সিলেটে অভিনব কায়দায় ছিনতাই করে মাদকসেবীরা

প্রকাশিত: ১২:১০ পূর্বাহ্ণ, জুন ১৪, ২০২১

সিলেটে অভিনব কায়দায় ছিনতাই করে মাদকসেবীরা

অনলাইন ডেস্ক

সিলেট নগরী ও শহরতলির বিভিন্ন রাস্তায় সিএনজি অটোরিকশায় চলাচলকারী লোকজনের কাছ থেকে দীর্ঘদিন ধরে টাকা ও মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নিচ্ছে একটি ছিনতাইকারী চক্রের সদস্যরা। মূলত তারা মাদকসেবী। মাদকের টাকা সংগ্রহ করতেই তারা এমন কর্মকাণ্ড চালায়।

এই চক্রের ৪ সদস্যকে শনিবার (১২ জুন) গ্রেফতার এবং ছিনতাই কাজে ব্যবহৃত অটোরিকশা জব্দ করেছে এসএমপি’র মোগলাবাজার থানাপুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছেন- সিলেটের জালালাবাদ থানার চরুগাঁওয়ের ইমাম হোসেনের ছেলে মো. শামীম মিয়া (২২), হবিগঞ্জের চুনারুঘাট থানার সাটিয়াজুরি গ্রামের মৃত নূর হোসেনের ছেলে সোলেমান (২২), সিলেটের মোগলাবাজার থানার কুচাই এলাকার সুলতানপুর গ্রামের মো. খলকু মিয়ার ছেলে রুবেল (২৪) ও হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার সাকুয়া গ্রামের মৃত আব্দুল্লাহের ছেলে ছাইদ উল্লাহ (২১)।

এদের মধ্যে ছাইদ উল্লাহ সিএনজি অটোরিকশাচালক ও ছিনতাইকারীদের সহযোগী।

বিষয়টি প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছেন সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের (এসএমপি) অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার বি.এম. আশরাফ উল্যাহ তাহের।

পুলিশ জানায়, গত ২ জানুয়ারি বিকেলে দক্ষিণ সুরমার কদমতলিস্থ রসমেলা মিষ্টিঘরের সামনে থেকে সিলেট জজ কোর্টের সহকারী আইনজীবি আতিকুর রহমান সিলেট কুচাই যাওয়ার উদ্দেশ্যে একটি সিএনজি অটোরিকশায় উঠেন। এসময় অটোরিকশায় ৪ জন লোক বসা ছিলেন।

অটোরিকশাটি কুচাই যাওয়াকালে সিলেট-জকিগঞ্জ সড়কের গোটাটিকর সুন্দরবন কমিউনিটি সেন্টারের সামনে পৌঁছামাত্র আতিকুর রহমানের গলায় চাকু ধরে তার কাছ থেকে ১৫ হাজার টাকা ও তার ব্যবহৃত স্মার্ট ফোনটি ছিনিয়ে নেয় ছিনতাইকারীরা। পরে আতিকুর রহমানকে ধাক্কা দিয়ে অটোরিকশা থেকে রাস্তার পাশে ফেলে ছিনতাইকারীরা পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় পরদিন মোগলাবাজার থানায় মামলা দায়ের করেন (নং-২)।

দীর্ঘ অনুসন্ধান শেষে শনিবার (১২ জুন) মোগলাবাজার থানাপুলিশ দক্ষিণ সুরমার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে মো. শামীম মিয়া, সোলেমান, রুবেল ও ছাইদ উল্লাহকে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারকৃতদের রোববার (১৩ জুন) তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ওই ছিনতাই কাজে তারা জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

আমাদের ফেইসবুক পেইজ