১১ ঘণ্টার ম্যারাথন বৈঠকে চীনের কাছে যেসব দাবি জানাল ভারত

প্রকাশিত: ২:২৭ অপরাহ্ণ, জুন ২৩, ২০২০

১১ ঘণ্টার ম্যারাথন বৈঠকে চীনের কাছে যেসব দাবি জানাল ভারত

অনলাইন ডেস্ক :;

পূর্ব লাদাখের গলওয়ান উপত্যকায় গত ১৫ জুন চীনা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষ বাধে ভারতীয় সেনার। তাতে কর্নেল-মেজরসহ ২০ ভারতীয় সেনা প্রাণ হারান। আহত হন আরও ৭৬ জন সেনা।

সেই ঘটনার জেরে দুই দেশের মধ্যে উত্তেজনা চরমে উঠেছে। এমন পরিস্থিতিতে সোমবার সকাল সাড়ে ১১টায় বৈঠকে বসেন দুদেশের কম্যান্ডাররা।

প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় কীভাবে শান্তি ও স্থিতিশীলতা ফিরিয়ে আনা যায় এবং নতুন করে সংঘর্ষের ঘটনা যাতে না ঘটে, সেজন্য টানা ১১ ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে বৈঠক হয় দুপক্ষের মধ্যে।

পূর্ব লাদাখে চুসুল সেক্টরে অনুষ্ঠিত ওই বৈঠকে সীমান্ত চুক্তি মেনে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় আগের অবস্থা ফিরিয়ে আনার পক্ষে বিভিন্ন সওয়াল করেছে ভারত।

যদিও সরকারিভাবে কোনো পক্ষই ওই বৈঠক নিয়ে কোনো বিবৃতি দেয়নি।

তবে ভারতের সেনা সূত্রের বরাতে আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, চীনা বাহিনীর কম্যান্ডারদের সঙ্গে বৈঠকে ভারত বেশ কয়েকটি দাবি জানিয়েছে। এর মধ্যে ভবিষ্যতে যাতে সংঘর্ষের ঘটনা না ঘটে, সেজন্য প্যাংগং সংলগ্ন এলাকা থেকে বাহিনী প্রত্যাহার করতে হবে চীনকে।

গলওয়ান উপত্যকার দিকে মুখ করে যেসব নির্মাণকাজ চালাচ্ছে চীন, তা অবিলম্বে বন্ধ করে দিতে হবে।

এছাড়া গোগরা, দেপসাং এবং পূর্ব লাদাখের চুসুলেও সব সামরিক নির্মাণ বন্ধ রাখার দাবি জানিয়েছে ভারত।

সেই সঙ্গে যেভাবে কাঁটা লাগানো রড দিয়ে আঘাত করে এবং পাথর ছুড়ে ভারতীয় সেনার ওপর হামলা চালিয়েছে চীনা বাহিনী, তারও তীব্র নিন্দা করা হয়েছে বৈঠকে।

তবে দুপক্ষের বৈঠকে কী সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে, তা এখনও পর্যন্ত জানা যায়নি। তবে এত সহজে পূর্ব লাদাখে শান্তি ফেরানো সম্ভব হবে না বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহল। তাদের মতে, সব কিছু আগের অবস্থায় ফিরিয়ে আনতে সময় লাগবে।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun
28      
       
       
       
1234567
2930     
       

আমাদের ফেইসবুক পেইজ