বিএনপির অবস্থা দিন দিন মুসলিম লীগের মতো হয়ে যাচ্ছে : শফি চৌধুরী

প্রকাশিত: ১১:২৮ অপরাহ্ণ, জুন ২০, ২০২১

বিএনপির অবস্থা দিন দিন মুসলিম লীগের মতো হয়ে যাচ্ছে : শফি চৌধুরী

অনলাইন ডেস্ক

দল থেকে বহিস্কারের পর ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন সিলেট-৩ আসনে উপনির্বাচনের স্বতন্ত্র প্রার্থী সদ্য সাবেক বিএনপি শফি আহমদ চৌধুরী। প্রতিক্রিয়ায় তিনি বিএনপির বিভিন্ন দুর্বলতা তুলে ধরেছেন।

সিলেট-৩ আসনের দুইবারের সাবেক এই সাংসদ রোববার এক প্রতি‌ক্রিয়ায় গণমাধ্যমকে বলেন, নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়ে বিএনপির অবস্থা দিন দিন মুসলিম লীগের মতো হয়ে যাচ্ছে।

শফি চৌধুরী জানান, কেন্দ্র থেকে এমন সিদ্ধান্ত আসতে পারে বিষয়টি তিনি আঁচ করতে পেরেছিলেন। তাই মানসিক প্রস্তুতি তাঁর ছিলো।

তিনি বলেন, ‘আমি বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের সঙ্গে রাজনীতি করেছি। তাঁর হাত ধরে বিএনপিতে যোগ দিয়েছি। এখন যাঁরা নেতৃত্বে আছেন, তাঁরা হয়তো তখন রাজনীতি কী জিনিস সেটাই বুঝতেন না।

শফি চৌধুরীর কথা না শুনে তাকে বহিষ্কার করায় তিনি বিএনপির উপর ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

দল থেকে বহিষ্কারের কোনো চিঠি এখনও তার কাছে আসেনি উল্লেখ করে শফি চৌধুরী বলেন, বিষয়টি আমি গণমাধ্যম সূত্রে জানতে পেরেছি।

তিনি বলেন, ‘আমাকে শোকজ করা হয়েছিলো। আমি তিন পাতার একটি চিঠিতে জবাব দিয়েছিলাম। সেখানে আমি নির্বাচন করার কারণ সম্পর্কে বিস্তারিত বলেছি। বলেছিলাম- এলাকার মানুষের চাওয়া, জনতার চাপে পড়ে আমি ভোটে দাঁড়িয়েছি। বিএনপি ভোটের দল। ভোটে না যেতে যেতে মাঠপর্যায়ে খুবই করুণ অবস্থায় আছে দলটি। ইলেকশনে না গিয়ে বিএনপির অবস্থা দিন দিন মুসলিম লীগের মতো হয়ে যাচ্ছে।’

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমি মাটি ও মানুষের রাজনীতি করি। এই রাজনীতি থেকে কেউ বিচ্ছিন্ন করতে পারবে না। বিএনপির স্থানীয় কিছু নেতা বিভিন্ন সময় আর্থিকভাবে ফায়দা নেন, তাঁরাই কেবল সক্রিয়। তবে আমার পক্ষে জনসাধারণ সক্রিয়। জীবনের শেষ এই নির্বাচনে নিশ্চিত বিজয়ী হব।’

উল্লেখ্য, চলতি বছরের ১১ মার্চ করোনায় সংক্রমিত অবস্থায় সিলেট-৩ আসনের সাংসদ আওয়ামী লীগ নেতা মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী মারা যান। এরপর ১৫ মার্চ আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী উপনির্বাচনের জন্য ছয়জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন। এর মধ্যে চারজনের মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করা হয়। তাঁরা হচ্ছেন- আওয়ামী লীগের হাবিবুর রহমান, জাতীয় পার্টির আতিকুর রহমান, বাংলাদেশ কংগ্রেসের মনোনীত জুনায়েদ মুহাম্মদ মিয়া এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী ও কেন্দ্রীয় বিএনপির সদস্য শফি আহমদ চৌধুরী।

দাখিলকৃত মনোনয়নে ভোটারদের তথ্য যথাযথ না পাওয়ায় ফাহমিদা ও মাসুমের মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করা হয়েছে।

আগামী ২৮ জুলাই সিলেট-৩ আসনের উপনির্বাচনে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট গ্রহণ হবে। মোট ভোটার ৩ লাখ ৫২ হাজার। ভোটকেন্দ্র ১৪৯টি। ২৪ জুন মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন এবং প্রতীক বরাদ্দ হবে ২৫ জুন।

আমাদের ফেইসবুক পেইজ