সুন্দরী প্রতিযোগিতার মঞ্চে জান্তা সরকারের নৃশংসতার বিবরণ!

প্রকাশিত: ৯:২৪ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ৫, ২০২১

সুন্দরী প্রতিযোগিতার মঞ্চে জান্তা সরকারের নৃশংসতার বিবরণ!

অনলাইন ডেস্ক

 

গত ১ ফেব্রুয়ারি অং সান সু চির নির্বাচিত সরকারকে সরিয়ে মিয়ানমারের সামরিক বাহিনী ক্ষমতা দখল করে। এরপর থেকে সেখানে অভ্যুত্থানবিরোধী আন্দোলন করে আসছেন গণতন্ত্রকামীরা। এর পরিপ্রেক্ষিতে হত্যা, আটক ও নির্যাতনের মাধ্যমে বিক্ষোভ দমনের চেষ্টা করছে নিরাপত্তারক্ষীরা।

স্থানীয় মানবাধিকার সংগঠনগুলোর হিসাবে সেনাবিরোধী বিক্ষোভে এখন পর্যন্ত ৫৫০-এর বেশি মানুষ নিহত হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে সেখানকার ২০টির মতো সশস্ত্র সংগঠন সামরিক সরকারের বিরুদ্ধে তাদের ক্ষোভ প্রকাশ করেছে।
এদিকে, সুন্দরী প্রতিযোগিতার মঞ্চে সেনা অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়েছেন ইউনিভার্সিটি অব ইয়াঙ্গুনের মনোবিজ্ঞানের শিক্ষার্থী হান লে।

গত সপ্তাহে মিস গ্র্যান্ড মিয়ানমার হান লে যখন প্রতিযোগিতার মঞ্চে দাঁড়িয়ে তার দেশের সামরিক বাহিনী কর্তৃক সংঘটিত নৃশংসতার বিরুদ্ধে বক্তব্য রাখলেন তখন তা পুরো বিশ্বকে বিস্মিত করল।

থাইল্যান্ডে অনুষ্ঠিত মিস গ্র্যান্ড ইন্টারন্যাশনাল ২০২০ অনুষ্ঠানের মঞ্চে হান বলেন, আজ আমার দেশ মিয়ানমারে…অনেক লোক মারা যাচ্ছে। মিয়ানমারকে সাহায্য করুন, আমাদের এখনই আপনাদের পক্ষ থেকে জরুরি আন্তর্জাতিক সহায়তা প্রয়োজন।’

এছাড়াও আগামী তিন মাস থাইল্যান্ডে থেকে যাবার সিদ্ধান্ত নিয়ে তিনি বলেন, আমি আমার পরিবার ও নিজের নিরাপত্তা নিয়ে ভীষণ চিন্তিত। কারণ আমি সেনাবাহিনী ও মিয়ানমারের চলমান পরিস্থিতি নিয়ে অনেক কথাই বলেছি। মিয়ানমারের সবাই জানে যে, সেখানকার পরিস্থিতি নিয়ে কথা বলার সুযোগ সীমিত।

এ ধরনের প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারীরা বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই নিজেদের রাজনৈতিক অবস্থান প্রকাশের ব্যাপারে নিষ্ক্রিয় থাকেন, সেদিক থেকে হান লে উজ্জ্বল ব্যতিক্রম।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun
     12
17181920212223
24252627282930
31      
       
       
1234567
2930     
       

আমাদের ফেইসবুক পেইজ