বড়লেখা উপজেলায় করোনায় প্রথম মৃত্যু হলো এক শিক্ষকের

প্রকাশিত: ৪:১০ অপরাহ্ণ, জুলাই ১১, ২০২০

বড়লেখা উপজেলায় করোনায় প্রথম মৃত্যু হলো এক শিক্ষকের

স্বপন দেব, মৌলভীবাজার প্রতিনিধি :: মৌলভীবাজারের বড়লেখা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক তবারক আলী (৭৮) মারা গেছেন। শুক্রবার (১০ জুলাই) রাত সাড়ে ১২টার দিকে তিনি সিলেট মাউন্ট এডোরা হাসপাতালে চিকিৎসাধানী অবস্থায় মারা যান। উপজেলায় এই প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে একজনের মৃত্যু হলো।

মৃত শিক্ষকের বাড়ি পৌরসভার বারইগ্রাম (মহুবন্দ) এলাকায়। তিনি ষাটমা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক। এদিকে শনিবার (১১ জুলাই) সকালে স্বাস্থ্যবিধি মেনে মৃত শিক্ষকের লাশ দাফন করেছে মৌলভীবাজার ইকরামুল মুসলিম ফাউন্ডেশন।

বড়লেখা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রত্নদ্বীপ বিশ্বাস এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, মারা যাওয়া শিক্ষক করোনার উপসর্গ জ্বর ও কাশিতে ভুগছিলেন। গত ৬ জুলাই তিনি নমুনা পরীক্ষার জন্য দেন। গত বুধবার (০৮ জুলাই) রাতে তাঁর নুমনা পরীক্ষার প্রতিবেদন পজিটিভ আসে। পরদিন সকালে তার বাড়ি লকডাউন করা হয়েছিল।

তিনি বলেন, তাঁর শারীরিক অবস্থা খারাপ হওয়ায় গতকাল শুক্রবার তাকে সিলেটের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। রাতেই তিনি সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। শনিবার স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাঁর লাশ দাফন করা হয়েছে।বড়লেখা উপজেলায় করোনায় প্রথম মৃত্যু হলো এক শিক্ষকেরঅ

স্বপন দেব, মৌলভীবাজার প্রতিনিধি :: মৌলভীবাজারের বড়লেখা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক তবারক আলী (৭৮) মারা গেছেন। শুক্রবার (১০ জুলাই) রাত সাড়ে ১২টার দিকে তিনি সিলেট মাউন্ট এডোরা হাসপাতালে চিকিৎসাধানী অবস্থায় মারা যান। উপজেলায় এই প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে একজনের মৃত্যু হলো।

মৃত শিক্ষকের বাড়ি পৌরসভার বারইগ্রাম (মহুবন্দ) এলাকায়। তিনি ষাটমা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক। এদিকে শনিবার (১১ জুলাই) সকালে স্বাস্থ্যবিধি মেনে মৃত শিক্ষকের লাশ দাফন করেছে মৌলভীবাজার ইকরামুল মুসলিম ফাউন্ডেশন।

বড়লেখা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রত্নদ্বীপ বিশ্বাস এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, মারা যাওয়া শিক্ষক করোনার উপসর্গ জ্বর ও কাশিতে ভুগছিলেন। গত ৬ জুলাই তিনি নমুনা পরীক্ষার জন্য দেন। গত বুধবার (০৮ জুলাই) রাতে তাঁর নুমনা পরীক্ষার প্রতিবেদন পজিটিভ আসে। পরদিন সকালে তার বাড়ি লকডাউন করা হয়েছিল।

তিনি বলেন, তাঁর শারীরিক অবস্থা খারাপ হওয়ায় গতকাল শুক্রবার তাকে সিলেটের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। রাতেই তিনি সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। শনিবার স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাঁর লাশ দাফন করা হয়েছে।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun

আমাদের ফেইসবুক পেইজ