সমালোচকেরাও এখন পুলিশের পক্ষে কথা বলছেন: আইজিপি

প্রকাশিত: ৭:০২ অপরাহ্ণ, জুন ১৪, ২০২১

সমালোচকেরাও এখন পুলিশের পক্ষে কথা বলছেন: আইজিপি

অনলাইন ডেস্ক

পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বেনজীর আহমেদ বলেছেন, ‘যাঁরা নানা কারণে পুলিশের সমালোচনা করতেন, তাঁরাও আজ পুলিশের পক্ষে কথা বলছেন, কলম ধরছেন। এ প্রাপ্তি আমাদের বিশাল অর্জন। পুলিশের প্রতি মানুষের এ বিশ্বাস, আস্থা ও সম্মান আমাদের ধরে রাখতে হবে। মানুষের প্রথম ভরসাস্থল হিসেবে কাজ করতে হবে।’

আজ সোমবার সকালে রাজশাহীর সারদায় বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমিতে উপপরিদর্শকদের (এসআই) প্রশিক্ষণ সমাপনী অনুষ্ঠানে আইজিপি বেনজীর আহমেদ এ কথা বলেন। তিনি পুলিশ একাডেমির প্যারেড গ্রাউন্ডে ৩৮তম বহিরাগত ক্যাডেট এসআই ব্যাচের মৌলিক প্রশিক্ষণ সমাপনী কুচকাওয়াজ পরিদর্শন, অভিবাদন গ্রহণ এবং বিভিন্ন বিষয়ে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জনকারীদের মাঝে পদক বিতরণ করেন।

বেনজীর আহমেদ বলেন, ব্যক্তিস্বার্থ ও মোহের ঊর্ধ্বে উঠে মানবিক মূল্যবোধকে অগ্রাধিকার দিয়ে জনমানুষের কল্যাণ ও দেশের ধারাবাহিক সমৃদ্ধির লক্ষ্যে কাজ করতে হবে। জনগণের সেবক হিসেবে দায়িত্ব পালনের মানসিকতা রাখতে হবে। করোনা মহামারির সময় পুলিশের ত্যাগ ও অনবদ্য অবদানের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, করোনাকালে দায়িত্বের বাইরে গিয়েও জনগণের পাশে দাঁড়িয়েছে পুলিশ। করোনা আক্রান্ত ব্যক্তিকে যখন আত্মীয়স্বজন ত্যাগ করে চলে গেছে, তখন পুলিশ আত্মীয়ের মতো তাদের পাশে দাঁড়িয়েছে। এ জন্য পুলিশ পেয়েছে সাধারণ মানুষের অকুণ্ঠ সমর্থন, ভূয়সী প্রশংসা। মানুষ পুলিশকে সম্মান করেছেন, ভালোবেসেছেন।

বেনজীর আহমেদ জনগণের প্রতি অপেশাদার আচরণ বন্ধ করা, দুর্নীতি ও মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স, বিট পুলিশিং ও পুলিশ সদস্যদের কল্যাণ—এই নির্দেশনাগুলো মেনে চলার নির্দেশ দেন। তিনি বলেন, পুলিশের পোশাকের মর্যাদা রক্ষা করতে হবে। সম্মান ও গর্ব নিয়ে চাকরি করতে হবে, তাতে চাকরি শেষে মর্যাদা নিয়ে বাড়ি যাওয়া যায়।

এর আগে আইজিপি বিভিন্ন বিষয়ে সেরাদের পদক দেন। পদকপ্রাপ্তরা হলেন শ্রেষ্ঠ ক্যাডেট (পুরুষ) মো. তানভীর আহমদ, শ্রেষ্ঠ ক্যাডেট (নারী) মোছা. নাসরিন সুলতানা জ্যোতি, একাডেমিক মো. কামরুল হাসান, প্যারেডে অলক বিহারী গুণ, পিটি ও বাধা অতিক্রমে মো. আবদুল কাদির খন্দকার, ম্যাসকেট্রিতে মো. নাজমুস সাকিব পদক পেয়েছেন। প্যারেডে ৫৭ নারীসহ ১ হাজার ২৩১ জন প্রশিক্ষণার্থী অংশ নেন।

আইজিপি একটি সুসজ্জিত খোলা জিপে চড়ে প্যারেড পরিদর্শন ও অভিবাদন গ্রহণ করেন। এর আগে সকালে তিনি একাডেমির প্যারেড গ্রাউন্ডে এসে পৌঁছালে একাডেমির প্রিন্সিপাল অতিরিক্ত আইজি খন্দকার গোলাম ফারুক তাঁকে স্বাগত জানান।

আইজিপি একাডেমি চত্বরে বঙ্গবন্ধু ম্যুরাল, ব্যারাক ভবন ও একাডেমি মসজিদের বর্ধিতাংশের উদ্বোধন করেন। তিনি প্রশিক্ষণার্থীদের মাঝে সনদ বিতরণ করেন। আইজিপি একাডেমি চত্বরে একটি গাছের চারা রোপণ করেন।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

আমাদের ফেইসবুক পেইজ