সিলেটে প্রথম নির্বাচনী সাংগঠনিক সফরে বাজিমাৎ করলেন শাখাওয়াত হোসেন শফিক

প্রকাশিত: ১২:৩৯ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৯, ২০২০

সিলেটে প্রথম নির্বাচনী সাংগঠনিক সফরে বাজিমাৎ করলেন শাখাওয়াত হোসেন শফিক

জুনেদ আহমদ ::
সিলেটে প্রথম নির্বাচনী সাংগঠনিক সফরে বাজিমাৎ করলেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক শাখাওয়াত হোসেন শফিক । গত ২১ ডিসেম্বর সোমবার ৩ দিনের সাংগঠনিক সফরে সিলেট আসেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাখাওয়াত হোসেন শফিক । সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলায়। দিরাই পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর পক্ষে গণসংযোগ শেষে ও জনসভায় অংশগ্রহণ করেন। ২২ ডিসেম্বর হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ পৌরসভায় আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর পক্ষে গণসংযোগ ও ২৩ তারিখ মৌলভীবাজারের বড়লেখায় পৌর সভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর পক্ষে গণসংযোগ করেন।

সিলেট বিভাগের মৌলভীবাজারের বড়লেখা পৌরসভায় আওয়ামী লীগের প্রার্থী আবুল ইমাম মো. কামরান চৌধুরী ও সুনামগঞ্জের দিরাই পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বিশ্বজিৎ রায় জয়ী হয়েছেন। শায়েস্তাগঞ্জে বিদ্রোহীতে ডুবলো আ. লীগ, মেয়র পদে বিএনপি প্রার্থী মো. ফরিদ আহমেদ অলি জয়ী হয়েছেন।

 

সিলেট বিভাগের মৌলভীবাজারের বড়লেখা পৌরসভা, সুনামগঞ্জের দিরাই পৌরসভা ও হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে।
সুনামগঞ্জের দিরাই পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বিশ্বজিৎ রায় জয়ী হয়েছেন। মৌলভীবাজারের বড়লেখায় পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আবুল ইমাম মো. কামরান চৌধুরী বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন। শায়েস্তাগঞ্জে বিদ্রোহীতে ডুবলো আ. লীগ, বিএনপির প্রার্থী জয়ী হয়েছেন।

সুনামগঞ্জের দিরাই পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বিশ্বজিৎ রায় জয়ী হয়েছেন। তিনি পেয়েছেন ৫ হাজার ৯১০ ভোট।তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জগ মার্কা নিয়ে মোশারফ মিয়া পেয়েছেন ৫ হাজার ৭৫৭ ভোট।এছাড়া এ নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী মো. ইকবাল হোসেন চৌধুরী পেয়েছেন ১ হাজার ৯৬০ ভোট।

মৌলভীবাজারের বড়লেখায় পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আবুল ইমাম মো. কামরান চৌধুরী বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন। নৌকা প্রতীকে তিনি পেয়েছেন ৫৯৮৮ ভোট।তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সাইদুল ইসলাম মোবাইল ফোন প্রতীকে পেয়েছেন ৩০৮৯।এছাড়া বিএনপির প্রার্থী আনোয়ারুল ইসলাম ধানের শীষ প্রতীকেপেয়েছেন ৬২৪ ভোট।

শায়েস্তাগঞ্জে বিদ্রোহীতে ডুবলো আ. লীগ, বিএনপির প্রার্থী জয়ী

হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে বিএনপি প্রার্থী মো. ফরিদ আহমেদ অলি জয়ী হয়েছেন। তিনি পেয়েছেন ৩ হাজার ৮৪০ ভোট।

উপজেলা নির্বাচন অফিস থেক্রে প্রাপ্ত বেসরকারি ফলাফলে এ তথ্য জানা গেছে।

শায়েস্তাগঞ্জে অলির নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের মাসুদউজ্জামান মাসুক পেয়েছেন ৩ হাজার ১৩৯ ভোট।

সোমবার অনুষ্ঠিত এ নির্বাচনে শায়েস্তাগঞ্জে আওয়ামী লীগের আরও চারজন বিদ্রোহী প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

শায়েস্তাগঞ্জ পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে মাসুদউজ্জামান মাসুককে মনোনয়ন দেয় আওয়ামী লীগ। তার সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী সদ্য বিদায়ী মেয়র মো. ছালেক মিয়া। তার নির্বাচনি প্রতীক নারকেল গাছ। চামচ প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দিতা করেন আরেক বিদ্রোহী প্রার্থী ফজল উদ্দিন তালুকদার। এ ছাড়া, জগ প্রতীক নিয়ে আবুল কাশেম শিবলু এবং মোবাইল ফোন প্রতীক নিয়ে উপজেলা ছাত্রলীগের সদস্য ইমদাদুল ইসলাম শীতল নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

গত ২১ ডিসেম্বর সোমবার ৩ দিনের সাংগঠনিক সফরে সিলেট  আসেন  আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাখাওয়াত হোসেন শফিক ।

সোমবার সকালে বিমান যোগে ঢাকা থেকে সিলেট এম.এ.জি ওসমানী বিমানবন্দরে এসে পৌছেন। সেখান থেকে চলে যান সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলায়। দিরাই পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর পক্ষে গণসংযোগ শেষে ও জনসভায় অংশগ্রহণ করেন। ওই রাতে সুনামগঞ্জে রাত্রিযাপন শেষে ২২ ডিসেম্বর হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ পৌরসভায় আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর পক্ষে গণসংযোগ ও ২৩ তারিখ মৌলভীবাজারের বড়লেখায় পৌর সভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর পক্ষে গণসংযোগ করেন।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

আমাদের ফেইসবুক পেইজ