সিলেটে আরো ২টি কোভিড-১৯ টেষ্ট সেন্টার চালু হচ্ছে

প্রকাশিত: ৬:৪৭ অপরাহ্ণ, জুন ১১, ২০২০

সিলেটে আরো ২টি কোভিড-১৯ টেষ্ট সেন্টার চালু হচ্ছে

নিজস্ব প্রতিবেদক:: সিলেটে আরো ২টি কোভিড-১৯ টেষ্ট সেন্টার চালু করা হচ্ছে। খুব শীগ্রই তা উদ্বোধন করা হবে। একটি হলো সীমান্তিকে আর অপরটি হলো ওসমানী মেডিকেল কলেজে।

আজ বৃহস্পতিবার (১১ জুন) এক ভিডিও বার্তায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও সিলেট-১ আসনের সংসদ সদস্য এ তথ্য জানান।

মন্ত্রী বলেন, সীমান্তিকের চেয়ারম্যান আহমদ আল কবীরের সাথে আমার কথা হয়েছে। তিনি আমাকে আশ্বস্থ করেছেন সীমান্তিকে একটি কোভিড-১৯ টেষ্ট চালু করার। আমিও এব্যাপারে সংশ্লিষ্ট সবার সাথে আলাপ করেছি। খুব শীঘ্রই এটি চালু করা হবে।

মোমেন বলেন, এছাড়াও আমার সিলেটবাসীর জন্য আরেকটি সুসংবাদ হলো- ওসমানী মেডিকেল কলেজে আরো একটি কোভিড-১৯ টেষ্টের মেশিন রয়েছে। তবে- এ মেশিনের কয়েকটি পার্টস মিসিং আছে। সেগুলো সংগ্রহ করা হচ্ছে। খুব শীঘ্রই ওসমানী মেডিকেল কলেজে আরেকটি কোভিড-১৯ টেষ্ট সেন্টার চালু করা হবে।

তাছাড়া কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে কোভিড-১৯ টেষ্টের জন্য বলা হয়েছিল। কিন্তু তাদের মেশিনটি খুবই পুরনো হওয়ায় তা আর হচ্ছে না।

এছাড়াও মন্ত্রী বলেন, আমি জানতে পেরেছি কোভিড-১৯ টেষ্ট রিপোর্ট পেতে দেরি হচ্ছে। আমি এ ব্যাপারে কথা বলেছি। ওসমানীতে ২ শিফটে কাজ করছেন। আমি তাদেরকে বলেছি- ৩ কিংবা ৪ শিফটে কাজ করতে। তারাও আমার কথায় আশ্বাস দিয়েছেন। খুব শীঘ্রই সিলেটে টেষ্ট রিপোর্ট নিয়ে যে সমস্যা হচ্ছে তা আর হবে না।

মন্ত্রী মোমেন বলেন, শহীদ সামসুদ্দিন হাসপাতালে বেড সংখ্যা তেমন খালি নেই। এ অবস্থায় আমরা আরো ২টি সরকারি হাসপাতাল নেওয়ার চিন্তা করছি। একটি শাহপরানের ৩৫ বেডের ক্লিনিক, অপরটি হলো দক্ষিণ সুরমায়।

টেস্ট কিট সংকট নিয়ে যে সমস্যার কথা আমি শুনেছি- সত্য নয়। আমি কথা বলেছি সামসুদ্দিন ও ওসমানী হাসপাতালে। তারা বলছেন- প্রয়োজনীয় টেস্ট কিট রয়েছে। এছাড়া শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের টেষ্ট সেন্টারে কিটের অভাব রয়েছে। আমি সেগুলো পূরণ করে দেবো।

প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসা না দেওয়ায় মন্ত্রী মোমেন ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

আমাদের ফেইসবুক পেইজ