সুনামগঞ্জ ৫ আসন:যে কারণে মিলন বঞ্চিত,চুড়ান্ত মনোনীত মিজান চৌধুরী

প্রকাশিত: ১২:৩০ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ৮, ২০১৮

সুনামগঞ্জ ৫ আসন:যে কারণে মিলন বঞ্চিত,চুড়ান্ত মনোনীত মিজান চৌধুরী

 

নিজস্ব প্রতিবেদক:দলীয় হাই কমান্ডের সিদ্ধান্ত  অনুযায়ী দলীয় মনোনয়ন থেকে বঞ্চিত হয়েছেন কলিম উদ্দিন আহমদ মিলন। ২০১৭ সালের ২২ মে সোমবার রাত ১১ টায়  বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী মিজানুর রহমান মিজান চৌধুরীকে দলীয় চুড়ান্ত মনোনয়ন  দেয়া হয়।       

২০১৭ সালের ২৬ শে মে শুক্রবার  কলিম উদ্দিন আহমদ মিলনকে সভাপতি  ইসলাম নুরুলকে সাধারণ সম্পাদক করে সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপির ৫১ সদস্যের পূর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদন দেওয়া হয়।

দলীয় চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার  নির্দেশে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে অনুমোদন দেওয়া হয়। এর এগে দীর্ঘদিন  জেলা বিএনপি’র কমিটি গঠন প্রক্রিয়া দলীয় চেয়ারপার্সনে সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় ছিলো । কমিটির সভাপতি পদ নিয়ে কলিম উদ্দিন আহমদ মিলন ও মিজানুর রহমান চৌধুরী’র প্রতিদ্বন্দ্বিতা শুরু হয়।

২০১৭ সালের ২২ মে সোমবার রাত ১১ টায়  বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ে সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপি’র  সভাপতির পদ প্রার্থী হিসাবে  কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য মিজানুর রহমান চৌধুরী  এবং কলিম উদ্দিন আহমদ মিলন এক সঙ্গেই দেখা করেন।  দলীয় চেয়ারপার্সন উভয় নেতার সাথে সাংগঠনিক বিষয়ে কথা বলেন।এ সময় চেয়ারপার্সন কলিম উদ্দিন মিলনকে সভাপতি হিসাবে চুড়ান্ত করেন।একই সাথে আগামী নির্বাচনে সুনামগঞ্জ ৫ আসনে মিজানুর রহমান চৌধুরী মিজানকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার ঘোষণা দেন।নেত্রীর সেই সিদ্ধান্ত উভয় নেতা মেনে নিয়ে একসাথে কাজ করার ওয়াদা করেন।

এদিকে ছাতক-দোয়ারা নিয়ে গঠিত সুনামগঞ্জ-৫ সংসদীয় আসনে সকল জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে ২০ দলীয় জোট বিএনপি তথা ঐক্যফ্রন্টের ধানের শীষ প্রতিকের চূড়ান্ত প্রার্থী মনোনীত হয়েছেন বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য, ছাতক উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান চৌধুরী। শুক্রবার বিকালে গুলশানস্থ বিএনপি চেয়ারপার্সনের রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে এ আসনে বিএনপির চূড়ান্ত প্রার্থী মিজানুর রহমান চৌধুরীর নাম ঘোষণা করা হয়। এরআগে গত ২৭ নভেম্বর এ আসনে বিএনপির প্রার্থী হিসেবে সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি ও কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক কলিম উদ্দিন আহমদ মিলন এবং কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ও ছাতক উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান চৌধুরী মনোনয়নের চিঠি দেওয়া হয়। মিজানুর রহমান চৌধুরী ২০০৮ সালের নির্বাচনেও বিএনপির দলীয় মনোনয়ন চেয়েছিলেন। ২০০৯ সালে ছাতক উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দলের প্রার্থী হিসেবে তিনি বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

আমাদের ফেইসবুক পেইজ