শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অদম্য উন্নয়নের পথে বাংলাদেশ : এড. নাসির উদ্দিন খান

প্রকাশিত: ১০:২৬ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৪, ২০২১

শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অদম্য উন্নয়নের পথে বাংলাদেশ : এড. নাসির উদ্দিন খান

নিজস্ব প্রতিবেদক ::

সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মো: নাসির উদ্দিন খান বলেছেন,প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ ও মানুষের ভাগ্য উন্নয়নের একযুগে সরকারের সবচেয়ে বড় সফলতা হচ্ছে গত ১২ বছরে দেশের যেমন উন্নয়ন-অগ্রগতি হয়েছে, তেমনি প্রতিটি মানুষের ভাগ্যের উন্নয়ন হয়েছে। দারিদ্র্য কমেছে বহুলাংশে, বাংলাদেশে এখন ছেঁড়া কাপড় পরা, খালি পায়ে মানুষ দেখা যায় না, কবিতায় কুঁড়েঘর আছে, বাস্তবে নেই। ১২ বছর আগে আমরা বলতাম ক্ষুধামুক্ত, দারিদ্র্যমুক্ত দেশ বিনির্মাণ করব। জননেত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে ইতোমধ্যে ক্ষুধাকে জয় করে খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণপ্রায়, স্বল্পোন্নত থেকে উন্নীত মধ্যম আয়ের দেশে। সব সূচকে আমরা অনেক আগেই পাকিস্তানকে ও বেশ অনেক সূচকে ভারতকেও অতিক্রম করেছি।

করোনাকালেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে দেশের অর্থনৈতিক অগ্রগতি অব্যাহত রেখেছেন ২০২০ সালে মাত্র ২২টি দেশে ঋণাত্মক জিডিপি প্রবৃদ্ধি হয়েছে, তারমধ্যে বাংলাদেশ তৃতীয়। প্রায় সব দেশের রপ্তানি কমলেও আগের বছরের তুলনায় আমাদের রপ্তানি বেড়েছে, রেমিট্যান্স বেড়েছে ৩৫ শতাংশ, বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ বেড়েছে ১০ বিলিয়ন ডলার, জ্বালানি চাহিদাও বেড়েছে, যা অগ্রগতির প্রতীক। সবচেয়ে ঘনবসতিপূর্ণ দেশ হয়েও ব্লুমবার্গের রিপোর্ট অনুযায়ী বাংলাদেশ করোনা মহামারি মোকাবিলায় উপমহাদেশে সবচেয়ে সক্ষম এবং পৃথিবীতে ২০তম।

২০০৬ সালের ৪১.৫ শতাংশ থেকে দারিদ্র্যের হার কমে এখন ২০ শতাংশের নিচে এবং অতি দারিদ্র্যের হার ২৪.২৩ শতাংশ থেকে ১০ শতাংশের নিচে নেমেছে, গড় আয়ু ৬৫ বছর থেকে হয়েছে ৭৩.২ বছর, যা ভারত এবং পাকিস্তানের চেয়েও অনেক বেশি, বলেন নাসির উদ্দিন খান।তিনি সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে মুজিব জন্ম শতবর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ১০ দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালার ৮ ম দিনে বুধবার সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী কৃষকলীগের উদ্যোগে আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্ত্যবে এ কথা বলেন।

সমাবেশে বক্তারা বলেন , বাংলাদেশের জাতীয় অর্থনীতিতে তাঁত শিল্পের ভূমিকা অপরিসীম। হস্ত চালিত তাঁতে বছরে প্রায় ৭০ কোটি মিটার বস্ত্র উৎপাদিত হয় যা অভ্যন্তরীণ চাহিদার প্রায় ৪০ ভাগ মিটিয়ে থাকে। এ শিল্প থেকে মূল্য সংযোজন করের পরিমাণ প্রায় দেড় হাজার কোটি টাকা। বাংলাদেশের হস্ত চালিত তাঁত শিল্প এদেশের সর্ববৃহৎ কুটির শিল্প। সর্ববৃহৎ এই তাঁত শিল্প আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহারে আজ হুমকির মুখে। বাংলার ঐতিহ্য তাঁত শিল্পকে বাঁচিয়ে রাখতে এর বিশেষ পরিচর্যা এখন সময়ের দাবী।

সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে মুজিব শতবর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ১০দিনব্যাপী আয়োজিত অনুষ্ঠান মালার আজ (২৪ মার্চ) ৮ম দিনে সিলেট জেলা ও মহানগর তাঁতী লীগের নিবেদনে আলোচনা সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন।

সিলেট জেলা তাঁতী লীগের সভাপতি মোঃ আলমগীর হোসেন এর সভাপতিত্বে এবং সিলেট জেলা তাঁতী লীগের সাধারণ সম্পাদক সুজন দেব নাথ এবং মহানগর তাঁতী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসনাত বুলবুলের যৌথ সঞ্চালনায় প্রধান অতিথির হিসেবে বক্তব্য রাখেন সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমেদ, বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মোঃ নাসির উদ্দিন খান, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মোঃ জাকির হোসেন, তাঁতী লীগের সভাপতি নোমান আহমদ।

সভায় উপস্থিত ছিলেন সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল খালিক, মহানগর আওয়ামী লীগের কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক তপন মিত্র, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এডভোকেট মোহাম্মদ আব্বাছ উদ্দিন, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক বুরহান উদ্দিন আহমদ, জেলা আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক শামসুল আলম সেলিম, মহানগর আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক রজত কান্তি গুপ্ত, জেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডাঃ সাকির আহমদ (শাহীন), মহানগর আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক আজিজুল হক মঞ্জু, জেলা আওয়ামী লীগের উপ দফতর সম্পাদক মো: মজির উদ্দিন, মহানগর আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক সোয়েব আহমদ, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ শমসের জামাল, সদস্য এডভোকেট বদরুল ইসলাম জাহাঙ্গীর, মহানগর আওয়ামী লীগের এডভোকেট জাহিদ সরোয়ার সবুজ প্রমুখ।

অনুষ্ঠান শেষে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করা হয়।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun
     12
24252627282930
31      
       
       
1234567
2930     
       

আমাদের ফেইসবুক পেইজ