বড়লেখায় অপহরণের এক মাস পর মাদ্রাসা ছাত্রী উদ্ধার

প্রকাশিত: ৯:৩৩ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৩, ২০২০

বড়লেখায় অপহরণের এক মাস পর মাদ্রাসা ছাত্রী উদ্ধার

স্বপন দেব, মৌলভীবাজার প্রতিনিধি :: বড়লেখায় অপহরণের এক মাস পর অবশেষে মাদ্রাসাছাত্রী ফারহানা বেগমকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। । মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই আবু সাঈদ সোমবার বিকেলে উপজেলার সুজানগর ইউপির বারহালি গ্রামে অভিযান চালিয়ে অপহরণকারী বখাটে রুবেল আহমদের ফুফুর বাড়ি থেকে তাকে উদ্ধারের পর আদালতে সোপর্দ করে।

বড়লেখা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত ভিকটিমের ডাক্তারী পরীক্ষার ও সেভ কাস্টডির আদেশ দিয়েছেন।

জানা গেছে, উপজেলার ফকিরবাজার াখিল মাদ্রাসার অস্টম শ্রেণির ছাত্রীকে মাদ্রাসায় যাওয়া-আসার পথে উত্যক্ত করতো বখাটে ছেলে রুবেল আহম (২১)। তার ভয়ে সে (১৬) মাদ্রাসায় যাতায়াত বন্ধ করে দেয়। এক পর্যায়ে বিয়ের প্রস্তাব দিলে ছাত্রীটির পরিবার তা প্রত্যাখান করে। এতে সে ক্ষীপ্ত হয়ে ১২ জুন সহযোগী নিয়ে জোরপূর্বক মাদ্রাসা ছাত্রীকে অপহরণ করে। এ ঘটনায় ছাত্রীটির চাচাতো ভাই রাসেল আহমদ অপহরণকারী বখাটে রুবেলসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে থানায় অপহরণ মামলা করেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই আবু সাঈদ জানান, সোমবার সকালে অপহৃতা মাদ্রাসাছাত্রীকে উদ্ধার করে আদালতে সোপর্দ করেছেন। বিজ্ঞ আদালত ভিকটিমের ডাক্তারী পরীক্ষা ও সেইভ কাস্টডির আদেশ দিয়েছেন। পুলিশ মামলার অপর আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চালাচ্ছে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ