শিল্পপতি ফখরুল ইসলাম চৌধুরীর জানাযা ও দাফন সম্পন্ন

প্রকাশিত: ১১:৫২ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৮, ২০২০

শিল্পপতি ফখরুল ইসলাম চৌধুরীর জানাযা ও দাফন সম্পন্ন

অনলাইন ডেস্ক :: সিলেট বিভাগের হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার কৃতিসন্তান, বিশিষ্ট শিল্পপতি ও উদ্যোক্তা, জে আই সি স্যুট লিমিটেডের স্বত্বাধিকারী এবং সিলেট ‘রাতারগুল অর্গানিক এগ্রো টেকনোলজি পার্ক এন্ড রিসোর্ট’র চেয়ারম্যান ফখরুল ইসলাম চৌধুরীর জানাযার নামাজ ও দাফন সম্পন্ন হয়েছে।

শুক্রবার (২৮ আগস্ট) রাত ৯টায় নবীগঞ্জের আউশকান্দিতে তাঁর গার্মেন্টস ফ্যাক্টরি প্রাঙ্গণে জানাযার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। মরহুমের জানাযার নামাজে রাজনৈতিক, সামাজিক ও বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

পরে ফখরুল ইসলাম চৌধুরীর নিজ গ্রাম নবীগঞ্জের বেতাপুরে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

এর আগে শুক্রবার (২৮ আগস্ট) ভোর সাড়ে ৪টায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে খরুল ইসলাম চৌধুরী মৃত্যুরবণ করেন। তিনি ঢাকার আল-হেলাল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। সেখানেই তিনি শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন।

ফখরুল ইসলাম চৌধুরী দীর্ঘদিন থেকে হৃদরোগ ও কিডনি রোগে ভুগছিলেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স ছিলো ৬৫ বছর। তিনি স্ত্রী, তিন ছেলে, তিন মেয়ে, এক ভাই এবং পাঁচ বোনসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

যুক্তরাজ্যসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বসবাস করেছেন ফখরুল ইসলাম চৌধুরী। গড়েছেন ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান। নিজেকে নিয়ে গেছেন সফলতার শিখরে। কিন্তু নাড়ির টান, জন্মমাটি ও নিকটজন এবং দেশের মানুষের ভালোবাসা তাকে পৃথিবীর কোথাও থিতু হতে দেয়নি।

নিজের দেশকে শ্রম ও মেধা ঢেলে দেয়ার মহান উদ্দেশ্যে চলে আসেন জন্মভূমিতে। গড়ে তুলেন গার্মেন্টস ও এগ্রো ফার্মসহ অনেক প্রতিষ্ঠান। করেন অনেক বাংলাদেশির কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা।

হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার বেতাপুর গ্রামের সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্ম নেয়া ফখরুল ইসলাম চৌধুরী শিক্ষাজীবন শেষে স্রষ্টা প্রদত্ত মেধা ও প্রতিভায় নিজেকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেলেও ভুলে যাননি দেশের মাটি ও মানুষের কথা। যুক্তরাজ্য ও মরক্কোসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কারখান-ব্যবসা প্রতিষ্ঠান করার পাশাপাশি নিজ এলাকা হবিগঞ্জে গড়ে তুলেন জে আই সি স্যুট লিমিটেড নামের বিশাল গার্মেন্টস। যেখানে কর্মরত আছেন কয়েক হাজার নারী-পুরুষ।

সম্প্রতি ফখরুল ইসলাম চৌধুরী সিলেটে সদর উপজেলার খাদিমনগর ইউনিয়নের সাহেব বাজার এলাকার পাঠানগাঁওয়ে স্থাপন করেন ‘রাতারগুল অর্গানিক এগ্রো টেকনোলজি পার্ক এন্ড রিসোর্ট’ নামের একটি ফার্ম। গত ২০ আগস্ট এর উদ্বোধন করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন। যেটিতে পর্যায়ক্রমে কর্মসংস্থান হবে হাজারও মানুষের।

এছাড়া সিলেটে বেসরকারিভাবে অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠারও উদ্যোগ নিয়েছিলেন ফখরুল ইসলাম। কিন্তু মাত্র ৬৫ বছর বয়সে অনেক স্বপ্নকে অপূর্ণ রেখেই স্রষ্টার ডাকে সাড়া দিলেন সিলেটের গর্ব এই বিশিষ্ট শিল্পপতি ও উদ্যোক্তা।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun

আমাদের ফেইসবুক পেইজ