মিয়ানমারে ভিন্ন ধাঁচের বিক্ষোভ : ‘আমার সাবেক ছেলেবন্ধু খারাপ ছিল, সেনারা তারচেয়েও খারাপ’

প্রকাশিত: ১২:১১ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৯, ২০২১

মিয়ানমারে ভিন্ন ধাঁচের বিক্ষোভ : ‘আমার সাবেক ছেলেবন্ধু খারাপ ছিল, সেনারা তারচেয়েও খারাপ’

অনলাইন ডেস্ক

মিয়ানমারে সেনা অভ্যুত্থান বিরোধী বিক্ষোভ তীব্র থেকে তীব্র রূপ নিচ্ছে। ক্ষমতাসীন জান্তা সরকার দমন পীড়ন যত বাড়াচ্ছে আন্দোলন তত তীব্র হচ্ছে। আন্দোলনে শিক্ষার্থী, নার্স, বৌদ্ধ বিক্ষুদের উপস্থিতি নতুন মাত্রা যোগ করেছে।

গতানুগতিক আন্দোলনের চেয়ে মিয়ানমারে সেনা শাসন বিরোধী আন্দোলন একটু ভিন্ন। সেখানে আন্দোলনে প্রথম দুদিন সহিংসতামুক্ত ছিল। পুলিশ আন্দোলনকারীদের নিরাপত্তা দিত। আর আন্দোলনকারীদের ফুল দিতে দেখা গেছে আইনশৃংখলাবাহিনীকে। তৃতীয় দিন সোমবার থেকে আন্দোলনে কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি নতুন মাত্রা যোগ করে।

অবস্থা বেগতিক দেখে আইনশৃংখলা বাহিনী জলকামান ছুঁড়ে ছত্রভঙ্গ করে দেওয়ার চেষ্টা করে। তবে আন্দোলনকারীরা সহিংসতার পথে পা বাড়ায়নি। তারা ভিন্ন ধাপে আন্দোলন চালিয়ে যায়।

এই আন্দোলনের স্লোগানগুলোও চোখে পড়ার মতো। স্টিকার ও ফেস্টুনগুলোতে বৈচিত্রতা দেখা গেছে। বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, একজনের হাতে লেখা স্টিকারে দেখা গেছে, ‘ আমার সাবেক প্রেমিক/প্রেমিকা খারাপ ছিল, সেনাবাহিনী তার চেয়েও খারাপ।’

কয়েকজনের হাতে রাখা শোভা পাওয়া ফেস্টুনে দেখা গেছে, ‘আমি একনায়ক চাই না, সম্পর্ক চাই’ (আই ওয়ান্ট রিলেশনশিপ, নট ডিকটেটরশিপ)।

আরেক তরুণীর হাতে হাতে লেখা প্ল্যাকার্ডে লেখা ছিল, ‘আমি একনায়কত্ব চাই না, ছেলে বন্ধু চাই।’

আরেক বিক্ষোভকারীর হাতে শোভা পাচ্ছে- ‘আমাদের ভবিষ্যত ধ্বংস করার সুযোগ তোমাদের দেওয়া হবে না।’

এসবের মধ্য দিয়ে সামরিক অভ্যুত্থান বিরোধী অহিংস পদক্ষেপ চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার করেছেন বিরোধীরা।

এক দশকেরও বেশি সময়ের মধ্যে দেশজুড়ে সবচেয়ে বড় বিক্ষোভ হওয়ার পর সোমবার রাতে সামরিক জান্তা বড় সমাবেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা, রাত্রিকালীন কারফিউ জারি ও বিভিন্ন সড়ক বন্ধ করে দেয়।

মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে তরুণ আন্দোলনকারী মং সাউংখা বলেছেন, ‘আমরা লড়াই চালিয়ে যাবো।’

বিবৃতিতে রাজনৈতিক বন্দিদের মুক্তি ও ‘স্বৈরাচারের সম্পূর্ণ পতনের’ আহ্বান জানান তিনি। পাশাপাশি যে সংবিধান পার্লামেন্টে সেনাবাহিনীকে ভেটো দেওয়ার ক্ষমতা দিয়েছে তা বিলুপ্ত করার এবং জাতিগতভাবে বিভক্ত মিয়ানমারে ফেডারেল ব্যবস্থা প্রবর্তনের আহ্বানও জানিয়েছেন তিনি।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

আমাদের ফেইসবুক পেইজ