লিবিয়ায় মানব পাচার চক্রের ২ নারী সদস্য গ্রেফতার

প্রকাশিত: ১১:৫৮ অপরাহ্ণ, জুন ১০, ২০২০

লিবিয়ায় মানব পাচার চক্রের ২ নারী সদস্য গ্রেফতার

অনলাইন ডেস্ক :; মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার পাঠানকান্দি ও বেপারীপাড়া গ্রামের দুই নারী মানব পাচারকারী চক্রের সদস্যকে মঙ্গলবার দিবাগত রাতে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৮-এর সদস্যরা।

বুধবার সকালে গ্রেফতারকৃতদের মাদারীপুরের রাজৈর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। রাজৈর থানা পুলিশ আসামিদের মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে প্রেরণ করে।

র‌্যাব-৮ মাদারীপুর ক্যাম্পের কোম্পানি অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ তাজুল ইসলাম বুধবার বিকালে এক প্রেস রিলিজের মাধ্যমে জানান, ২৬ জন বাংলাদেশিসহ ৩০ জনকে গুলি করে হত্যা এবং ১১ জন বাংলাদেশিকে গুরুতর আহত করে লিবিয়ায় অবস্থান করা মানব পাচারকারী চক্র। মাদারীপুরের রাজৈর থানায় দায়ের হওয়ার মামলার আসামিদের ধরতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব সদস্যরা গোপালগঞ্জ জেলার মুকসুদপুর থানাধীন দিগনগর এলাকা এবং বরিশালের গৌরনদী বাসস্ট্যান্ড এলাকায় অভিযান চালায়।

অভিযানকালে মুকসুদপুর থানাধীন দিগনগর গ্রাম হতে মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার পাঠানকান্দি গ্রামের আমির হোসেনের স্ত্রী রাশিদা বেগমকে (৪২) গ্রেফতার করে। এর কিছু সময় পরে র‌্যাব সদস্যরা বরিশাল জেলার গৌরনদী বাসস্ট্যান্ড এলাকা হতে মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার বেপারীপাড়া গ্রামের শাহাবুদ্দিনের স্ত্রী বুলু বেগমকে (৩৮) গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারকৃতরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ওই চক্রের সক্রিয় সদস্য বলে স্বীকার করেছে। আসামি রাশিদা বেগমের স্বামী আমির হোসেন দীর্ঘদিন যাবৎ লিবিয়ায় অবস্থান করে এবং অবৈধভাবে লিবিয়ায় বাংলাদেশ হতে বিভিন্ন উপায়ে মানব পাচার করে। রাশিদা বেগম ভিকটিমদের নিকটাত্মীয়দের কাছ থেকে টাকা উত্তোলন করে।

লিবিয়ায় হত্যার ঘটনায় মাদারীপুরের ১১ জন যুবক প্রাণ হারায় এবং ৪ জন গুরুতর আহত হয়। মাদারীপুরের নিহতদের পরিবারের সদস্যরা রাজৈর ও মাদারীপুর সদর মডেল থানায় পৃথক ৮টি মামলা দায়ের করেন। গ্রেফতারকৃতরা মাদারীপুর জেলার রাজৈর থানায় গত ১ জুন দায়ের হওয়া মানব পাচার প্রতিরোধ ও দমন আইন মামলার এজাহার নামীয় আসামি।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun
28      
       
       
       
1234567
2930     
       

আমাদের ফেইসবুক পেইজ