বিজেপির চাপে কৃষক আন্দোলনের বিরুদ্ধে শচীন-লতা মঙ্গেশকরদের টুইট!

প্রকাশিত: ৬:১১ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৮, ২০২১

বিজেপির চাপে কৃষক আন্দোলনের বিরুদ্ধে শচীন-লতা মঙ্গেশকরদের টুইট!

অনলাইন ডেস্ক

প্রায় একই সময়ে একই রকম টুইট। টুইটের ভাষাও আবার হুবহু। বিশ্ব ক্রিকেটের নন্দিত ভারতীয় ক্রিকেটার শচীন টেন্ডুলকার, লতা মঙ্গেশকরদের এসব টুইট জনমনে ব্যাপক প্রশ্ন উঠেছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখতে এবার তদন্ত করবে মহারাষ্ট্র সরকার। কৃষি আইনের সমর্থনে এবং কৃষক আন্দোলনের বিপক্ষে তারকাদের এই সব টুইটের পিছনে কোনও চাপ ছিল কি না, সেই সব বিষয় খতিয়ে দেখবে মুম্বাই পুলিশ। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

মহারাষ্ট্র স্বরাষ্ট্র দফতর সূত্রের বরাত দিয়ে খবরে বলা হয়, তদন্তের দায়িত্বভার দেওয়া হয়েছে রাজ্যের গোয়েন্দা বিভাগকে।

মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখ বলেন, এই টুইটগুলি সংঘবদ্ধভাবে করা হয়েছিল কি না, তা খতিয়ে দেখবে রাজ্য গোয়েন্দা বিভাগ। সব টুইট প্রকাশিত হওয়ার সময় প্রায় এক। পাশাপাশি যে ভাবে ঐক্যবদ্ধ আকারে টুইট করা হয়েছে, তার পিছনে কোনও পরিকল্পনা রয়েছে।’’ সুনীল শেট্টির টুইটে বিজেপি নেতাকে ট্যাগ করার বিষয়টিও উল্লেখ করেছেন অনিল।

রোববার এ নিয়ে তদন্তের দাবি তুলেছিল কংগ্রেস। মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখের সঙ্গে দেখা করে দাবি জানিয়ে এসেছিলেন কংগ্রেস মুখপাত্র শচীন সবন্ত।

তিনি বলেন, ‘বলিউড তারকা অক্ষয় কুমার, সুনীল শেট্টি, ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব শচীন টেন্ডুলোর, সাইনা নেহওয়ালের মতো অনেকেই হুবহু একই টুইট করেছেন। এমনকি, অক্ষয়, সাইনার টুইটের ভাষাও পুরোপুরি এক। সুনীলের টুইটে আবার এক বিজেপি নেতাকে ট্যাগ করা। এই ধরনের টুইট করার জন্য বিজেপির পক্ষ থেকে চাপ দেওয়া হয়েছিল কি না, তা অবশ্যই তদন্ত করে দেখা উচিত। যদি সেটাই হয়, তা হলে এই সব জাতীয় হিরোদের নিরাপত্তা আরও বাড়ানো দরকার।’

প্রসঙ্গত, ভারতের কৃষক আন্দোলনকে সংহতি জানিয়েছে সুইডেনের পরিবেশকর্মী গ্রেটা থুনবার্গ, আমেরিকার পপ গায়িকা রিহানা-সহ কয়েক জন আন্তর্জাতিক স্তরের বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব টুইট করেন। এর পরেই শচীন টেন্ডুলোর, লতা মঙ্গেশকরসহ বলিউড ও ক্রীড়া-তারকারা টুইট করেন বিজেপি সরকারের পক্ষ নিয়ে কৃষক আন্দোলনের বিরুদ্ধে টুইট করেন। এ নিয়ে জনমনে নানা প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

আমাদের ফেইসবুক পেইজ