চলতি বছরে নেটওয়ার্ক বিচ্ছিন্ন হচ্ছে অবৈধ মোবাইল সেট

প্রকাশিত: ৫:২৪ অপরাহ্ণ, মার্চ ১, ২০২০

চলতি বছরে নেটওয়ার্ক বিচ্ছিন্ন হচ্ছে অবৈধ মোবাইল সেট

তথ্য প্রযুক্তি :: নকল বা ক্লোন আইএমইআই (ইন্টারন্যাশনাল মোবাইল ইক্যুইপমেন্ট আইডেন্টিটি) সম্বলিত ও অবৈধভাবে আমদানি করা মোবাইল হ্যান্ডসেট চলতি বছরের মধ্যে নেটওয়ার্ক থেকে বিচ্ছিন্ন করা হবে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)। সম্প্রতি এই সতর্কতা দিয়ে অবৈধ হ্যান্ডসেট না কিনতে গ্রাহকদের অনুরোধ করেছে নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি

গত বছরের ২৯ জুলাই বিটিআরসি থেকে বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে মোবাইল ফোন হ্যান্ডসেট কেনার আগে সেটটির বৈধতা আইএমইআই এর মাধ্যমে যাচাই করে ক্রয় এবং বিক্রেতার নিকট ক্রয় রশিদ সংগ্রহ করে তা সংরক্ষণের জন্য অনুরোধ করেছিল বিটিআরসি। সংশ্লিষ্ট সবাইকে মোবাইল হ্যান্ডসেট ক্রয় বা বিক্রয়ের ক্ষেত্রে পুনরায় সতর্কতা অবলম্বনের জন্য অনুরোধ করে গত ২৭ ফেব্রুয়ারি নতুন নির্দেশনা জারি করে কমিশন। ওই নির্দেশনায় বিটিআরসি জানায়, গত বছরের ১ আগস্ট থেকে যেসব নকল বা ক্লোন আইএমইআই সম্বলিত ও অবৈধভাবে আমদানি করা মোবাইল হ্যান্ডসেট মোবাইল নেটওয়ার্কে যুক্ত হয়েছে সেগুলো অচিরেই স্থাপিতব্য ন্যাশনাল ইক্যুপমেন্ট আইডেন্টিটি রেজিস্ট্রার (এনইআইআর) এর মাধ্যমে নেটওয়ার্ক থেকে বিচ্ছিন্ন করা হবে।  বিটিআরসির স্পেকট্রাম বিভাগের পরিচালক লে. কর্নেল মোহম্মদ ফয়সল স্বাক্ষরিত আদেশে এ কথা জানানো হয়েছে।  বিটিআরসির একজন কর্মকর্তা বাংলানিউজকে বলেন, চলতি বছরের শেষ দিকে এনইআইআর চালু হবে। এই প্রক্রিয়ায় অবৈধ হ্যান্ডসেট স্বয়ংক্রিয়ভাবে বন্ধ হয়ে যাবে। এজন্য হ্যান্ডসেটের বৈধতা জেনে মোবাইল কিনতে অনুরোধ করেছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি। মোবাইল হ্যান্ডসেটের বৈধতা যাচাইয়ের পদ্ধতি: মেসেজ অপশনে গিয়ে KYD স্পেস ১৫ ডিজিটের আইএমইআই লিখে ১৬০০২ নম্বরে পাঠাতে হবে। ফিরতি এসএমএসে জানা যাবে সেটটি বৈধ কিনা। মোবাইলের বক্সে প্রিন্টেড স্টিকারে ১৫ ডিজিটের আইএমইআই পাওয়া যাবে। এছাড়া *06# ডায়াল করেও আইএমইআই জানা যাবে। বৈধ হ্যান্ডসেট ক্রয়ের জন্য উপরোক্ত পদ্ধতি অনুসরণ করতে বলেছে বিটিআরসি।

আমাদের ফেইসবুক পেইজ