করোনা-কে উপেক্ষা করে পর্যটকদের ভীড় জাফলং ফিরিয়ে দেওয়া হল পর্যটকদের

প্রকাশিত: ৮:১৯ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৫, ২০২০

করোনা-কে উপেক্ষা করে পর্যটকদের ভীড় জাফলং ফিরিয়ে দেওয়া হল পর্যটকদের
সৈয়দ হেলাল আহমদ বাদশা গোয়াইনঘাট:: মহামারী করোণায় যেখানে জনগণের জীবনের নিরাপত্তা কথা অত্যন্ত গুরুত্ব সহকারে মাথায় রেখে সরকার স্কুল কলেজ মসজিদ মাদ্রাসা বন্ধ রেখেছে।এমনকি জনসাধারণের কষ্ট লাগবে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের প্রয়োজনে একটা নিয়মতান্ত্রিকতার ভিতরে হাট বাজার ব্যবসা বাণিজ্য সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে খোলার নির্দিষ্ট একটা সময় নির্ধারণ করেছে। সেখানে পর্যটকরা স্বাস্থ্যবিধি আইন না মেনেই সরকারি নির্দেশনা উপেক্ষা করে পর্যটন স্পটগুলোতে ভিড় জমাচ্ছে। সিলেটের গোয়াইনঘাটের জাফলং পর্যটন কেন্দ্রে ঘুরতে আসা পর্যটকদের গুচ্ছগ্রাম পয়েন্ট থেকেই ফিরিয়ে দিচ্ছে পর্যটন পুলিশ। পর্যটন পুলিশ জাফলং সাব-জোন ইন্সপেক্টর রতন শেখের নেতৃত্বে পুলিশ সদস্যরা পর্যটকবাহী যানবাহন আটকে তা ফিরিয়ে দিচ্ছেন। পর্যটন স্পট সমূহে পর্যটকদের আনাগোনায় সরকারের নির্দেশনা না থাকায় দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ থাকা পর্যটন কেন্দ্র সমূহ প্রশাসনের অগোচরে কিছু পর্যটক পর্যটন স্পটে ঘুরে বেড়ানোর পাশাপাশি কিছু জনসমাগম হয়। এমন ঘটনার কারণে মঙ্গলবার জাফলং পর্যটন স্পটের জিরো পয়েন্টে অনাকাঙ্ক্ষিতভাবে একজন পর্যটক নিখোঁজ হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। নিষেধাজ্ঞা ভেঙ্গে পর্যটক আনাগোনার ঘটনায় প্রশাসন ও পুলিশ বিভাগের পক্ষ থেকে এমন কঠোরতা দেখানো হচ্ছে। বুধবার সরজমিন জাফলং পর্যটন এলাকা পরিদর্শনকালে ঘুরে দেখা যায় প্রশাসনের নির্দেশে পুলিশ এবং বিভিন্ন পয়েন্টে অবস্থানের কারণে পর্যটক এবং পর্যটকবাহী গাড়ি প্রবেশে বাধা দেয়া হচ্ছে। প্রশাসনের নির্দেশনা পুলিশের কঠোরতার কারণে দেখা যায় জাফলংয়ের পর্যটন কেন্দ্র প্রায় পর্যটক দর্শনার্থী শুন্য। কোথাও পর্যটকদের সমাপ্তি নেই বললেই চলে।
গুচ্ছগ্রাম পয়েন্ট ব্যাপারে কথা হলে পর্যটন পুলিশের জাফলং সাব-জোনের ইন্সপেক্টর রতন শেখ জানান ভাইরাস জনিত কারণে সবকটি পর্যটন স্পট বন্ধ রয়েছে। তারপরও দুই একজন পর্যটক আমাদের আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর চোখ ফাঁকি দিয়ে জিরো পয়েন্টসহ বিভিন্ন স্থানে বিভিন্ন স্থানে ঢুকে পড়ে। তুমি একজন পর্যটক মঙ্গলবার জাফলং জিরো পয়েন্ট থেকে নিখোঁজ হন। এবং এখনো পর্যন্ত তার কোনো হদিস পাওয়া যায়নি। তবে পুলিশ বিভাগ এবং ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল তাঁকে উদ্ধারে কাজ করছে।
গোয়াইনঘাটের উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ নাজমুস সাকিব বলেন,দেশে করুণা ভাইরাসজনিত কারণে সরকার অফিস আদালত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি পর্যটন স্পট গুলোও বন্ধের আওতায় রাখেন। তাই সরকারের নির্দেশনায় বন্ধ থাকা পর্যটন স্পটে প্রশাসন এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অগোচরে দুই একজন পর্যটক পর্যটন স্পটে ঢুকে পড়ছে। গতকাল নিখোজ হওয়া পর্যটককে উদ্ধারে প্রশাসন এবং পুলিশ বিভাগের পক্ষ থেকে উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রয়েছে।
যেহেতু সরকারি নির্দেশনায় পর্যটন স্প বন্ধ রেখে জনসাধারণকে সুরক্ষিত রাখার জন্য কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে,সেহেতু জাফলং জিরো পয়েন্টসহ সকল স্থানে পরবর্তী নির্দেশনা না আসা পর্যন্ত পর্যটক আনাগোনা বন্ধ রাখা হয়েছে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ