীক্ষিত নেতাকর্মী, হামলা-মামলায় নির্যাতিত নেতাকর্মীদের পদবঞ্চিত করা হয়েছে।

২০০৩ সালে ১৮ দলীয় জোট বিএনপি দল ক্ষমতায় থাকাকালীন ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা যুবদলের কমিটি গঠন করা হয়। ওই কমিটি কার্যক্রম চালানো হয় প্রায় ১৭ বছর। গেলো বছরের ফেব্রুয়ারিতে এই কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে জেলা যুবদল। দীর্ঘ ১৮ বছর পর গত সোমবার জেলা যুবদল স্বাক্ষরিত উপজেলা যুবদলের ৪১ সদস্য বিশিষ্ট নতুন ঘোষণা করা হয়। কিন্তু কমিটি ঘোষণার পর থেকে যুবদলের একটি অংশের নেতাকর্মীদের ক্ষোভ ও অসন্তোষ বিরাজ করে।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

আমাদের ফেইসবুক পেইজ