সিলেটের রিমনকে ‘নোবেল’ না হওয়ার পরামর্শ ভারতীয় দর্শকদের!

প্রকাশিত: ১:০৯ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ১৫, ২০২১

সিলেটের রিমনকে ‘নোবেল’ না হওয়ার পরামর্শ ভারতীয় দর্শকদের!

অনলাইন ডেস্ক ::
বাংলাদেশের কমেডির নতুন সেনসেশন আবিদুল ইসলাম রিমন। ভারতে জি-বাংলা চ্যানেলের জনপ্রিয় কমেডি রিয়েলিটি শো ‘মীরাক্কেল-১০ এর মঞ্চে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করছেন। বলা যেতে পারে তিনি জি বাংলার নতুন চমক। নিজের পারফরম্যান্সের মাধ্যমে দুই বাংলার মানুষের নজর কেড়েছেন তিনি। পেয়েছেন একাধিকবার মীরাক্কেলের রসিকরত্ন খেতাব।

তবে পারফর্মের পাশাপাশি রিমন বর্তমানে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অন্য এক কারণে আলোচনায়। যা জি বাংলার অফিসিয়াল পেজে প্রচারিত তার পারফরম্যান্সের ভিডিও কিংবা কমেডি রিলেটেড গ্রুপে গেলে দেখা যায়।

ভারতীয় দর্শকদের অনেকের আশঙ্কা খ্যাতির পর কি আবিদুল ইসলাম রিমনও জি বাংলার সারেগামাপা খ্যাত সংগীতশিল্পী মাঈনুল আহসান নোবেলের মতো হয়ে যাবেন? কেননা ঠিক একই চ্যানেল অর্থাৎ জি বাংলা সারেগামাপার মঞ্চ থেকেই নোবেলের গানের সঙ্গে পরিচয় হয় দর্শকের। কিন্তু অনুষ্ঠান শেষে বিজয়ী ট্রফি না পেয়ে নানা রকম বিরূপ মন্তব্য করতে থাকেন নোবেল। এমনকী তার বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠে খারাপ ব্যবহার এবং সিনিয়রদের যথাযোগ্য সম্মান না দেওয়ার।

এরপর রবীন্দ্রনাথের গান প্রসঙ্গে আবার বিতর্কের শিরোনামে আসেন তিনি। যা ভারতীয় দর্শকরা কোনোভাবেই মেনে নিতে পারেননি। সেই একই চ্যানেলে অন্য একটা শোতে বাংলাদেশি প্রতিযোগী রিমন। নোবেলের মতো জি বাংলা তাকে নিয়ে প্রত্যেকেটা পর্বে প্রচার করছে প্রমো। তারকা খ্যাতি পেয়ে যদি রিমন ‘নোবেল’ হয়ে যায়, ভারতীয়দের ভয় সেখানেই।

ভারতের যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী শ্যামল দেব জি বাংলার পেজে ফেইসবুক কমেন্টে রিমনের উদ্দেশে বলেন, ‘রিমন আমি ভারত থেকে বলছি। আমাদের ভারতীয় দর্শকদের ভোটে তুমি এতদূর চলে এসেছো। আশা করি অনেক দূর যাবে। তবে তোমার কাছে অনুরোধ। তুমি নোবেলের মতো অহংকারী হওয়ার চেষ্টা করবে না। যেই দেশের টিভি চ্যানেলের কারণে তুমি স্টার, সেই দেশের গুণীজন নিয়ে উল্টোপাল্টা কথা বলবে না। নোবেল আমাদের ভালোবাসার বিনিময়ে আঘাত দিয়েছিল। আমরা চাই না তুমিও নোবেলের মতো আমাদের আঘাত করো। মনে রাখবে তুমি বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করছো। শুভ কামনা।

দিল্লির বাসিন্দা ঘোষ বাবু রিমনের প্রকাশিত একটি ভিডিওতে মন্তব্য করে লিখেন, আবার সেই ভুল কাজ করল মীরাক্কেল। এক সারেগামাপা তে কু** বাংলাদেশি (নোবেল) ছিল। তারপর বড় বড় কথা বলছে। এও (রিমন) সেইম কাজ করবে।
তিনি মীরাক্কেলে টিমের ওপর কেস করা উচিত বলে মন্তব্য করেন।

তবে ব্যাপারটা নিয়ে বেশ বিব্রত মীরাক্কেলের সিজন ১০ এর আবিদুল ইসলাম রিমন।
এ প্রসঙ্গে সময় সংবাদকে তিনি বলেন, আমি মীরাক্কেলের মাধ্যমে দুই বাংলার মানুষের ভালোবাসা পেয়েছি। আমি এমন কাজ কখনো করবো না, যা করলে সবাই কষ্ট পাবে। আমি মন ভালোর কারণ হতে চাই। কষ্টের কারণ নয়। তাছাড়া হাতের পাঁচ আঙুল সমান নয়। আশাকরি আমাকে কেউ ভুল বুঝবেন না। আর আমাকে ভোট করার জন্য ভারতীয় বন্ধুদের কাছে কৃতজ্ঞ।

উল্লেখ্য, ‘মীরাক্কেল আক্কেল চ্যালেঞ্জার’ পরিচালনা করছেন শুভঙ্কর চট্টোপাধ্যায়। আর অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করছেন কলকাতার জনপ্রিয় উপস্থাপক মীর আফসার আলী।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

আমাদের ফেইসবুক পেইজ