সিলেটে বার বার আলোচনায় আসা মৌ র যত ঘটনা…..

প্রকাশিত: ৯:৪৯ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ১৪, ২০২২

সিলেটে বার বার আলোচনায় আসা মৌ র যত ঘটনা…..

অনলাইন ডেস্ক

সুমাইয়া আক্তার মৌ। সুন্দরী এক নারী। সিলেটে বিতর্কিত নানা কর্মকাণ্ড করে আলোচনায় আসেন বার বার। গ্রেফতারও হয়েছেন একাধিকবার।

সর্বশেষ বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) সন্ধ্যারাতে সিলেটের সালুটিকর থেকে মাদকদ্রব্যসহ মৌ ও তার এক পুরুষ সঙ্গীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সুমাইয়া আক্তার মৌ সিলেটের দক্ষিণ সুরমার স্বর্ণশিখা আবাসিক এলাকার ৫ নম্বর বাসার শাহেদ মিয়ার মেয়ে। তিনি অভিনেত্রী ও মডেল হিসেবে পরিচিত। ২০১৪ সাল থেকে তিনি আলোচনায়। ওই সময় তিনি তার দুই প্রেমিকসহ বন্দরবাজার থেকে গ্রেফতার হন।

সিলেটের আঞ্চলিক ভাষার নাটকের অভিনেত্রী হিসেবে মৌ’র পরিচিতি থাকলেও বিভিন্ন সময় তার বিরুদ্ধে অনৈতিক কাজ এবং মাদকদ্রব্য সেবন ও বিক্রির সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগ ওঠে। তিনি বিভিন্ন পার্টিতে নাচেন। প্রেমের ফাঁদে ফেলে পুুরুষদের কাছ থেকে বড় অংকের টাকাও হাতিয়ে নেওয়ার গুরুতর অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

জানা যায়, ২০১৪ সালের জুন মাসে সুমাইয়া আক্তার মৌ সিলেটের হাসান মার্কেটের ব্যবসায়ী সবুজ ও সাজুকে প্রেমের ফাঁদে ফেলেন। ওই সময় বেশ কয়েক মাস ওই দুই যুবকের সঙ্গে একযোগে প্রেম চালিয়ে যান। ওই সময় তার স্বামী নগরীর কুমার পাড়ার বাসিন্দা কামরুল ইসলামের অজান্তে সবুজ ও সাজুকে নিয়ে মৌ অনেক স্থানে নির্জনে সময় কাটান। একপর্যায়ে সবুজের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ভাগ বসানোর চেষ্টা করেন মৌ। এই বিষয় এবং মৌ-এর সঙ্গে সবুজ ও সাজুর ত্রিভুজ প্রেম নিয়ে ত্রিমুখী বিরোধ বাঁধে।

এই বিরোধ প্রকাশ্যে আসে ২০১৪ সালের ১২ জুন। ওইদিন রাত ৯টার দিকে সবুজ ও সাজুর সঙ্গে নগরীর সিটি পয়েন্ট এলাকায় ঝগড়া শুরু করেন মডেল মৌ। জনাকীর্ণ স্থানে ঝগড়া শুরু হওয়ায় লোকজন পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ এসে তিনজনকেই আটক করে। তখন পুলিশকে সবুজ ও সাজু জানান, মৌ তাদেরকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে অনেক টাকা হাতিয়ে নিয়েছে।

পরদিন তাদের তিনজনকেই আদালতে প্রেরণ করা হয়। তবে ওইদিনই মৌ জামিনে মুক্ত হয়ে যান এবং চালিয়ে যেতে থাকেন এরকম ‘অনৈতিক’ কর্মকাণ্ড।

পরবর্তীতে নগরীর চারাদিঘীরপাড় থেকে মাদকদ্রব্যসহ আরো একবার গ্রেফতার হন মৌ। সর্বশেষ বৃহস্পতিবার ফেন্সিডিলসহ গ্রেফতার হলেন তিনি।

সিলেটের গোয়াইনঘাট থানাধীন সালুটিকর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর মো. শফিকুল ইসলাম খান কে জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৭টার দিকে সিলেটের আম্বরখানা-ভোলাগঞ্জ সড়কের সালুটিকর বহরঘাটা এলাকা থেকে সালুটিকর তদন্ত কেন্দ্রের একদল পুলিশ সুমাইয়া আক্তার মৌ ও তার সঙ্গী সোহেলকে আটক করেন। এসময় তাদের কাছ থেকে দুই বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়।

মৌ’র সঙ্গে আটক হওয়া সোহেল আহমদ সিলেটের জালালাবাদ থানার নাজিরেরগাঁও গ্রামের আবদুস শুকুরের ছেলে। তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করছে পুলিশ।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun
     12
17181920212223
24252627282930
31      
       
       
1234567
2930     
       

আমাদের ফেইসবুক পেইজ