বসন্ত ও ভ্যালেন্টাইন’স ডে দিবস একইদিনে

প্রকাশিত: ১:২৫ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২১

বসন্ত ও ভ্যালেন্টাইন’স ডে দিবস একইদিনে

অনলাইন ডেস্ক

বসন্ত আর ভালোবাসা দিবস- এবার দুই-ই মিলেমিশে একাকার। দুই উৎসবের উদযাপন একদিনে, তাই আনন্দ যেন একটু বেশি-ই! ইটপাথরের নগরে বসন্তের রূপ-রস মনের মতো ধরা না দিলেও নগরের মানুষ ঠিকই উদযাপন করবে দিনটি। বসন্ত আর ভালোবাসাকে একইসঙ্গে বরণ করার আনন্দে নগরের অলি-গলিতে বেজে উঠবে সুর, ‘আহা আজি এ বসন্তে’/‘বসন্ত এসে গেছে’/‘মনের রঙ লেগেছে বনের পলাশ জবা অশোকে’।

এতো আনন্দের বহিঃপ্রকাশ সাজ-পোশাকে না থেকে পারে! বসন্ত আর ভালোবাসার রঙে নিজেকে রাঙানোর কৌশলও তো জানা চাই।
সময়ের সঙ্গে সাজ পোশাকেও আসে পরিবর্তন। একসময় হলুদ রঙের শাড়ি আর মাথায় হলুদ ফুল- এটাই ছিল পহেলা ফাল্গুনের সাজ। কিন্তু ফ্যাশনে পরিবর্তন এসেছে। এখন সবুজ, বাসন্তী, লাল এই রঙগুলোও পহেলা ফাল্গুনে বেশ চলছে। অন্যদিকে, ভালোবাসার রং নাকি লাল। লাল, নীল পোশাক পরে ভালোবাসা দিবস উদযাপন নগরের চিরচেনা রূপ। এবার যেহেতু ভালোবাসা দিবস ও পহেলা ফাল্গুন ১৪ ফেব্রুয়ারিতে, ফলে সাজ-পোশাকে একই সঙ্গে ফাগুন ও ভালোবাসার রঙের ছোঁয়া থাকছে। শুধু হলুদ, লাল, সবুজ বা মেরুনই নয়, অনেকেই এই দিনে বেছে নেবে সাদা, নীল, কালো, নেভি ব্লু, ঘিয়ে রঙের পোশাক।

ফ্যাশন হাউজগুলো দিনটি উপলক্ষে তরুণ-তরুণীদের জন্য নানা ডিজাইনের পোশাক এনেছে। হলুদ পোশাকে প্রাধান্য থাকলেও অন্যান্য রঙের পোশাকও এসেছে বাজারে। তবে একটা কথা না বললেই নয়, শীতের বৈরি ভাব কাটিয়ে প্রকৃতি এখন নতুনভাবে সেজে ওঠেছে। প্রকৃতিতে আছে হলুদ আর বাসন্তী রঙের ছোঁয়া। তাই প্রকৃতির রঙে পোশাক পরতে আগ্রহী হন অনেকেই। গাঁদা, রঙিন ফুল ও পাতার ব্যবহার এই দিনের সাজে বেশ মানিয়ে যায়। অর্থাৎ প্রকৃতির উপাদানগুলোই হতে পারে ভালোবাসা দিবস ও পহেলা ফাল্গুনের সাজের প্রধান অনুষঙ্গ।

পহেলা ফাল্গুন ও ভালোবাসা দিবস- দুটোর মেলবন্ধন করা যায় সাধারণত লাল রঙে। তাছাড়া ফাল্গুনের সকালে হলুদ পরা যেতেই পারে। হলুদ শাড়ি ও গাঁদা ফুল বেশ মানিয়ে যাবে। এই সাজের সঙ্গে মেকআপ অবশ্যই স্নিগ্ধ হতে হবে। বেশি মেকআপ একেবারেই ভালো লাগবে না। চুল খোলা কিংবা বাঁধা- দুটোই রাখা যায়। এটা একেকজনের স্বাচ্ছন্দ্য ও পছন্দের ওপর নির্ভর করে।
‘পাশ্চাত্যে ভালোবাসা দিবসে সাদা, গোলাপি ও লাল রঙের পোশাক পরতে দেখা যায়। যাদের প্রেমিক বা প্রেমিকা নেই তারা পরেন সাদা। গোলাপি পোশাক তারাই পরেন, যারা কাউকে পছন্দ করেন। আর লাল রঙের পোশাক পরা মানে সঙ্গী থাকা এবং কারো সঙ্গে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ থাকা।’ এভাবেও ভালোবাসা দিবসে পোশাকের রঙ নির্বাচন করা যায় বলে তিনি মনে করেন।
বসন্তের সাজে থাকে বাঙালিয়ানা।
ছেলেদের জন্য এদিন পাঞ্জাবিই সেরা। সকালে পাঞ্জাবি পরলে বেশ ভালো মানাবে। চাইলে ছেলেরা চুলে জেল লাগাতে পারেন।

ভালোবাসা দিবস ও পহেলা ফাল্গুন- দুই উৎসবই বাঙালি সংস্কৃতির সঙ্গে মিশে গেছে। উৎসব উদযাপনের ঢঙে পরিবর্তন এলেও উৎসবের মাহাত্ম একই রয়ে গেছে। বসন্তের রঙে সকলের ভালোবাসা থাকুক অমলিন।

আয়োজনে: রানওয়ে ম্যানিয়াক মডেল এজেন্সি।
মডেল- প্রতীমা,তারেক।
ষ্টাইলিং ও ডিরেকশন: মোঃ: সুফিয়ান আলী।
ফটোগ্রাফার: জুবেল চৌধুরী।
ভিডিওগ্রাফার: আলহাক চৌধুরী।
পোশাক: তন্ময় ড্রেসেস, শাহনাজ ফ্যাশন।
লোকেশন: হোটেল নির্ভানা ইন,সালমান শাহ নিবাস।
সার্বিক সহযোগিতা: এন আইডল ম্যাগাজিন।

No description available.

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

আমাদের ফেইসবুক পেইজ