‘মিসবাহ থাকলে পাকিস্তানের ক্রিকেট ধ্বংস হয়ে যাবে’

প্রকাশিত: ১০:২৮ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৬, ২০২০

‘মিসবাহ থাকলে পাকিস্তানের ক্রিকেট ধ্বংস হয়ে যাবে’

স্পোর্টস ডেস্ক

গত বছর ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে প্রত্যাশিত পারফরম্যান্স করতে না পারায় পাকিস্তান দলের প্রধান কোচ (মিকি আর্থার), প্রধান নির্বাচক (ইনজামাম-উল হক) ও অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদকে সরিয়ে দেয়া হয়।

প্রধান কোচ মিকি আর্থার ও প্রধান নির্বাচক ইনজামাম-উল হকের পরিবর্তে এই দুই দায়িত্ব দেয়া হয় মিসবাহ উল হককে।

মিসবাহর অধীনে গত এক বছরে পাকিস্তান ক্রিকেট দল টেস্ট, ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টির ২৭ ম্যাচে অংশ নিয়ে মাত্র ৯টিতে জয় পায়। দলের এমন বাজে পারফরম্যান্সের কারণে রীতিমতো সমালোচনার মুখে পড়েন প্রধান কোচ কাম-প্রধান নির্বাচক মিসবাহ।

সেই সমালোচনা এড়াতেই এক বছর পর গত বুধবার প্রধান নির্বাচকের দায়িত্ব থেকে স্বেচ্ছায় সরে দাঁড়ান পাকিস্তানের সাবেক এই অধিনায়ক।

তবে পাকিস্তানের সাবেক তারকা পেসার আকিব জাভেদ এক্সপ্রেস নিউজকে বলেছেন, মিসবাহর উচিত ছিল প্রধান কোচের দায়িত্ব থেকে সরে যাওয়া। সাবেক অধিনায়ক হিসেবে সে প্রধান নির্বাচকের ভূমিকায় উপযুক্ত ছিল। কোচিংয়ে তার কোনো অভিজ্ঞাত নেই। পূর্ব অভিজ্ঞতা ছাড়া বিশ্বের কোনো জাতীয় দলের প্রধান কোচ হওয়া সম্ভব নয়। সে থাকলে পাকিস্তানের ক্রিকেট আরও ধ্বংসের দিকে যাবে।

আকিব জাভেদ আরও বলেছেন, অভিজ্ঞতার অভাবেই মিসবাহ শ্রীলংকার বিপক্ষে সিরিজে ভুল সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। পরাজয়ের পরেও তিনি চাপ সামলাতে পারেননি।

মিসবাহ দায়িত্ব নেয়ার পর ঘরের মাঠে শ্রীলংকার বিপক্ষে দুই ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে ২-০ আর দুই টেস্টের সিরিজে ১-০ ব্যবধানে জিতে পাকিস্তান। তবে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হয় বাবর আজমরা।

আমাদের ফেইসবুক পেইজ