ভিডিও বার্তায় কান্নায় ভেঙে পড়লেন রিয়া

প্রকাশিত: ১০:০১ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১, ২০২০

ভিডিও বার্তায় কান্নায় ভেঙে পড়লেন রিয়া

অনলাইন ডেস্ক

এতদিন পুরো বিষয়টা শক্ত হাতেই সামলাচ্ছিলেন। সুশান্তের আকস্মিক মৃত্যু থেকে পুলিশের জেরা- সব ক্ষেত্রেই দৃঢ় মনের পরিচয় দিয়েছেন রিয়া চক্রবর্তী। কিন্তু এবার তিনি ভেঙে পড়লেন। একাধিক অভিযোগে জর্জরিত অভিনেত্রী নতুন ভিডিও বার্তায় চোখের পানি ধরে রাখতে পারলেন না।

সুশান্ত সিং রাজপুতের অকাল মৃত্যুর জন্য বান্ধবী রিয়াকেই কাঠগড়ায় তুলেছে অভিনেতার পরিবার। অভিযোগ, রিয়ার জন্যই অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়েছিলেন সুশান্ত। তাকে রীতিমতো ভয় দেখানো হত। তার ওপর কালা জাদুও করেছেন অভিনেত্রী। এমনকি সুশান্তের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে বিপুল পরিমাণ টাকাও নিজের দখলে নিয়েছেন। এমনই একাধিক অভিযোগে জর্জরিত রিয়া এবার আর নিজেকে শক্ত করে ধরে রাখতে পারলেন না। তার পরিবারের পক্ষ থেকে একটি ভিডিও পোস্ট করা হয়েছে। সেখানেই বার্তা দিতে গিয়ে কেঁদে ফেললেন প্রয়াত সুশান্তের গার্লফ্রেন্ড। তার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের পর এই প্রথম নিজে থেকে কোনও ভিডিও বার্তা দিলেন রিয়া।

ভিডিওতে রিয়া জানান, দেশের বিচার ব্যবস্থার প্রতি তার সম্পূর্ণ আস্থা রয়েছে। সত্যিটা সামনে আসবেই। অভিনেত্রীর কথায়, “আমার ঈশ্বর এবং বিচার ব্যবস্থার ওপর পূর্ণ আস্থা আছে। আমার নামে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে নানা কুকথা বলা হচ্ছে। কিন্তু আমার বিশ্বাস, আমি সুবিচার পাবই। আইনজীবীর পরামর্শ মতো আমি কোনও বিষয়ে কোনও মন্তব্য করব না। সত্যের জয় হবেই।”

উল্লেখ্য, এই ভিডিওটির আগে রিয়ার একটি পুরনো ভিডিও হঠাৎই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়। যেখানে তাকে বলতে শোনা যায়, তার বয়ফ্রেন্ড নিজেকে বড় গুণ্ডা মনে করে। কিন্তু আসলে তিনিই তার বয়ফ্রেন্ডের রাশ নিজের হাতে রাখেন। “ও জানে না যে, আসল ডন আমি। নিজের হাত নোংরা না করে অন্যদের দিয়ে কাজ করিয়ে নিই। যেমন, আমি ওকে কোনও নির্মাতার কাছে গিয়ে হফতা জমা করার জন্য বলতে পারি।” এমনকি এসব রেকর্ড করতেও এক সময় বারণ করেন তিনি। ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে যাওয়ায় টিম রিয়ার পক্ষ থেকে সাফাইও দেওয়া হয়েছে। বলা হয়, একটি দৃশ্যের অভিনয় করছিলেন তিনি। যদিও এরপরও এ নিয়ে জলঘোলা বন্ধ হয়নি।

এদিকে, মুম্বাই পুলিশকেই সুশান্ত মৃত্যু তদন্তের ভার দেওয়া নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন রিয়া। ৫ আগস্ট সেই মামলার শুনানি হওয়ার কথা রয়েছে।

ভিডিও দেখতে এখানে ক্লিক করুন