কান্তের এমন মহানুভবতায় আমি অভিভূত: ফরাসি ডিফেন্ডার

প্রকাশিত: ৩:৪৮ অপরাহ্ণ, জুলাই ৪, ২০২০

কান্তের এমন মহানুভবতায় আমি অভিভূত: ফরাসি ডিফেন্ডার

অনলাইন ডেস্ক :;
ফুটবলবিশ্বে সবচেয় বেশি লাজুক ও অমায়িক স্বভাবের খেলোয়াড় কে প্রশ্নে সবার প্রথম যার নাম বলা হবে তিনি হলেন চেলসির ফরাসি মিডফিল্ডার এনগোলো কান্তে।

শুধু তাই নয়, আর্থিক বিষয়েও প্রচণ্ড রকমের স্বচ্ছ তিনি। গেল কয়েক মাস আগে আমাজনের মতো বিশ্ব বিখ্যাত ব্র্যান্ডের চেয়েও বেশি কর দিয়েছেন এই মুসলিম এথলেট।

কান্তের স্বভাব নিয়ে বরাবরই প্রশংসায় পঞ্চমুখ চেলসির সতীর্থরা। গত কয়েক মাস আগে সতীর্থ স্টিভেন এনজনজি জানিয়েছিলেন, কান্তে এতোটাই লাজুক ও নম্র-ভদ্র যে, বিশ্বকাপ জেতার পরও ট্রফি নিয়ে উদযাপন করতে পারেননি তিনি। পরে জোর করে তার হাতে ট্রফি ধরিয়ে দিই আমরা।

কান্তের সাবেক ক্লাবের এক সতীর্থ জানিয়েছেন, কান্তে একজন ধার্মিক মানুষ। নিয়মিতই সাধারণ মানুষদের সঙ্গে মসজিদে নামাজ পড়তে যেতে দেখেছেন তাকে। এমনকি সতীর্থের ঘুমের যাতে ব্যাঘাত না ঘটে, সেজন্য কান্তে ফজরের নামাজও নিঃশব্দে পড়েন।

এমন সব প্রশংসার ভিড়ে এবার জানা গেল আরও এক চমকপ্রদ তথ্য।

তাহলো ঝামেলায় পড়া এক সতীর্থকে এক মাস নিজের বাসায় থাকতে দিয়েছিলেন কান্তে।

উইগান অ্যাথলেটিকের হয়ে খেলা ফরাসি ডিফেন্ডার সেড্রিক কিপরের কাছ থেকে এ তথ্য জানা গেল।

ক্রীড়াভিত্তিক সংবাদমাধ্যম গোল ডট কমকে সেড্রিক কিপরে বলেন, পিএসজি থেকে যখন লেস্টারে যোগ দিই তার এক বছর পর ফরাসি ক্লাব কাঁ থেকে ইংল্যান্ডে আসেন কান্তে। তখন অ্যাপার্টমেন্টে কিছু ঝামেলার কারণে বেশ যন্ত্রণায় ভুগছিলাম। তখন ভাইসহ আমাকে কান্তে এক মাস নিজের অ্যাপার্টমেন্টে থাকতে দেন। কান্তের এমন মহানুভবতায় আমি অভিভূত। তার কাছে আমি কৃতজ্ঞ। আমি গর্বিত যে, কান্তের মতো কারও সঙ্গে আমার এ জীবনে দেখা হয়েছে। ফুটবল জগতে তার চেয়ে ভদ্র ও নিরহংকারী কেউ নেই বলে বিশ্বাস আমার।