সিলেট -৩ আসনের উপ-নির্বাচন : মুজিব আদর্শের লড়াকু সৈনিক শমসের জামাল মাঠে

প্রকাশিত: ৮:২৫ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ৭, ২০২১

সিলেট -৩ আসনের উপ-নির্বাচন : মুজিব আদর্শের লড়াকু সৈনিক শমসের জামাল মাঠে

নিজস্ব প্রতিবেদক

সিলেট-৩ আসনের উপনির্বাচনে নৌকার প্রার্থী হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে আছেন শমসের জামাল। পারিবারিকভাবে দীর্ঘদিন ধরেই আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে সক্রিয় রয়েছেন তিনি। দলের দুর্দিনেও দলছাড়া হননি শমসের জামাল। সিলেট জেলা ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রয়াত এনামুল হক ও জেলা মহিলা লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এবং সাবেক এমপি সৈয়দা জেবুন্নেছা হক দম্পতির সন্তান তিনি। যে কারণে আসন্ন উপনির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার ব্যাপারে শমসের জামাল আশাবাদী।

জানা গেছে, দক্ষিণ সুরমা, বালাগঞ্জ ও ফেঞ্চুগঞ্জ নিয়ে সিলেট-৩ আসনের সংসদ সদস্য মাহমুদুস সামাদ চৌধুরী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। এখন ওই আসনে উপনির্বাচন হবে। নির্বাচনে অংশ নিতে সিলেট আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা দৌড়ঝাপ শুরু করেছেন। তাদের মধ্যে শমসের জামাল অন্যতম।

তবে একটি সূত্র জানিয়েছে, পারিববারিকভাবে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে দীর্ঘদিন ধরে সক্রিয় ভূমিকা পালন করে আসছেন শমসের জামাল। সবধরনের সংকটে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা অনুযায়ী কর্মকাণ্ড চালিয়ে আসছেন তিনি ও তার পরিবারের বাবা-মাসহ সকল সদস্য।

জানা গেছে, আওয়ামী পরিবারে জন্ম হওয়ার কারনে শৈশব থেকেই জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ ধারণ করেছেন শমসের জামাল। সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের রয়েছে তার সরব উপস্থিতি। ১৯৮৪ সালে সিলেট এম.সি.কলেজে ছাত্রলীগের সাধারণ সদস্য হিসাবে রাজনীতিতে শমসের জামালের পথচলা শুরু।

শিক্ষাজীবন শেষ করে তিনি চাকরি জীবনে প্রবেশ করেন। ওই সময় তাদের বাড়িতে বিএনপি-জামায়াতের মদদে গ্রেনেড হামলার ঘটনা ঘটে। হামলায় শমসের জামালের মা ও সিলেট মহিলা লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি সৈয়দা জেবুন্নেছা হক আহত হন।

পরে চাকরি ছেড়ে দিয়ে সিলেটে রাজনীতিতে নেমে পড়েন শমসের জামাল। এখন তিনি রাজনীতির পাশাপাশি ব্যবসাও করছেন। সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি’র পরিচালক হিসেবে তিনি দায়িত্বরত রয়েছেন।

শমসের জামালের বড় বোন নাজমা হোসেন যুক্তরাজ্য মহিলা আওয়ামীলীগের কোষাধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়া তার মেজো বোন সালমা সুলতানা সিলেট জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্বরত আছেন। শমসের জামালের ছোট বোন ফাহিমা সুলতানা বার্মিংহাম মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদে রয়েছেন। এছাড়া ছোট ভাই শমসের রাসেল সিলেট মহানগর বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা কেন্দ্রের সাংগঠনিক সম্পাদক।

এসব ব্যাপারে নৌকার মনোনয়নপ্রার্থী শমসের জামাল বাংলাদেশ টাইমসকে বলেন, পরিবার থেকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ধারণ করেছি। শৈশব থেকে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে আমি সম্পৃক্ততা। বাবা-মা দুজনই আওয়ামী লীগের রাজনীতির মধ্যদিয়ে সুনাম অর্জন করেছেন। আমিও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ ধারণ করে এগিয়ে যেতে চাই।

তিনি আরও বলেন, মানুষের জীবনমান উন্নয়নে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন আওয়ামী লীগ সরকারের বিকল্প নেই। আমার দৃঢ় বিশ্বাস জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে মনোনয়ন দিবেন। আমি সারাজীবন দলের জন্য কাজ করে যেতে চাই।

আমাদের ফেইসবুক পেইজ