রক্ত দিয়ে গড়া ছাত্রদলকে আজ ঘুনে ধরেছে- সুহেল রাজা

প্রকাশিত: 9:17 PM, July 20, 2019

রক্ত দিয়ে গড়া ছাত্রদলকে আজ ঘুনে ধরেছে- সুহেল রাজা

সোস্যাল মিডিয়া ডেস্ক:: সিলেটে ঘুনে ধরা ছাত্রদলকে বাঁচাতে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় নেতাদের প্রতি অনুনয়-বিনয় করে একটি বক্তব্য রাখছেন সিলেট জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুহেল ইবনে রাজা। তার বক্তব্যটি পরে হুবহু স্ট্যাটাস আকারে তিনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে পোস্ট দেন। তার কথাগুলো মুহুর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে যায়। ছাত্রদলের অধিকাংশ নেতাকর্মী সুহেল ইবনে রাজার কথাগুলোর সাথে একমত পোষন করেন। নিম্নে পাঠকের সুবিধার্থে হুবহু স্ট্যাটাস তুলে ধরা হলো।

‘‘সিলেট ঘুনে ধরা ছাত্রদল কে বাচান’
সবাইকে নিয়ে কাজ করুন।
কেউর মেধা, কেউর শ্রম, কেউ জনশক্তি,কেউ টাকা সব কিছুর স্মনয়ে গড়ে উঠতে পারে একটি সুসৃংখল শক্তিশালী ছাত্রদল।ঠিক যেন পৃর্বে ন্যায়।
যৌবনের পুরোটা সময় যে সংগঠনের প্রেমে পড়ে ভাল বাসার মানুষ গুলোর তিক্ত সমালোচনা সজ্জ করতে হয়েছে,সমাজের চোখে হয়েছি লাফার কেই কেউ অতি উৎসাহী হয়ে বলেছে অমুকের ছেলে সন্ত্রাসী হয়েগেছে এত কিছুর পরও পারিনি ছাড়তে ভাল বাসার প্রিয় সংগঠনকে।এই সংগঠন করতে গিয়ে অনেক মায়ার মানুষ কে হারিয়েছি।মনে হলে চোখের পানি গলিয়ে পড়ে যখন ঘরে এসে দেখতাম মা দরজার সামনে বা বাইরের গিরিলে দাড়িয়ে আছেন।আজ মা নেই কেউ আর দাড়িয়ে থাকেনা,শগরে যখন গন্ডগুল হত মায়ের ফোন আসত *বাবা তুমি কই*।আল্লাহ যেন আমার মাকে জান্নাতের মেহমান হিসেবে কবুল করেন,সবাই দোয়া করবেন।

আজ খুব কষ্ট হচ্ছে সেই সংগঠন কে ঘুনে ধরে শেষ করে দিচ্ছে।

অনেক কিছুই করার ছিল কিন্ত বাস্তাবতার কারনে কিছুই করতে পারিনি।খুব কষ্ট হয় এ জন্য যে এত বছর এত শ্রম মেধা বিসর্জন দিয়েছিলাম এই সংগঠনের জন্য কিন্ত………….

যাইহোক আমি যখন ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী ছিলাম তখন আমি সর্ট টাইক ও লং টাইম ২টা কার্যনীতি প্রনয়ন করেছিলাম ভেবে ছিলাম এজন্য যে দল যদি আমাকে দায়িত্ব দেয় তাহলে আমার সহকর্মীদের সাথে আলোচনা করে এগুলো বাস্তবায়নের জন্য চেষ্টা করব,দূরভাগ্য দল আমাকে সেই সুযোগ দেয়নি ।এর পরও যারা দায়িত্ব পেয়েছিলেন তাদের সাথে যখন আমাদের সাভাবিক সমপর্ক হল তখন তাদের কে বলেছিলাম নির্বাচন এক সাথে করেছি এবার আসুন দলটাকে আমরা সবাই মিলে সাজাই মায়ের মুক্তির জন্য কিছু করি, কর্মীদের কিভাবে মাটে নামানো যায় সেই চেষ্টা করি, সবার পরামর্শে দলটা কে এগিয়ে নিয়ে যাই, এই দল যে আমাদের ভাল বাসা।এই সংগঠন কে এভাবে শেষ করে দেওয়া ঠিক হবে না

জবাবে দায়িত্বশীল একজন বলেছেন সুহেল *নিজেরই উৎসাহ নাই কার ছেলেকে এনে জেল কাটাব* আর আরেক দায়িত্বশীল বলেছেন ঠিক আছে আমরা বসব কিন্তু আজ পর্যন্ত কিছুই হয়নি।

ভাবতে অবাক লাগে রক্ত দিয়ে যারা এই সিলেট ছাত্রদল কে প্রতিষ্ঠিত করেছেন তাদের কাছে কি আপনাদের কোন জবাব দিহি নাই।

আরে ভাই আমার পদের দরকার নেই পদের জন্য লোভ থাকত তাহলে পদত্যাগ করতাম না।দল কে ভাল বাসি বলেই বলেছিলাম সুন্দর করার জন্য কিন্ত হয়ত আপনারা এটাকে দৃর্বলাতা মনে করেছিলেন। আমি সোহেল ইবনে রাজা পদ থাকলেও আছি না থাকলেও আমি।,আমি থাকব রাজপথে যেকোনো অবস্তানে রাজপথে সক্রিয় থাকব আমার কো অসুবিধা হবেনা।

অসুবিধা নাই আমাদের সাথে আলোচনা না করলে আপনা আপনাদের মাঝে আলোচনা করে দলকে বাচান প্লিজ এই দল আমাদের অনেক ভাইয়ে রক্তে গড়া দল এই সংগঠন কে নষ্ট করে দিবেন না প্লিজ অনুরোধ আপনাদের কাছে।

বিঃ দ্র আমার কার্যপ্রনালীর মধ্যে উল্লেখ্য যোগ্য ছিল রাজনীতি কলেজ ক্যাম্পাসে নিয়ে যাওয়া,দেশনেত্রী মুক্তি সহ আর বেশ কিছু।

ভুল হলে ক্ষমা করে দিবেন কাউকে আঘাত করার জন্য বা কাউকে ছোট করার জন্য আমার লেখা নয়,আমি হয়ত আর ছাত্ররাজনীতি করব না,কিন্তু আপনাদের দায়িত্ব রয়েছে ছাত্রদল কে আর বেশী সুসংগঠিত করা।

দেশনায়ক আগামীর রাষ্ট্রনায়ক জননেতা তারেক রহমান অনেক আশা নিয়ে আপনাদের কাদে দায়িত্ব অর্পিত করেছেন আশা করি আপনাদের সেই দায়িত্ব পালন করতে সক্ষম হবেন আপনারা পারবেন ইনশাআল্লাহ।

আবারও বলছি ভুল হলে ক্ষমা করেদিবেন,এই অধম কে যেকোনো প্রয়োজনে পাশে পাবেন কথা দিলাম।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আমাদের ফেইসবুক পেইজ