মৃত ব্যক্তির সমালোচনা নিষেধ

প্রকাশিত: ১:১৩ পূর্বাহ্ণ, জুন ১৬, ২০২০

মৃত ব্যক্তির সমালোচনা নিষেধ

মো. আবু তালহা তারীফ :; মৃত ব্যক্তির সমালোচনা করা উচিত নয়। মন্দ বাক্য দ্বারা তাকে গালমন্দ করতে ইসলামে নিষেধ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে হজরত আয়েশা (রা.) থেকে বর্ণিত, রসুল (সা.) বলেছেন, মৃত ব্যক্তিদের গালমন্দ কর না। কারণ তারা যা করেছে তার প্রতিফল পাওয়ার স্থানে পৌঁছে গেছে। (বুখারি)। মৃত্যু হচ্ছে জাগতিক জীবনের সমাপ্তি। জাগতিক দেহ থেকে আত্মার পৃথকীকরণ। চলমান জীবন প্রক্রিয়ার একটি পরিবর্তনীয় অবস্থা। একই সঙ্গে এই আত্মার জাগতিক দুনিয়া থেকে আখিরাতের উদ্দেশ্যে যাত্রা করা। জীবিত থাকাবস্থায় সব ভালোমন্দ লিপিবদ্ধ করার জন্য আল্লাহ দুই ফেরেশতা নিযুক্ত করেছেন। ইরশাদ হচ্ছে, আর অবশ্যই তোমাদের ওপর তত্ত্বাবধায়ক নিযুক্ত রয়েছে। কিরামান কাতিবিন (সম্মানিত লেখকদ্বয়)। তারা সব জানেন তোমরা যা করছ (সূরা ইনফিতার-১০-১২)। এজন্য নিজে চেষ্টা করে মৃত ব্যক্তির সম্পর্কে খারাপ কর্ম সম্পর্কে জানা কিংবা অন্যকে জানিয়ে দেওয়া ঠিক নয়। মৃত ব্যক্তি আমাদের চোখে খারাপ হতে পারে। কিন্তু তিনি এমন একটি ভালো কাজ করছেন যা আল্লাহ পছন্দ করে তার বান্দাকে ক্ষমা করেছেন। কেননা তিনি দয়াময়, পরম করুণাময়, ক্ষমাশীল। সব বিষয়ে অনুমান করা ঠিক নয়। শরীরের কাছ থেকে কৈফিয়ত নেওয়া হবে? আল্লাহ বলেন, যে বিষয়ে তোমার কোনো জ্ঞান নেই সেই বিষয়ে অনুমান দ্বারা পরিচালিত হইও না। কর্ণ, চক্ষু, হৃদয়- ওদের প্রত্যেকের কাছে কৈফিয়ত তলব করা হবে (সূরা আল-ইসরা-৩৬)। আমরা জানি, দোষে-গুণেই মানুষ। যে বেশি কাজ করে সে বেশি দোষী। যে কাজ করে না তার কোনো দোষ হয় না। কাজ করা খুব কঠিন কিন্তু দোষ খুঁজে বের করা খুবই সহজ। এজন্য অন্যের দোষকে গোপন রাখতে হবে। যদি কারও দোষ গোপন রাখতে পারি, আল্লাহ কিয়ামতে দোষ গোপন রাখবেন। মৃত ব্যক্তিকে গালি দিয়ে নিজে অপরাধী হওয়া উচিত হবে না। মৃত্যু হলে আনন্দিত হয়ে মিষ্টি বিতরণ, জুতা নিক্ষেপ, কবরের ওপর হামলা কিংবা মন্দ বাক্য বলে হিংসা করা, অভিশাপের দোয়া করা আমাদের জন্য উচিত নয়। কেননা জাহেলিয়ার সময় অধিক পরিমাণে মৃত ব্যক্তির নিন্দা চর্চা করা হতো। এমনকি মৃত ব্যক্তির ওপর প্রতিহিংসা পরায়ণতার চর্চা করা হতো। এজন্য রসুল (সা.) বলেছেন, তোমাদের কোনো সঙ্গী মারা গেলে তাকে ছেড়ে দাও এবং তার সম্পর্কে কটূক্তি কর না। (সুনান আবু দাউদ) মৃত ব্যক্তিকে গালমন্দ করলে শোকাহত পরিবার কষ্ট পায়। মৃত্যু সবার বরণ করতে হবে। তাই মৃত ব্যক্তির জন্য উচিত বেশি বেশি দোয়া করা।

লেখক : ইসলামবিষয়ক গবেষক।

সুত্র : বাংলাদেশ প্রতিদিন

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun
  12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728     
       
28      
       
       
       
1234567
2930     
       

আমাদের ফেইসবুক পেইজ