মার্কিনিদের হত্যায় তালেবানদের অর্থ দেয়ার দাবি ভিত্তিহীন: রাশিয়া

প্রকাশিত: ৪:০৮ অপরাহ্ণ, জুন ২৮, ২০২০

মার্কিনিদের হত্যায় তালেবানদের অর্থ দেয়ার দাবি ভিত্তিহীন: রাশিয়া

অনলাইন ডেস্ক :;
মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থার রিপোর্টে সম্প্রতি উঠে আসে, আফগানিস্তানে যুক্তরাষ্ট্র ও ন্যাটো সেনাদের হত্যায় তালেবানদের অর্থ দিয়ে আসছে রাশিয়া।

মার্কিন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএর বরাত দিয়ে গত শুক্রবার নিউইয়র্ক টাইমস এ নিয়ে রিপোর্ট প্রকাশ করে। খবর বিবিসির।

এ রিপোর্টকে ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে দাবি করেছে রাশিয়া। যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থিত রুশ দূতাবাস থেকে পাঠানো এক বিবৃতিতে বলা হয়, পত্রিকাটির এ ধরনের ভিত্তিহীন সংবাদের ফলে দেশটিতে তাদের কূটনীতিকদের নিরাপত্তা হুমকির মধ্যে ফেলে দিয়েছে।

এদিকে তালেবান নেতারাও রুশ গোয়েন্দাদের সঙ্গে এ ধরনের কোনো সমঝোতার কথা ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দেন।

প্রায় ১৯ বছর যুদ্ধ শেষে তালেবানদের সঙ্গে চুক্তি করে শূন্যহাতে ফিরছে মার্কিন বাহিনী। মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের ঠিক আগে এ তথ্য প্রকাশ করল দেশটির গোয়েন্দা সংস্থা।

রাশিয়ার ইন্ধনে মার্কিন বাহিনী এবং তাদের সহযোগী সেনা সদস্যরা আফগানিস্তানে তালেবানদের হামলায় মারা যাচ্ছে বলে যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা রিপোর্টে উঠে এসেছে।

মার্কিন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার (সিআইএ) বরাত দিয়ে নিউইয়র্ক টাইমস শুক্রবার এক প্রতিবেদনে এ কথা উল্লেখ করে।

পত্রিকাটির খবরে উল্লেখ করা হয়, আফগানিস্তানে উগ্রপন্থী সংগঠন তালেবানকে মোটা অঙ্কের আর্থিক সহায়তার বিনিময়ে মার্কিন সেনা এবং তাদের মিত্রবাহিনীর সদস্যদের হত্যা করাচ্ছে রুশ সেনাবাহিনী।

এ ব্যাপারে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প রাশিয়ার বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা নেয়া যায় তা নিয়ে চিন্তা করছেন।

গোয়েন্দা প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, ২০১৯ সালে আফগানিস্তানে সন্ত্রাসী হামলায় ২০ মার্কিন সেনা হত্যার ঘটনাটি এখনও রহস্যাবৃত।

কারা ওই হামলা করেছে– এ বিষয়টি এখন পর্যন্ত নিশ্চিত হতে পারেনি যুক্তরাষ্ট্র।

প্রায় দুই দশক যুদ্ধের পর আফগানিস্তান থেকে বলতে গেলে খালি হাতেই ফিরতে হচ্ছে মার্কিন বাহিনীকে।

চলতি বছরের ২৮ ফেব্রুয়ারি তালেবানদের সঙ্গে সেনা প্রত্যাহরের চুক্তি করে যুক্তরাষ্ট্র।

এদিকে দক্ষিণ এশিয়ায় আফগান যুদ্ধে মার্কিন সহযোগী হিসেবে পরিচিত পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানও শুক্রবার দেশটির সংসদে এ বক্তৃতায় বলেছেন, আফগানিস্তানে মার্কিন বাহিনী পরাজিত হয়েছে।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun

আমাদের ফেইসবুক পেইজ