স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে প্রত্যয় হচ্ছে, এই স্বাধীনতাবিরোধীদের মূলোৎপাটন করা : এড. নাসির উদ্দিন খান

প্রকাশিত: ১:১২ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ২৭, ২০২১

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে প্রত্যয় হচ্ছে, এই স্বাধীনতাবিরোধীদের মূলোৎপাটন করা : এড. নাসির উদ্দিন খান

নিজস্ব প্রতিবেদক ::

সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মো: নাসির উদ্দিন খান বলেছেন, বাংলাদেশের মানুষ ধর্মপ্রাণ, ধর্মান্ধ নয়। ধর্মকে রাজনীতির হাতিয়ার করবেন না। প্রত্যেকে নিজ নিজ ধর্ম পালনের অধিকার রাখেন। বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ। মুসলমান, হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান- সকল ধর্মের-বর্ণের মানুষের রক্তের বিনিময়ে এ দেশ স্বাধীন হয়েছে।

এডভোকেট মো: নাসির উদ্দিন খান বলেন, এ দেশে ধর্মের নামে কোনো ধরনের বিভেদ-বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে দেব না বাংলার মানুষ। ধর্মীয় মূল্যবোধ সমুন্নত রেখে দেশের মানুষ প্রগতি, অগ্রগতি এবং উন্নয়নের পথে এগিয়ে যাবে। একাত্তরের পরাজিত শক্তির একটি অংশ মিথ্যা, বানোয়াট, মনগড়া বক্তব্য দিয়ে সাধারণ ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের বিভ্রান্ত করতে সম্প্রতি মাঠে নেমেছে। তারা সমাজে অশান্তি সৃষ্টি করতে চাচ্ছে। জাতির পিতা ১৯৭২ সালে বলেছিলেন, ধর্মকে রাজনীতির হাতিয়ার না করতে। কিন্তু পরাজিত শক্তির দোসররা দেশকে আবার ৫০ বছর আগের অবস্থায় ফিরে নিয়ে যাওয়ার স্বপ্ন দেখছে। রাজনৈতিক মদদে সরকারকে ভ্রুকুটি দেখানোর পর্যন্ত ধৃষ্টতা দেখাচ্ছে।

ইতিহাসের এক বিশেষ সন্ধিক্ষণে আমরা এ বছরের ১৭ মার্চ আমাদের মহান নেতা সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন করেছি।

স্বাধীনতার অর্ধশতাব্দী পরেও যারা দেশ ও জাতির বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত, তাদের মূলোৎপাটনের প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন এডভোকেট মো: নাসির উদ্দিন খান।

তিনি আরোও বলেন, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু যার নেতৃত্বে স্বাধীন বাংলাদেশের জন্ম হয়েছে, তারই কন্যা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে বাংলাদেশ মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত হয়েছে, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে এটি আমাদের বড় অর্জন। বাংলাদেশ আজ খাদ্যে উদ্বৃত্তের দেশ, পৃথিবীর বুকে বাংলাদেশ আজ একটি গর্বিত দেশ, বাঙালি একটি গর্বিত জাতি, আর এ অর্জন সম্ভব হয়েছে জননেত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বের কারণে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

অপরদিকে স্বাধীনতাবিরোধী চক্র এখনও আস্ফালন করে উল্লেখ করে এড.নাসির খান আরও বলেন, ‘তারা এখনও আমাদের স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব, কৃষ্টি ও সংস্কৃতির বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে। এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে আমাদের প্রত্যয় হচ্ছে, এই স্বাধীনতাবিরোধীদের মূলোৎপাটন করা।’

সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে মুজিব শতবর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ১০দিনব্যাপী আয়োজিত অনুষ্ঠান মালার আজ (২৬ মার্চ) ১০ম এবং শেষ দিনে সম্পন্ন হয়েছে। অনুষ্ঠান সঞ্চালনার সময় সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মোঃ নাসির উদ্দিন খান এ কথা গুলো বলেন।

অনুষ্ঠানে সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের নিবেদনে আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি মাসুক উদ্দিন আহমদ বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তীতে বাংলাদেশকে বিশ্বের দরবারে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছেন, তাঁর সূদৃঢ় ও সাহসী নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ অর্থনৈতিক ও সামাজিক ভাবে মর্যাদার আসনে আসিন হয়েছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট মোঃ লুৎফর রহমান,বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেন।

সভায় আরো বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আব্দুল হাসিব মনিয়া, মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য আজম খান (কাউন্সিলর), জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আখলাকুর রহমান চৌধুরী সেলিম, মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য নুরুন নেছা হেনা, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আমাতোজ জোহরা রওশন জেবিন রুবা, মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য মোক্তার খান, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিব, মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য রাহাত তরফদার, মহানগর আওয়ামী লীগের এমরুল হাসান, মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য সুদীপ দে, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মোঃ আব্দুল বারী, মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য ওয়াহিদুর রহমান ওয়াহিদ, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য এম কে শাফি চৌধুরী এলিম, মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য জমাদিন আহমদ, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মোঃ জাকির হোসেন, মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য সাইফুল আলম স্বপন, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য এডভোকেট আফসর আহমদ (চেয়ারম্যান), মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য সৈয়দ কামাল, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য এডভোকেট ফখরুল ইসলাম, মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য আবুল মহসিন চৌধুরী মাসুদ, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য এডভোকেট মনসুর রশীদ, মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য আতিকুর রহমান সোহেদ, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য শাহিদুর রহমান চৌধুরী জাবেদ, মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য মাহফুজ চৌধুরী জয় প্রমুখ।

সভায় উপস্থিত ছিলেন সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল খালিক, মোঃ সানাওর, জগদীশ চন্দ্র দাস, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আজাদুর রহমান আজাদ, বিধান কুমার সাহা, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক তপন মিত্র, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক এডভোকেট গোলাম সোবহান চৌধুরী, দপ্তর সম্পাদক খন্দকার মহসিন কামরান, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক নজমুল ইসলাম এহিয়া, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক আসমা বেগম, যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক সেলিম আহমদ সেলিম, শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক ইলিয়াছুর রহমান ইলিয়াছ, শ্রম সম্পাদক আজিজুল হক মঞ্জু, সাংস্কৃতিক সম্পাদক রজত কান্তি গুপ্ত, সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট সৈয়দ শামীম আহমদ , উপ-দপ্তর সম্পাদক অমিতাভ চক্রবর্ত্তী রনি, সহ-প্রচার সম্পাদক সোয়েব আহমদ, কোষাধ্যক্ষ লায়েক আহমেদ চৌধুরী, মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য এডভোকেট কিশোর কুমার কর, আব্দুল আলিম জুনেল, খলিল আহমদ, ইলিয়াছ আহমেদ জুয়েল,সম্মানিত জাতীয় পরিষদ সদস্য এডভোকেট রাজ উদ্দিন।

আজকের আলোচনা সভায় সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সহ-সভাপতি এড. মোঃ নিজাম উদ্দিন, অধ্যক্ষ মো: সুজাত আলী রফিক, মুক্তিযোদ্ধা সা’দ উদ্দিন আহমদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন ইসলাম কামাল, মোহাম্মদ আলী দুলাল, কবির উদ্দিন আহমদ, সাংগঠনিক সম্পাদক এড. মাহফুজুর রহমান, এড. রনজিৎ সরকার, উপদেষ্টা এডভোকেট খোকন কুমার দত্ত, আইন সম্পাদক এডভোকেট আজমল আলী, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক মো: মবশ্বির আলী, ত্রান ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক সৈয়দ এপতার হোসেন পিয়ার, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এডভোকেট মোহাম্মদ আব্বাছ উদ্দিন, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক বেগম সামসুন্নাহার মিনু, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক এমাদ উদ্দিন মানিক, শিক্ষা ও মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক বুরহান উদ্দিন আহমদ, শ্রম সম্পাদক সাইফুর রহমান খোকন, সাংস্কৃতিক সম্পাদক সামসুল আলম সেলিম, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডা: মোহাম্মদ সাকির আহমদ (শাহীন), উপ-দফতর সম্পাদক মো: মজির উদ্দিন, উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মতিউর রহমান, কোষাধ্যক্ষ শমসের জামাল, সদস্য এড. নুরে আলম সিরাজী, এড. বদরুল ইসলাম জাহাঙ্গীর, শাহিদুর রহমান শাহিন।

মহানগর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সালউদ্দিন বক্স সালাই (১১নং ওয়ার্ড), জায়েদ আহমেদ খাঁন সায়েক (৭নং ওয়ার্ড), মোঃ বদরুল ইসলাম বদরু (১১নং ওয়ার্ড), শেখ সোহেল আহমদ কবির(২৩নং ওয়ার্ড), সিরাজুল ইসলাম শিরুল(২৬নং ওয়ার্ড) প্রমুখ।

সিলেট জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমদ, মহানগর যুবলীগের সভাপতি আলম খান মুক্তি, সাধারণ সম্পাদক মুসফিক জায়গিরদার, সিলেট জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক জালাল উদ্দিন আহমেদ কয়েছ, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক দেবাংশ দাস মিঠু, মহানগর কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রকিব বাবলু, তাঁতী লীগের সভাপতি নোমান আহমদ, সাধারণ সম্পাদক শেখ আবুল হাসনাত বুলবুল, ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শাহরিয়ার আলম সামাদ।

সভার শুরুতেই পবিত্র কুরআন থেকে তেলাওয়াত করেন জেলা আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক এমাদ উদ্দিন মানিক এবং পবিত্র গীতা পাঠ করেন মহানগর আওয়ামী লীগের উফ-দফতর সম্পাদক অমিতাভ চক্রবর্তী রনি।

 

 

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun
     12
24252627282930
31      
       
       
1234567
2930     
       

আমাদের ফেইসবুক পেইজ