সিলেট জেলা ছাত্রলীগ নেতা সারোয়ার কারাগারে, বঙ্গবন্ধু ছাত্র ফেডারেশনের নিন্দা ও প্রতিবাদ

প্রকাশিত: ১০:২৫ অপরাহ্ণ, জুন ১৬, ২০২০

সিলেট জেলা ছাত্রলীগ নেতা সারোয়ার কারাগারে, বঙ্গবন্ধু ছাত্র ফেডারেশনের নিন্দা ও প্রতিবাদ

অনলাইন ডেস্ক :: সিলেট জেলা ছাত্রলীগ নেতা ও দক্ষিণ সুরমা উপজেলা ছাত্রলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি সারোয়ার হোসেন চৌধুরীকে মিথ্যা মামলায় কারাগারে প্রেরণের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি সংসদ ও বঙ্গবন্ধু স্মৃতি পাঠাগার ছাত্র ফেডারেশন বাংলাদেশ দক্ষিণ সুরমা উপজেলা শাখার নেতৃবৃন্দ।
গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান বঙ্গবন্ধু স্মৃতি সংসদ ও বঙ্গবন্ধু স্মৃতি পাঠাগার ছাত্র ফেডারেশন দক্ষিণ সুরমা উপজেলা শাখার নেতাকর্মীরা। সংগঠনের সভাপতি কামরান উজ্জামান, সহ-সভাপতি সাইদুর রহমান বাবলু, সহ-সভাপতি নাইম আহমদ নাবিল, সাধারণ সম্পাদক ফাহিম হোসাইন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মিনহাজুল আবেদিন মারজান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জুয়েল আহমদ, সাংগঠনিক সম্পাদক সাকিব আহমদ,সাংগঠনিক সম্পাদক মতিউর রহমান সাগর দপ্তর সম্পাদক তানভীর হাসান প্রিতম, পাঠাগার সম্পাদক আলী আহমদ সাকের, প্রচার সম্পাদক শামীম আহমদ, তথ‍্য ও প্রযুক্তি সম্পাদক মোস্তাফিজুর রুমেদ, শিক্ষা সম্পাদক মাজেদ আলম, পরিবেশ সম্পাদক এমদাদুল হক তুহিন প্রমুখ নেতৃবৃন্দ। তারা বলেন, রাজনৈতিক যড়যন্ত্রের শিকার হয়েছেন জেলা ছাত্রলীগ নেতা সারোয়ার হোসেন চৌধুরী। পুলিশের হস্তক্ষেপে মিথ্যা ঘটনা সাজিয়ে ছাত্রলীগ নেতা সারোয়ারকে ফাঁসানো হয়েছে। সংগঠনের পক্ষ থেকে আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।
নেতৃবৃন্দরা অবিলম্বে ছাত্রলীগ নেতা সারোয়ার হোসেন চৌধুরীর মুক্তির জোর দাবী জানিয়ে বলেন ঘটনার সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্তের মাধ্যমে অপরাধীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পুলিশ প্রশাসনের উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তাদের প্রতি অনুরোধ জানান নেতৃবৃন্দ।
উল্লেখ, জয়নাল আবেদিন ডায়মন্ডকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে শুনে এ বিষয়ে খোঁজখবর নিতে গত ২০ মে দিবাগত রাত সাড়ে ১২ টার দিকে কয়েকজন বন্ধুসহ সারোয়ার হোসেন চৌধুরী সিলেট কোতোয়ালী মডেল থানায় যান। ওই সময় ‘উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে’ তাকে আটক করে থানা পুলিশ। পরদিন ছিনতাই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

আমাদের ফেইসবুক পেইজ