মানবতার ফেরীওয়ালা, মিডিয়া ব্যাক্তিত্ব পলাশকে নিয়ে বিভ্রান্ত ছড়ানো হচ্ছে কেন ?

প্রকাশিত: ৮:০৭ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২০

মানবতার ফেরীওয়ালা, মিডিয়া ব্যাক্তিত্ব পলাশকে নিয়ে বিভ্রান্ত ছড়ানো হচ্ছে কেন ?

অজানা পথে ৪৩
লতিফ নুতন : মানবতার ফেরীওয়ালা,মিডিয়া ব্যাক্তিত্ব, দৈনিক সিলেটের দিনকালের সম্পাদক ও প্রকাশক,শ্রীহট্র মিডিয়া লিঃ এর চেয়ারম্যান, সিল নিউজ বিডি ডটকমের উপদেষ্টা সম্পাদক সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মস্তাক আহমদ আহমদ পলাশকে নিয়ে বিভ্রান্ত কেন, রহস্য কি ? মস্তাক আহমদ পলাশ একটি নাম নয়। একটি প্রতিষ্টান। তাকে নিয়ে বিভ্রান্ত ছড়ানো থেকে বিরত থাকা ভাল। ফেইসবুকে অপ্রপচারের জন্য শ্রীহট্র মিডিয়া লিঃ এর পক্ষ থেকে নিন্দ্রা জানাই। একজন জনপ্রতিনিধি ছাড়াও একজন রাজনৈতিক নেতা, সফল ব্যবসায়ী শুধু পরিচয় নয়। মস্তাক আহমদ পলাশ সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের সর্বশেষ কমিটি’র উপ প্রচার সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছেন বিনয়ের সাথে। পলাশের বিরোধীকারী কুচক্রমহলের বিরুদ্ধে অবস্থান নিতে চাই না। আমরা ক্ষমতার অপ্রব্যাবহার দেখাতে চাই না। ৯০ দশকের ছাত্রনেতা,সিলেট আইন মহাবিদ্যালয়ের সাবেক নির্বাচিত এজিএস মস্তাক আহমদ পলাশ এক নামে পলাশ চেয়ারম্যান নামে পরিচিত। সাংবাদিকদের বন্ধু মস্তাক আহমদ পলাশ । তিনি শুধু পলাশ চেয়ারম্যান শুধু পরিচিত নন তিনি একজন দানবীর। তার কাছে সাহয্যের জন্য গেলে কেউ খালি হাতে ফিরে না। গত মার্চ থেকে এখ পর্যন্ত করোনা মহাহারীতে মানবতার সেবায় নিজেকে বিলিয়ে দিচ্ছেন। যার জন্য তাকে ধন্যবাদ। কানাইঘাটের সাঁতবাক ইউনিয়নের বার বার নির্বাচিত চেয়ারম্যান পলাশ চেয়ারম্যানের জনপ্রিয়তাকে দেখে কেউ হিংস্রা বা বিদ্ধেষ করা ঠিক নয়। বাস্তবতা হল কেহর সামাজিক কার্যক্রমে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি ঠিক নয়। সাবেক ছাত্রনেতা থেকে জননেতা,জনপ্রতিনিধি হয়েছেন। বর্তমান করোনা মহামারীতে মস্তাক আহমদ পলাশের ত্রাণ বিতরন দুঃখী মানুষের পাশে দাঁড়ানো যা ইতিহাসের পাতায় স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে। ঘুম থেকে উঠে প্রতিদিন কানাইঘাটের জনগনের কাছে না গেলে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন পলাশ চেয়ারম্যান। শ্রীহট্র মিডিয়া লিমিটেড থেকে ফোন দিলে অপর প্রান্ত থেকে বলেন লতিফ ভাই আমি কানাইঘাট। বর্তমান করোনা মহামারীতে দুঃখী মানুষের পাশে দাঁড়ানো তিনি’র কোন অপরাধ নয়। আপনি লিখা জানেন আর পলাশ চেয়ারম্যানের স্বজন কলম বন্ধুরা নিরব থাকবে তা ভাবা ঠিক নয়। মানবতার ফেরীওয়ালা সহকর্মী মস্তাক আহমদ পলাশ আপনি এগিয়ে যান। জাতির জনকের কন্যা,মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে আপনি দুঃখী মানুষের পাশে যে ভাবে দাঁড়িয়েছেন সে ভাবে আপনার কার্যক্রম চালিয়ে যান। কেহর চুখ রাঙ্গানীতে পিছপা হবেন না। শ্রীহট্র মিডিয়া লিমিটেডকে আপনি হাতিহার হিসাবে ব্যবহার করছেন না। আপনিও একজন কলম সৈনিক। আপনি সিলেট আইন কলেজের এজিএস ছিলেন। মানবতার ফেরিওয়ালা মস্তাক আহমদ পলাশকে নিয়ে প্লিজ বিভ্রান্ত না ছড়ানো জন্য আবেদন করছি।

 

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun

আমাদের ফেইসবুক পেইজ