বাগেরহাটে গিয়ে মেয়েটি শুধু বলছে, ‘বাড়ি সিলেটে’

প্রকাশিত: ২:০১ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৬, ২০২১

বাগেরহাটে গিয়ে মেয়েটি শুধু বলছে, ‘বাড়ি সিলেটে’

অনলাইন ডেস্ক :: বাগেরহাট শহরের দাশপাড়া মোড় এলাকার একটি বেসরকারি ক্লিনিকের সামনে ঘুরছিল শিশুটি। কাঁধে ব্যাগ নিয়ে শিশুটির উদ্দেশ্যহীন হাঁটাহাঁটি দেখে প্রশ্ন জাগে স্থানীয় এক ব্যক্তির। এগিয়ে গিয়ে জানতে চাইলে শিশুটি বলে, ‘আমি মা–বাবার কাছে যাব।’ তবে নাম ছাড়া বিস্তারিত কোনো পরিচয়ই বলতে পারছে না শিশুটি।

গত বুধবার রাতে ৯৯৯ নম্বরে ফোন পেয়ে বাগেরহাট সদর মডেল থানার পুলিশ গিয়ে শিশুটিকে উদ্ধার করে। শিশুটির অভিভাবকদের কোনো খোঁজ না মেলায় শিশুটিকে সমাজ সেবা অধিদপ্তরের মাধ্যমে বাগেরহাট সরকারি শিশু পরিবারে পাঠানো হয়েছে। তার অভিভাবকদের খুঁজে পেতে সবার সহযোগিতা চেয়েছে পুলিশ ও সমাজসেবা বিভাগ।

পুলিশ জানায়, শিশুটির বয়স আনুমানিক সাত বছর হবে। কথা বলায় কিছুটা জড়তা আছে। শিশুটি বলছে, তার নাম মীম। বাড়ি সিলেট। এর বাইরে আর কিছুই স্পষ্ট করে বলতে পারছে না।

বাগেরহাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কে এম আজিজুল ইসলাম বলেন, শিশুটির কথা বলতে কিছুটা জড়তা আছে। তার পরনে কালো-হলুদ ও সাদা রঙের মিশেলে একটি জামা এবং কাঁধে একটি ব্যাগও ছিল। মা–বাবা বা অন্য অভিভাবকদের নাম জানতে চাইলে বলে শারমিন। কেউ কোনো কথা বললে তাকে বলে, ‘আমি বাড়ি যামু।’

সমাজসেবা অধিদপ্তরের বাগেরহাট কার্যালয়ের প্রবেশন কর্মকর্তা সোহেল পারভেজ বলেন, পুলিশের মাধ্যমে খবর পেয়ে আমরা শিশুটিকে হেফাজতে নিয়েছি। তার অভিভাবকদের খোঁজা হচ্ছে। আপাতত তাকে শহরতলির দশানী এলাকার সরকারি শিশু পরিবারে রাখা হয়েছে। সেখানেই তার খাবার-কাপড়সহ সব ধরনের ব্যবস্থা করা হবে। অভিভাবকদের না পাওয়া পর্যন্ত মীম সরকারি শিশু পরিবারেই থাকবে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun

আমাদের ফেইসবুক পেইজ