বিএনপি আবরার হত্যার ঘটনার উপর ভর করেছে : সিলেটে মেনন

প্রকাশিত: ৮:৪৫ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৩, ২০১৯

বিএনপি আবরার হত্যার ঘটনার উপর ভর করেছে : সিলেটে মেনন

সিলনিউজ বিডি :: বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি কমরেড রাশেদ খান মেনন এমপি বলেছেন, ‘বিএনপি এবার নিয়ে কয়বার সরকার পতনের ঘোষণা দিল তার একট হিসাব করা দরকার। এবার তারা আবরার হত্যার ঘটনার উপর ভর করেছে। কিন্তু আবরারের সহপাঠিরা হুঁশিয়ারি করে বলেছে, কেউ যেন এই হত্যাকে ইস্যু করে তাদের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করার চেষ্টা না করেন। আসলে বিএনপি জনগণের সমস্যা বা জাতীয় সমস্যা নিয়ে বিচলিত নয়, তাদের লক্ষ্য কিভাবে হারানো ক্ষমতা ফিরে পেতে পারে সেদিকেই।’

তিনি বলেন, ‘জনগণ দুর্নীতি, দুর্বৃত্তায়ন, বৈষম্য ও সাম্প্রদায়িককতায় আস্ফালন নিয়ে বিভ্রান্ত, কিন্তু এসব বিষয়ে বিএনপি নীরব। দুর্নীতি, দুর্বৃত্তায়ন ও সাম্প্রদায়িকতা ব্যাপারে তাদের ইতিহাস আরো খারাপ। তারা পেট্রল দিয়ে জীবন্ত মানুষ পুড়িয়ে মেরেছে। সাধারণ জনগণ এ দুর্বিষহ পরিস্থিতি চায় না। পাশাপাশি আজকে আমরা দেখছি বেকারত্ব, দুর্নীতি, মাদক, শিক্ষাঙ্গনে সন্ত্রাস, নৈরাজ্য এখনও চলমান। আজ এসব বৈষম্যের বিরুদ্ধে আমাদের রুখে দাঁড়াতে হবে। সাম্প্রদায়িক, সাম্রাজবাদের বিরুদ্ধে আরো সোচ্চার হতে হবে।’

তিনি রবিবার সিলেট জেলা পরিষদ মিলনায়তনে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি সিলেট জেলা সম্মেলনে উদ্বোধনী আলোচনা পর্বে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কমরেড রাশেদ খান মেনন এমপি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি সিলেট জেলার সাধারণ সম্পাদক কমরেড সিকান্দর আলীর সভাপতিত্বে ও সম্পাদকমন্ডলীর অন্যতম সদস্য ইন্দ্রানী সেন শম্পার পরিচালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় রাশেদ খান মেনন আরো বলেন, ‘নারীর প্রতি সহিংসতা, ধর্ষণ, হত্যা সীমা ছাড়াচ্ছে। সমাজের সকল নারীকে সংগঠিত করে নারী পুরুষ নির্বিশেষে ঐক্যবদ্ধ প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। চা শ্রমিক ও আদিবাসীদের অধিকার আন্দোলন সক্রিয় থাকতে হবে। এই অসম ব্যবস্থা ভাঙ্গতে হবে। তাই পার্টির মূল স্লোগান সামাজিক ন্যয্যতা সমতা প্রতিষ্ঠার লড়াই এ আমাদের আরো সক্রিয় থাকতে হবে।’

সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন পার্টির পলিট ব্যুরোর অন্যতম সদস্য কমরেড ড. সুশান্ত দাস, সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য কমরেড দীন বন্ধু পাল, ইব্রাহিম মিয়া, গণতন্ত্রী পার্টি সিলেট জেলা সভাপতি আরিফ মিয়া, সিপিবি সিলেট জেলার সাধারণ সম্পাদক কমরেড আনোয়ার হোসেন সুমন, আদিবাসী নেতা দানেশ সাংমা, যুবনেতা আব্দুল্লাহ খোকন, আলমগীর হোসেন রুমেল, শ্রমিক নেতা কাজী আলফাজ হোসেন, নারী মুক্তি সংসদের সদস্য আকলিমা আক্তার, ছাত্রমৈত্রী সিলেট জেলা সাধারণ সম্পাদক মাসুদ রানা চৌধুরী।

অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- পার্টির মৌলভীবাজার জেলা নেতা সৈয়দ আমিরুজ্জামান, নারী শ্রমিক ইউনিয়ন সিলেট জেলা সভাপতি হিনু বর্মন, নারী ঐক্য পরিষদের সিলেট জেলা নেত্রী মোবাশ্বেরা বেগম পারু, তৃণমূল নারী উদ্যোক্তা সোসাইটি গ্রাসরুট এর সিলেট জেলা সভাপতি শাকেরা আক্তার, যুবনেতা আলমগীর হোসেন, মিলন ওরাও, সারতি ওরাও, অনিতা দাস গুপ্ত প্রমুখ। সভায় শোক প্রস্তাব পাঠ করেন জেলা নেতা হিমাংশু মিত্র।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সর্বশেষ খবর

আমাদের ফেইসবুক পেইজ