১৫ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে অলআউট বাংলাদেশ

প্রকাশিত: ৪:০২ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২১

১৫ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে অলআউট বাংলাদেশ

স্পোর্টস ডেস্ক

দুর্দান্ত জুটিতে টাইগারদের লড়াইয়ে ফিরিয়েছিলেন লিটন ও মিরাজ। ফলোঅন এগিয়ে তাদের জুটি ১০০ ছাড়িয়েছিল অনেক আগেই।

রানকে সেঞ্চুরির দিকে নিয়ে যাচ্ছিলেন লিটন। কিন্তু হঠাৎ করেই বাংলাদেশ শিবিরে টর্নেডো বয়ে গেল রাহকিম কর্নওয়ালের।

একই ওভারে টপাটপ তুলে নিলেন দুই উইকেট। সেট ব্যাটসম্যান লিটনকে ফেরানোর পর একই ওভারে নেন নাঈম হাসানের উইকেট। এরপর কর্নওয়ালের সঙ্গে যোগ দেন দুই পেসার গ্যাব্রিয়েল ও জোসেফ।

তার তুলে নেন যথাক্রমে মিরাজ ও রাহিকে। অর্থাৎ ৩৩ বল আর ১৫ রানের মধ্যে শেষ ৪ উইকেট হারিয়ে শেষ হয়ে গেল বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস। ২৯৬ রানে থামল স্বাগতিকরা। সে হিসাবে প্রথম ইনিংসে ১১৩ রানে পিছিয়ে বাংলাদেশ।

আজ তৃতীয় সেশনে লিটন-নাঈমকে ফিরিয়ে দিয়ে সর্বোচ্চ ৫ উইকেট শিকার করলেন কর্নওয়াল। গ্যাব্রিয়েল পেয়েছেন ৩টি। দুটি পেয়েছেন আলজারি জোসেফ।

ধারণা করা হচ্ছিল লিটন-মিরাজ জুটি দিনটি পার করে দেবেন। অন্তত লিটন সেঞ্চুরি করবেন। চা-বিরতির আগের সেশনটা লিটন ও মিরাজ যেভাবে শেষ করেছিলেন, চা-বিরতির পর এমন শুরুতে বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমীরা আশায় বুক বেঁধেছিলেন। ভালো কিছু একটা হবে।

কিন্তু সে আশায় গুড়ে বালি। কর্নওয়ালের ঝড়ে ২৮০ থেকে রান ২৮৩ যেতেই ৩ উইকেট হাওয়া বাংলাদেশের।

৭১ রানে লিটনকে ফেরালেন কর্নওয়াল। তখন বাংলাদেশের সংগ্রহ ৬ উইকেটে ২৮০ রান।তার আউটের পর রানের খাতা খোলার আগেই নাঈম হাসানকে ফেরালেন কর্নওয়াল।

লিটন মিরাজের ১২৩ রানের জুটি ভাঙেন কর্নওয়াল। সঙ্গী চলে যাওয়ার পর যেন নিজেরও থাকতে ইচ্ছা হচ্ছিল না মিরাজের।

পরের ওভারেই ২৮৩ রানের মাথায় গ্যাব্রিয়েলের পেসে সাজঘরে ফেরেন মিরাজ। ১৪০ বলে ৫৭ রান করেছেন মিরাজ।

এর টেলএন্ডার তাইজুল ও আবু জায়েদ রাহি বেশি দূর নিয়ে যেতে পারেননি ইনিংসকে। তাইজুল চমৎকার ব্যাট করে যাচ্ছিলেন। ১৭ বলে ১৩ রানে অপরাজিত ছিলেন। কিন্তু অপরপ্রান্তে রাহি ১ রান করে জোসেফের বলে আউট হয়ে যান।

বাংলাদেশকে অলআউট করে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে নেমে পড়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত যথাক্রমে ৬ ও ৫ রানে ব্যাট করছেন ক্যরিবীয় অধিনায়ক ক্রেইগ ব্রাথওয়েট ও জন ক্যাম্পবেল। দলের সংগ্রহ কোনো উইকেট না হারিয়ে ১০ রান।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

আমাদের ফেইসবুক পেইজ