হবিগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন : একই ‘অপরাধে’ দ্বিতীয়বার বহিস্কার মিজান

প্রকাশিত: ৬:৫৮ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২১

হবিগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন : একই ‘অপরাধে’ দ্বিতীয়বার বহিস্কার মিজান

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি

দলীয় সিদ্ধান্তের বাহিরে গিয়ে হবিগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র প্রদে প্রার্থী হওয়ায় পৌর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও বর্তমান মেয়র মিজানুর রহমান মিজানকে বহিস্কার করেছে আওয়ামী লীগ। এরআগে একই কারণে ২০১৫ সালেও তাকে দল থেকে বহিস্কার করা হয়েছিলো।

হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি এডভোকেট মো. আবু জাহির এবং সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মো. আলমগীর চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক পত্রে তাকে বহিস্কার করা হয়।

শনিবার বেলা ৩টার দিকে গণমাধ্যমে পাঠানো বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায় জেলা আওয়ামী লীগ।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২৮ ফেব্রুয়ারি হবিগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ড হবিগঞ্জ জেলা যুবলীগ সভাপতি আতাউর রহমান সেলিমকে দলীয় মনোনয়ন দেয়। কিন্তু দলীয় সিদ্ধান্তের বাহিরে গিয়ে নির্বাচনে বিদ্রোহী হওয়ার অপরাধে হবিগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজানকে দল থেকে বহিস্কার করা হলো।

একই সাথে হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের কোন নেতাকর্মী মিজানুর রহমানের সাথে সম্পৃক্ত থেকে নির্বাচনে কাজ করলে তাদের বিরুদ্ধেও সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে হুশিয়ারি দেয়া হয়।

এর আগে ২০১৫ সালে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী হয়ে নির্বাচনে অংশ নেয়ায় মিজানুর রহমান মিজানকে দল থেকে বহিস্কার করা হয়। পরে সাধারণ ক্ষমার আওতায় এনে তার পূণরায় সাংগঠনিক পদ ফিরিয়ে দেয়া হয়। ২০১৯ সালের উপ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন নিয়ে তিনি মেয়র নির্বাচিত হন।

দলের বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ার ব্যাপারে মিজানুর রহমান মিজান বিভিন্ন সময় প্রচারণাকালে বলেন, দল থেকে দেশ বড়। তাই জনগণের চাহিদার মূল্যায়ন করতে তিনি দলীয় সিদ্ধান্তের বাহিরে গিয়ে নির্বাচন করছেন।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

আমাদের ফেইসবুক পেইজ