পবিত্র শবেমেরাজের অলৌকিক ঘটনা

প্রকাশিত: ১২:৫৭ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ২৩, ২০২০

পবিত্র শবেমেরাজের অলৌকিক ঘটনা

মুহম্মাদ ওমর ফারুক :: রসুল (সা.)-এর জীবনে ঘটে যাওয়া অলৌকিক ঘটনাবলির মাঝে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো ইসরা ও মেরাজের ঘটনা। সব নবীই কোনো না কোনো ধরনের মোজেজার অধিকারী; কিন্তু অন্য কোনো নবীকে মেরাজের মতো মোজেজা আল্লাহ দান করেননি। নবুয়ত লাভের পর রসুল (সা.) ও তাঁর সাহাবারা কোরাইশ দলপতিদের নির্যাতনের শিকার হন। এত প্রতিকূলতার মধ্যেও রসুল (সা.)-এর জন্য সান্ত¡না হিসেবে বিবেচিত হতো তাঁর পুণ্যবতী স্ত্রী খাদিজাতুল কুবরার (রা.) উপস্থিতি। চাচা আবু তালিবের উপস্থিতি ছিল তাঁর জন্য ঢালের মতো। হঠাৎ চাচাজানের মৃত্যু হলো। কিছুদিন পর খাদিজাতুল কুবরাও বিদায় নিলেন। মহানবী (সা.) সেই বছরকে আমুল হুজন অর্থাৎ দুঃখ-দুর্দশার বছর বলে অভিহিত করেছেন। আশা-ভরসার স্থল ভেবে ওই বছর তায়েফে গিয়ে ফিরে আসেন রক্তমাখা শরীর নিয়ে। বুখারির হাদিস মতে, এক রাতে রসুল (সা.) কাবার হাতিমে ঘুমন্ত ছিলেন। কয়েকজন ফেরেশতা এসে তার পেট কেটে হৃৎপি- বের করলেন। তা ধুয়ে ইমান, হিকমত দ্বারা পরিপূর্ণ করে পুনঃস্থাপন করেন। এরপর বোরাকে বাইতুল মুকাদ্দাসে গমন করেন। সেখানে নবী-রসুলদের সালাতে ইমামতি করেন। তারপর সাত আসমানে সাত নবীর সঙ্গে সাক্ষাৎ, সালাম ও দোয়া বিনিময় করেন। তারপর সৃষ্টি জগতের শেষ প্রান্ত সিদরাতুল মুনতাহায় গমন করেন। সেখান থেকে জান্নাত, জাহান্নাম ও মহান আল্লাহর সান্নিধ্য লাভ করেন। এ সময় পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ ফরজ হয়। রসুল (সা.) জান্নাতের বিভিন্ন নেয়ামত ও জাহান্নামের বিভিন্ন আজাব অবলোকন করেন।

ঊর্ধ্বালোকের সফর শেষ করে রসুল (সা.) পৃথিবীতে ফিরে আসেন। আল কোরআনে মেরাজ সম্পর্কে আলোকপাত করা হয়েছে। সূরা বনি ইসরাইলে আল্লাহতায়ালা ইরশাদ করেন, ‘পবিত্র ও মহান সেই সত্তা যিনি তাঁর বান্দাকে সফর করিয়েছেন। রাতের একাংশে মাসজিদুল হারাম থেকে মাসজিদুল আকসার দিকে যার চারপাশকে তিনি বরকতময় করেছেন। যাতে তিনি তাঁকে দেখাতে পারেন তাঁর নিদর্শনসমূহ।’ সূরা নাজমে আল্লাহতায়ালা বলেন, ‘তাঁকে শিক্ষাদান করে এক শক্তিশালী ফেরেশতা, সহজাত শক্তিসম্পন্ন সে নিজ আকৃতিতে প্রকাশ পেল, ঊর্ধ্ব দিগন্তে। অতঃপর নিকটবর্তী হলো ও ঝুলে গেল। তখন দুই ধনুকের ব্যবধান ছিল অথবা আরও কম। তখন আল্লাহ তাঁর বান্দার প্রতি ওহি পাঠালেন যা পাঠানোর। রসুলের অন্তর মিথ্যা বলেনি যা সে দেখেছে।
লেখক : ইসলাম বিষয়ক গবেষক

সৌজন্যে : বাংলাদেশ প্রতিদিন

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

আমাদের ফেইসবুক পেইজ