কথায় নয় কাজের এমপি সামাদ চৌধুরী

প্রকাশিত: ৬:২১ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৯, ২০২০

কথায় নয় কাজের এমপি সামাদ চৌধুরী

জুনেদ আহমদ :: কবি কুসুম কুমারী দাশ লিখেছিলেন, আমাদের দেশে হবে সেই ছেলে কবে/ কথায় না বড় হয়ে কাজে বড় হবে।

কুসুম কুমারী দাশ প্রখ্যাত কবি জীবনানন্দ দাশের মা; যিনি নিজেও ছিলেন কবি। তাঁর এ কথাটির অন্তর্নিহিত অর্থ গভীর। যারা কথায় নয় কাজে বড় হবে, সেই ছেলেদের অপেক্ষা করেছিলেন কুসুম কুমারী দাশ। কবির লিখনী কবিতার মতে কাজের মাধ্যমে যে ছেলে বড় সেই প্রকৃত ছেলে।

সিলেটের-৩ আসনের এমপি মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী ব্যতিক্রম। তিনি কথা কম বলে কাজের মাধ্যমে নিজের কর্মদক্ষতার পরিচয় দিতে চান। জনগণের উন্নয়ন যেনো তার নেশা ও পেশা। এলাকার মানুষের কাছে নির্বাচনের সময় তিনি যে ওয়াদা দিয়েছেন তা তিনি অক্ষরে অক্ষরে পালন করে যাচ্ছেন। সিলেট-৩ আসনের মানুষের উন্নয়নের স্বার্থে এমপি মাহমুদ উস সামাদ নিজের জান-প্রাণ দিতে প্রস্তুত। করোনাকালীন সময়ে যেখানে বেশীরভাগ এমপিরা নির্বাচনী এলাকা ছেড়ে নিজেদের জীবন রক্ষার্থে কাজ করেছেন সেখানে নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে এলাকায় থেকে বাড়ি বাড়ি  অসহায় মানুষদের পৌছে দিয়েছেন খাবার।

সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে এমপি মাহমুদ উস সামাদ বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পর দেশে যে উন্নয়ন সাধিত হয়েছে অতীতে আওয়ামী লীগ সরকার ছাড়া কোন সরকার করতে পারেনি। তাই সরকারের উন্নয়নকে এগিয়ে নিতে আমি আমার সাধ্যমতে আমার নির্বাচনী এলাকায় উন্নয়ন কর্মকান্ড অব্যাহত রেখে যাচ্ছি।

বৃহস্পতিবার ( ১৯ নভেম্বর) ফেঞ্চুগঞ্জের ফেরীঘাট-মাইজগাঁও-পালবাড়ি সড়ক (মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী এমপি সার্কুলার রোড) রেলওয়ে ক্রসিং থেকে মাইজগাঁও বাজার ভিতরের রাস্তা আংশিক আরসিসি ঢালাই কাজ সম্পন্ন হয়েছে। সকাল ১০ ঘটিকায় রাস্তাটি যানবাহন চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়। রাস্তাটির আংশিক আরসিসি ঢালাই কাজ সম্পন্ন হওয়ায় সড়কে গাড়ি চলাচলের উম্মুক্ত করার আগে বিশাল মোটর শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভা অনুষ্টিত হয়।

আলোচনা সভায় সিলেট- ৩ আসনের সংসদ সদস্য মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী বলেছেন, আমার নির্বাচনী এলাকার যোগাযোগ, স্বাস্থ্য, শিক্ষাসহ গুরুত্বপূর্ণ সমস্যাগুলো আমি বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আন্তরিকতায় বাস্তবায়ন করতে সক্ষম হয়েছি। এই এলাকার জনপ্রতিনিধি হিসাবে প্রতিটি এলাকার সমস্যা চিহ্নিত করে প্রকল্প বাস্তবায়নের মাধ্যমে জনগণের চাহিদা পূরণ করতে সক্ষম হয়েছি। মুজিববর্ষ উপলক্ষে আমার নির্বাচনী এলাকার অনেক উন্নয়ন প্রকল্প আমি পর্যায়ক্রমে উদ্বোধন করে যাচ্ছি ফলে সরকারের এই সুযোগ সুবিধা জনগণ ভোগ করতে সক্ষম হয়েছেন। আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর দেশ ক্রমান্বয়ে এগিয়ে যাচ্ছে আগামীতে দেশ আরো এগিয়ে যাবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুযোগ্য নেতৃত্বে বাংলাদেশ নিম্ন আয়ের দেশ থেকে মাধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হয়েছে।

তিনি বর্তমান করোনা ভাইরাস পরিস্তিতি সামাল দিতে সবাইকে সরকারি নির্দেশনা মেনে মাস্ক ব্যাবহার করার আহবান জানান।

ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শওকত আলীর সভাপতিত্বে ও দপ্তর সম্পাদক মাহফুজুর রহমান জাহাঙ্গীরের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুল মজিদ চৌধুরী, ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি মৌসুমী মান্নান, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান জাহিরুল ইসলাম মুরাদ, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) সেলিনা ইয়াসমিন, ফেঞ্চুগঞ্জ থানার ওসি শাফায়েত ইসলাম, শালিশ ব্যাক্তিত্ব সাহিদ উস সামাদ চৌধুরী, ঘিলাছড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান লেইছ চৌধুরী, ফেঞ্চুগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কাজী বদরুদ্দোজা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি ফয়জুল ইসলাম মানিক, রাজু আহমদ রাজা, সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, শাখাওয়াত হোসেন তরু, মামুন আহমদ নেওয়াজ, সহ সাধারণ সম্পাদক মহিব উদ্দিন বাদল, সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা পরিষদের সদস্য আব্দুল আউয়াল কয়েস, আব্দুল হাই খসরু, তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক বিজন দেবনাথ, নজরুল ইসলাম মিফতার, মাইজগাঁও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মইন উদ্দিন, সাধারন সম্পাদক আব্দুল মালিক সাইস্তা, ফেঞ্চুগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক লোকমান আহমদ লছমান, উত্তর ফেঞ্চুগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মুজিবুর রহমান, উত্তর কুশিয়ারা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাইয়ুম, বালাগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা কামাল আহমদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা আকরাম হোসেন, সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জাহানারা বেগম শ্যামা, আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুর রউফ, আবু মিয়া, শাহজালাল ফার্টিলাইজার ফ্যাক্টরী সিবিএর সভাপতি আব্দুল মালিক চৌধুরী, সিবিএ নেতা আব্দুল মতিন, ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক মাশার আহমদ শাহ, যুগ্ম আহবায়ক মাহবুবুল ইসলাম মিছলু, যুবলীগ নেতা পারভেজ আহমদ, ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জুনেদ আহমদ, সাধারণ সম্পাদক ফারহান সাদিক, ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা শেখ রাসেল শিশু কিশোর পরিষদের সভাপতি আব্দুল হামিদ, সাধারণ সম্পাদক মুমিনুল ইসলাম প্রমুখ।

 

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ