মানুষের জীবন ও মৃত্যু একমাত্র আল্লাহর হাতে

প্রকাশিত: ১২:৫৮ পূর্বাহ্ণ, জুন ২৬, ২০২০

মানুষের জীবন ও মৃত্যু একমাত্র আল্লাহর হাতে

মাহমুদুল হক জালীস :;

পৃথিবীতে মৃত্যুর মতো সত্য আর কিছু নেই। সব প্রাণীকে একদিন মৃত্যুবরণ করতেই হবে। দুনিয়ার জীবন ছেড়ে চলে যেতে হবে। পরিভাষায় মৃত্যু হচ্ছে জাগতিক জীবনের সমাপ্তি এবং মৃত্যু-পরবর্তী জীবন তথা আখিরাতের প্রবেশদ্বার অথবা মৃত্যু হচ্ছে জাগতিক দেহ থেকে আত্মার পৃথক্করণ এবং একই সঙ্গে এ আত্মার জাগতিক দুনিয়া থেকে আখিরাতের উদ্দেশে যাত্রা। সব আত্মাকে একদিন মৃত্যুর স্বাদ আস্বাদন করতে হবে। ইরশাদ হয়েছে, ‘আল্লাহর হুকুম ছাড়া কেউ মৃত্যুবরণ করতে পারে না। সেজন্য একটা সময় নির্ধারিত রয়েছে।’ সুরা আলে ইমরান, আয়াত ১৪৫।

মৃত্যুর মাধ্যমে প্রতিটি জীবনের পরিসমাপ্তি ঘটে। দুনিয়ার জীবন থেকে পরকালের জীবনের দিকে পা বাড়ায়। সব প্রাণীর জন্য মৃত্যুকে অবধারিত করে দিয়েছেন আল্লাহ। সব সৃষ্টজীব এখানে সমান। ইরশাদ হয়েছে, ‘প্রতিটি প্রাণীই মৃত্যুর স্বাদ আস্বাদনকারী। এরপর আমার দিকেই তোমাদের ফিরিয়ে আনা হবে।’ সুরা আনকাবুত, আয়াত ৫৭। আল্লাহ আরও বলেন, ‘আর আল্লাহ জীবন ও মরণ দান করেন এবং তাঁরই কাছে প্রত্যাবর্তন করতে হবে।’ সুরা ইউনুস, আয়াত ৫৬।
মানুষের জীবন ও মৃত্যু একমাত্র আল্লাহর হাতে। যখন মৃত্যু চলে আসবে তখন কেউ তাকে দমন বা প্রতিহত করতে পারবে না। মৃত্যু আসার জন্য কোনো সময়, বয়স, জাতপাত বা শ্রেণি নির্দিষ্ট নেই। যখন এসে যাবে তখন তার থেকে পলায়ন করা বা তাকে পিছিয়ে দেওয়া কোনোটাই সম্ভব নয়। আল্লাহ আরও বলেন, ‘প্রতিটি সম্প্রদায়ের জন্য একটি নির্দিষ্ট মেয়াদ রয়েছে। যখন তাদের মেয়াদ এসে যাবে, তখন তারা না এক মুহূর্ত পিছে যেতে পারবে, আর না সামনে অগ্রসর হতে পারবে।’ সুরা আরাফ, আয়াত ৩৪।

মৃত্যুর সময় যখন ঘনিয়ে আসবে তখন বান্দা যেখানেই থাকুক না কেন মৃত্যু তার কাছে আসবেই। দুনিয়ার কোনো রক্ষী বা প্রহরী তাকে ঠেকাতে পারবে না। তার হাত থেকে বাঁচতে পারবে না। আল্লাহ বলছেন, ‘তোমরা যেখানেই থাকো মৃত্যু তোমাদের নাগাল পাবেই, যদি তোমরা শক্তিশালী দুর্গেও থাকো।’ সুরা নিসা, আয়াত ৭৮। হজরত ওমর (রা) বর্ণনা করেন, ‘রসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে জিজ্ঞাসা করা হলো, হে আল্লাহর রসুল! সবচেয়ে বুদ্ধিমান লোক কে? উত্তরে তিনি বললেন, যে ব্যক্তি অধিক হারে মৃত্যুকে স্মরণ করে এবং মৃত্যু-পরবর্তী জীবনের প্রস্তুতি গ্রহণে ব্যস্ত থাকে।’ ইবনে মাজাহ।

রসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম আরও বলেছেন, ‘পাঁচটি বিষয়কে পাঁচটি বিষয়ের আগে মর্যাদা দাও। যথা- যৌবনকে বৃদ্ধকাল আসার আগে, সচ্ছলতাকে অভাব আসার আগে, সুসময়কে খারাপ সময়ের আগে, সুস্থতাকে অসুস্থতার আগে, জীবনকে মৃত্যু আসার আগে।’ হাকেম। মৃত্যু সবারই একদিন আসবে। আজ বা কাল। এর হাত থেকে কেউ রেহাই পাবে না। তাই নেক আমলরত অবস্থায় মৃত্যুর জন্য বেশি বেশি দোয়া করতে হবে। রসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘যে ব্যক্তি আল্লাহর সন্তুষ্টির লক্ষ্যে লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ বলল এবং এ অবস্থায় তার মৃত্যু হলো সে জান্নাতে প্রবেশ করবে। যে ব্যক্তি কোনো একটি সদকা করল এবং এ অবস্থায় তার মৃত্যু হলো সেও জান্নাতে প্রবেশ করবে।’ মুসনাদে আহমাদ।

লেখক : মুহাদ্দিস খাদিমুল ইসলাম মাদ্রাসা, ঢাকা।
সুত্র : বাংলাদেশ প্রতিদিন

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

আমাদের ফেইসবুক পেইজ