বালাগঞ্জে আত্মীয়ের বাড়িতে যাওয়ার পথে কিশোরীকে তুলে নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ

প্রকাশিত: ৬:৩৮ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৯, ২০২০

বালাগঞ্জে আত্মীয়ের বাড়িতে যাওয়ার পথে কিশোরীকে তুলে নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ

মো. কাজল মিয়া :
বালাগঞ্জে এক কিশোরী (১৫) তুলে নিয়ে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই ঘটনায় কিশোরীর মামা বাদি হয়ে ৫অক্টোবর বালাগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-২। মামলায় উপজেলার দেওয়ান বাজার ইউনিয়নের নশিওরপুর গ্রামের লকুছ মিয়ার ছেলে হাসান মিয়া (২৫) ও একই গ্রামের ফজর আলীর ছেলে রাজন মিয়াকে (১৯) অভিযুক্ত করা হয়ছে। মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ওই কিশোরীর পিতার মৃত্যুর পর তার মায়ের ২য় বিয়ে হয় উপজেলার নশিওরপুর গ্রামে। কিশোরী তার মামার তত্তাবধানেই লালিত-পালিত হচ্ছে।
এদিকে ওইদিন কিশোরী তার আত্মীয়ের বাড়িতে না পৌঁছায় স্বজনরা বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করেন। তার সন্ধান না পেয়ে এবিষয়ে ৪অক্টোবর পরিবারের পক্ষ থেকে বালাগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়। ৫অক্টোবর কিশারীর মামার বাড়ির এলাকার একজন সিএনজি চালক ওই কিশোরীকে দক্ষিণ সুরমার জালালপুর বাজার এলাকায় রাস্তায় একা বসে থাকতে দেখেন। ফোনে কিশোরীর মামাকে বিষয়টি অবহিত করে সেখান থেকে তাকে বাড়িতে নিয়ে আসেন।
বালাগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) গাজী আতাউর রহমান বলেন, বৃহস্পতিবার দিনগত রাত ৩টার দিকে বিশ্বনাথ উপজেলার রামপাশা ইউনিয়নের শ্রীপুর গ্রামে অভিযান চালিয়ে মামলায় প্রধান অভিযুক্ত হাসানকে গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। মেয়েটির মানসিক কোনো সমস্যা আছে কি না সেটা মেডিকেল টেস্টের রিপোর্ট আসার পর জানা যাবে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

আমাদের ফেইসবুক পেইজ