যুক্তরাষ্ট্রে কলোম্বাসের মূর্তি ভাঙার হিড়িক

প্রকাশিত: ২:৩৬ অপরাহ্ণ, জুন ১১, ২০২০

যুক্তরাষ্ট্রে কলোম্বাসের মূর্তি ভাঙার হিড়িক

সিল-নিউজ-বিডি ডেস্ক :: মিনেসোটার সেইন্টপল থেকে ইতালীয় অভিযাত্রী ক্রিস্টোফার কলোম্বাসের একটি মূর্তি অপসারণ করা হয়েছে। পুলিশি নৃশংসতা ও বর্ণবাদবিরোধী বিক্ষোভের মধ্যেই দেশটিতে এবার মূর্তি ভাঙার হিড়িক চলছে।- খবর রয়টার্সের

১০ ফুট উচ্চতার ব্রোঞ্জের মূর্তিটি তার গ্রানাইটের বেদি থেকে টেনে নামানো হয়েছে। মিনেসোটাভিত্তিক স্থানীয় আদিবাসী আন্দোলনকারীরা এ কাজে নেতৃত্ব দেন।

অ্যাক্টিভিস্ট মাইক ফোরসিয়া বলেন, সঠিক সময়ে সঠিক কাজটি করা হয়েছে।

রাজ্য কংগ্রেসের ওয়েবসাইটের তথ্যানুযায়ী, ভাস্কর কার্লো বিয়স্কির তৈরি করা কলোম্বাসের ওই ব্রোঞ্জের ভাস্কর্যটি ১৯৩১ সালে নগর কর্তৃপক্ষকে উপহার হিসেবে দিয়েছিলেন ইতালীয়-আমেরিকানরা।

যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় আদিবাসী আন্দোলনকারীরা কলোম্বাসকে সম্মান জানানোর বিরুদ্ধে অনেক দিন ধরেই আপত্তি জানিয়ে আসছিলেন।

বুধবার রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসিতে মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি মার্কিন কংগ্রেস ভবন থেকে যুক্তরাষ্ট্রের গৃহযুদ্ধকালীন কনফেডারেট নেতা ও সেনাদের ১১টি ভাস্কর্য সরিয়ে নেয়ার জন্য কংগ্রেসের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

এ ছাড়া বোস্টনেও কলোম্বাসের একটি ভাস্কর্যের মাথা ভেঙে ফেলা হয়েছে। বুধবার বোস্টনের পুলিশের বরাতে এনডিটিভি এমন খবর দিয়েছে।

বর্ণবাদী বিক্ষোভের মধ্যেই দাস ব্যবসায়ী ও উপনিবেশ স্থাপনকারীদের মূর্তি সরানোর আহ্বান জানানো হয়েছে।

মিয়ামির শহরতলিতে কলোম্বাসের একটি মূর্তি ভাংচুর করা হয়। আর ভার্জিনিয়ার রিচমন্ডে আরেকটিকে টেনেহিঁচড়ে লেকে ফেলে দেয়া হয়।

আদিবাসী আমেরিকানদের অভিযোগ, কলোম্বাসের আমেরিকা অভিযাত্রার পরেই উপনিবেশ স্থাপন ও গণহত্যার ঘটনা ঘটেছে।

সম্প্রতি আমেরিকার বিভিন্ন শহর ও রাজ্যে কলোম্বাস দিবসকে আদিবাসী গণদিবস পালন করা হচ্ছে। কলোম্বাস ও ইউরোপীয় অভিযাত্রীদের কারণে যে ত্রাস ও যন্ত্রণা আদিবাসীদের ওপর দিয়ে গেছে, তার স্বীকৃতি হিসেবে এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

আদিবাসীদের সঙ্গে সহানুভূতি প্রকাশ করতেই কলোম্বাসের মূর্তি উপড়ে ফেলা হচ্ছে বলে কিছু কিছু বিক্ষোভকারী দাবি করেন।

বুধবার মিনেসোটার রাজ্য ক্যাপিটালে একদল লোক কলোম্বাসের মূর্তির গায়ে রশি বেঁধে সেটিকে টেনে উপড়ে ফেলেন।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

আমাদের ফেইসবুক পেইজ